• ঢাকা
  • সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ০২:১০ অপরাহ্ন

বরিশালের বাকেরগঞ্জে ছাত্রদলের কমিটি বানচালে টাকার ঝনঝনানি


প্রকাশের সময় : মার্চ ৫, ২০২২, ১০:১৮ অপরাহ্ন / ১৬৫
বরিশালের বাকেরগঞ্জে ছাত্রদলের কমিটি বানচালে টাকার ঝনঝনানি

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশের ঐতিহ্যবাহী ছাত্র সংগঠন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের সাংগঠনিক অবকাঠামো ও শক্তিশালী করার লক্ষ্যে দেশনায়ক তারেক রহমানের নির্দেশে বিভাগীয় আহবায়ক জেলা ও উপজেলার সম্প্রতি উপজেলার দেশের শীর্ষ নেতাদের যাচাই-বাছাই ক্রমে ইউনিয়ন পর্যায়ের ছাত্রদলের কমিটি গঠন করা হয়। যে কমিটি ইতিমধ্যেই তৃণমূল পর্যায়ে ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের কাছে সচ্ছ ও গ্রহণযোগ্য হিসেবে সমাদৃত হয়েছে। কিন্তু উপজেলার ইউনিয়ন পর্যায়ে কিছু খামখেয়ালি নেতৃবৃন্দ উক্ত কমিটিকে বানচাল করে নিজেদের পকেট কমিটি বাস্তবায়নের ক্লিন মিশনে নেমেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

ইউনিয়ন পর্যায়ে তৃণমূল ছাত্রদল নেতাকর্মীদের অভিযোগ দীর্ঘদিন ধরে কিছু খামখেয়ালি ব্যক্তিদের মনগড়া দলীয় কর্মকাণ্ডে পুরো বাকেরগঞ্জের বিএনপি কোণঠাসা হয়ে পড়েছে। সেসব ব্যক্তিদের আশ্রয় প্রশ্রয় দিয়ে তাহলে সবেক সংসদ সদস্য অবুল হোসেন খান এমনটাই অভিযোগ অধিকাংশ তৃণমূল নেতাকর্মীদের। তাদের মতে আবুল হোসেন খান গুটিকয়েক খামখেয়ালি নেতৃত্বকে আশ্রয় প্রশ্রয় দিয়ে উপজেলা বিএনপিকে ধ্বংসের কিনারায় পৌঁছে দিয়েছেন। দলের সর্বনাশ ডেকে আনছে দিন দিন। যারা দলকে দীর্ঘদিন ধরে ব্যক্তিগত সম্পদ হিসেবে ব্যবহার করে আসছে। এসব ব্যক্তিদের অর্থবিত্ত ওটা ঝনঝনানির লালসায় পড়ে বাকেরগঞ্জের বিএনপি’র অভিভাবক আবুল হোসেন খান তাদের হাজার অন্যায় সত্বেও আশ্রয় প্রশ্রয় দিয়ে থাকেন বলে দলের সকল অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের মাঝে ব্যাপক ক্ষোভ বিরাজ করছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে বরিশাল জেলা ছাত্রদলের দায়িত্বশীল এক নেতা জানান, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদ ছাত্র দলের বাকেরগঞ্জ উপজেলার সদ্য গঠিত কমিটি অত্যন্ত সচ্ছ, সুন্দর ও সাংগঠনিক নেতাকর্মীদের সমন্বয় গঠিত হয়েছে। এই কমিটির অনুমোদন দেয়া হয়েছে বিভাগীয় টিম লিডার হাফিজুর রহমান হাফিজ ভাই ও জেলার সভাপতি মাহফুজুল আলম মিঠু
সাধারণ সম্পাদক কামরুল হাসান ভাই
বাকেরগঞ্জের আহবায়ক নেয়ামুল হক নাহিদ
সদস্য সচিব রাকিব তালুকদার সহ সবার চৌকস সিদ্ধান্তের সমন্বয়।
এই কমিটি প্রকাশিত হয় ১৯ ফ্রেফুয়ারী কিন্তু উপজেলার ১৪টি ইউনিয়ানে আবুল হোসেন খানের আশ্রয়-প্রশ্রয়দাতা ডোনারদের পকেট কমিটি না দিতে পারায় ছাত্রদলের জেলা উপজেলার নেতৃবৃন্দের উপর নাখোশ তারা। গঠিত কমিটি বিলুপ্ত করে নিজেদের ব্যক্তিস্বার্থের নতুন কমিটি দেয়ার মিশনে ওই চক্রটি মোটা অংকের বিনিময় কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ এবং আবুল হোসেন খান কে জব্দ করার পায়তারা চালাচ্ছে বলে জানা গেছে।

উপজেলা তৃণমূল ছাত্রদল নেতাকর্মীদের একটাই দাবি ব্যক্তিস্বার্থে দল নয় বরং দলের স্বার্থে জানো বিএনপি’র সকল অঙ্গ সংগঠন তাদের সাংগঠনিক কার্যক্রমকে গতিশীল ভাবে এগিয়ে নিয়ে দেশনায়ক তারেক রহমানের দিকনির্দেশনা কে বাস্তবায়ন করতে পারেন।