• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ০২:১৫ পূর্বাহ্ন

সংবাদপত্রের প্রতি যারা ভীত থাকে তারা মানুষের কল্যান চায় না-বিআরজেএ


প্রকাশের সময় : জুন ১৭, ২০২২, ১০:৫৭ অপরাহ্ন / ৭১
সংবাদপত্রের প্রতি যারা ভীত থাকে তারা মানুষের কল্যান চায় না-বিআরজেএ

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ সংবাদপত্র একটা শাসকের কাছে দর্পন আর মজলুম জনগনের নিপিড়ন জুলুম আর অধিকার বঞ্চিতদের কথা জানান দিয়ে তাদের আস্বস্ত করে। কিন্তু স্বাধীন বাংলাদেশের মানুষের বাক স্বাধীনতা কেড়ে নিতে ১৯৭৫ সালের ১৬ জুন সকল পত্রিকা বন্ধ করে দিয়ে মাত্র চারটির পত্রিকাকে মুখপত্র হিসাবে প্রকাশনার অনুমোন দেয়। পরর্বতীতে সাংবাদিক সমাজ এই দিনটি কালো দিবস হিসাবে পালন করে আসছে। আজ বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক এ্সোসিয়েশন(বিআরজেএ)’এর চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাখাওয়াৎ হোসেন ইবনে মইন চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও মহাসচিব মুহাম্মদ আবু হানিফ এর পরিচালনায় কালো দিবসের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয় এতে আরো অংশগ্রহণ করেন সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান ভিপি মিজানুর রহমান সরকার,ভাইস চেয়ারম্যান ওয়াছিয়ার রহমান , যুগ্মমহাসচিব মুনসুর রহমান,মোঃআবু ইউসুফ,এরশাদুর রহমান, আলী হোসেন ফরায়জী, আব্দুল্লাহ আল নোমান, এ,এস,এম,বদরুল ইসলাম,সাংগঠনিক সচিব মোঃরফিকুল ইসলাম সহসাংগঠনিক শরীয়ত উল্লাহ ,অর্থসচিব ফাহিম আল নুর, আন্তর্জাতিক সচিব আব্দুল জব্বার রফিকুল ইসলাম দুলাল, জসীম উদ্দীন এডভোকেট কামাল হোসেন,ইলিয়াস হোসেন কাজী, আব্দুল হাই সিদ্দিকী, মোঃ হুমায়ূন কবীর তালহা, নবীউল ইসলাম নয়ন, আবদুল্লাহ মজুমদার ,জিল্লুর রহমান, সিকান্দার আলী, প্রমুখ।আলোচকরা বলেন ১৯৭৫ সালে চারটি পত্রিকা রেখে বাকী সকল পত্রিকা বন্ধ করে দেয়।এখন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সহ নানা কালাকানুন করে সংবাদপত্রকে সমাজের দর্পন হিসাবে দায়িত্ব পালন করার পরিবেশ নষ্ট করে দিয়ে সব সময় কালো দিবস।তারা বলেন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সহ সকল কালাকানুন বাতিল করা,গণমাধ্যম বাচিয়ে রাখতে প্রকাশিত সকল পত্রিকায় বিজ্ঞাপন নিশ্চিত করে, লাঠিয়াল ও হামলাকারীদের থেকে রক্ষা করতে হবে। মহাসচিব বলেন আমরা আশা করি প্রেস কাউন্সিল সাংবাদিকদের সকল বাধা দুর করে সাম্যের বাংলাদেশ গড়তে সাংবাদিকদের নির্ভীক হতে পরিবেশ সৃষ্টি করবে।তিনি আরো বলেন সাংবাদিকদের নামে মামলা প্রেস কাউন্সিল ছাড়া অন্য কোন জায়গা করার বিধান প্রত্যাহার করতে হবে। চেয়ারম্যান বলেন কাগজের দাম আগের মত করে সংবাদপত্রকে রক্ষা করতে হবে।মফস্বল ও ঢাকা থেকে প্রকাশিত সকল পত্রিকা যাতে প্রকাশ হতে পারে তার জন্যে এখনই রাষ্ট্র হস্তক্ষেপ করতে অক্ষম হলে দেশ অপরাধীদের অভয়ারণ্যে পরিনত হবে। তিনি বলেন আর এই জন্যই প্রয়োজন জনগনের ভোটে নির্বাচিত প্রতিনিধিত্বশীল সরকার। তিনি আরো বলেন সাংবাদিক সমাজ কালো দিন গুলো থেকে মুক্তি পেতে চায়, তখন তারা সমাজের প্রকৃত চিত্র তুলে ধরতে পারবে। তিনি বলেন অবিলম্বে কাগজ স।হসকল গণমাধ্যমকে চাপের মুখে রাখতে যে সকল কলাকৌশল অবলম্বন করা হয়েছে,তা অপসারণ করতে হবে