• ঢাকা
  • সোমবার, ১৭ Jun ২০২৪, ০৬:৩৪ পূর্বাহ্ন

গোপালগঞ্জে সাংবাদিক পুত্র আরমান শেখ হত্যার বিচার দাবিতে সাংবাদিক ও এলাকাবাসীর মানববন্ধন


প্রকাশের সময় : মে ২৬, ২০২৪, ৭:০২ অপরাহ্ন / ৩৪
গোপালগঞ্জে সাংবাদিক পুত্র আরমান শেখ হত্যার বিচার দাবিতে সাংবাদিক ও এলাকাবাসীর মানববন্ধন

কে এম সাইফুর রহমান, গোপালগঞ্জঃ গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় সাংবাদিক তপু শেখের একমাত্র পুত্র আরমান শেখ হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে জেলায় কর্মরত বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় কর্মরত গণমাধ্যম কর্মীরা ।

রোববার (২৬ মে) বেলা ১১ টায় গোপালগঞ্জ–টুঙ্গিপাড়া বঙ্গবন্ধু সড়কে অবস্থিত প্রেসক্লাব, গোপালগঞ্জএর সামনে প্রায় ঘন্টা ব্যাপী এ মানববন্ধন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়েছে। চলতি মাসের গত ১১ মে প্রতিদিনের মত ইজিবাইক চালাতে বের হয় সাংবাদিকপুত্র আরমান শেখ, সে আর বাড়ী ফিরে না আসলে তার বাবা সাংবাদিক তপু শেখ টুঙ্গিপাড়া থানায় গিয়ে বিষয়টি মৌখিক ভাবে জানান। পরের দিন ১২ তারিখ দুপুরে দাড়িয়ারকুল শ্মশানঘাট এলাকা থেকে আরমানের ক্ষতবিক্ষত লাশ উদ্ধার করে টুঙ্গিপাড়া থানা পুলিশ। পরে ওই ঘটনায় থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন নিহতের বাবা তপু শেখ। পরে ১৬ তারিখে ঘটনার সাথে জড়িত সাইফুল নামের এক যুবককে আটক করে পুলিশ। বাকীদের দ্রত গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদান নিশ্চিত করার দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে বিভিন্ন সংগঠনের সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ ও আরমানের স্বজনেরা।

এ সময় গোপালগঞ্জ জেলা টিভি জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি মাহবুব হোসেন সারমত, প্রেসক্লাব গোপালগঞ্জের সাবেক সভাপতি বি এম জুবায়ের হোসেন, রিপোর্টার্স ক্লাবের সভাপতি মোঃ আরিফুল হক আরিফ, জেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী হাসান মাহমুদ, জার্নালিস্ট ফেডারেশনের সভাপতি আজিজুর রহমান রনি, প্রেসক্লাব গোপালগঞ্জের যুগ্ম মহাসচিব জয়ন্ত শিরালী, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মাহমুদুর রহমান মাহমুদ, নিহত আরমান শেখের স্ত্রী ও মা বক্তব্য রাখেন।

এ সময় প্রেসক্লাব গোপালগঞ্জের সাংগঠনিক সচিব কে এম সাইফুর রহমান, মফস্বল সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক এ জেড আমিনুজ্জামান রিপন, সাংবাদিক কাজী মাহমুদ, মনির মোল্লা সহ জেলা-উপজেলায় কর্মরত বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক্স মিডিয়ায় কর্মরত গণমাধ্যমকর্মীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

মানববন্ধনে সাংবাদিক নেতারা আগামী ৭ দিনের মধ্যে আরমান শেখের হত্যাকারীদের গ্রেপ্তার করতে না পারলে আরো কঠোর কর্মসূচি পালনের হুশিয়ারী দেন। পরে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে একই দাবিতে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে।