শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১, ০৫:২৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
জাতীয় প্রেসক্লাবের ৬৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে তথ্যমন্ত্রী চাঁদপুরের মতলব উত্তরের ১নং ষাটনল ইউপি চেয়ারম্যান পদে নৌকার মাঝি হিসাবে নুরুল আজাদকে পেতে চান ইউনিয়নবাসী আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে সারাদেশে বিজিবি মোতায়েন রাজধানীর মুগদার ‘ফ্রিডম রাজা’ এখন ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আগামী ১৭ অক্টোবর থেকে ঢাবিতে স্বশরীরে ক্লাস শুরু বিধায়ক হিসেবে শপথ নিলেন মমতা আগামী রোববার এলপি গ্যাসের নতুন দর ঘোষণা বাংলাদেশে সব ধরনের মাদক আসে প্রতিবেশী দেশ থেকে: আইজিপি বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে ৪ দিন আমদানি-রফতানি বন্ধ লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় রাস্তার কাজে ব্যাপক অনিয়ম : ঠিকাদারকে চিঠি দিয়ে অবগত করলেন প্রকৌশলী



এবার বন্ধের তালিকায় ১ লাখ ২৫ হাজার মোবাইল ফোন

Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, ৫ অক্টোবর, ২০২১
  • ৯৮ Time View

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ নতুন নিয়ম কার্যকর হওয়ার প্রথম তিন দিনে (১-৩ অক্টোবর) তিন লাখ ৪৯ হাজার ৬৫২টি মোবাইল ফোন এনইআইআর (ন্যাশনাল ইকুইপমেন্ট আইডেন্টিটি রেজিস্টার) সিস্টেমে অ্যাকটিভেট (সচল) হয়েছে। এরমধ্যে অবৈধ হওয়ায় বন্ধের তালিকায় পড়েছে ১ লাখ ২৫ হাজার মোবাইল ফোন। তালিকায় থাকা মোবাইল ফোনে এরইমধ্যে মেসেজ পাঠানো হয়েছে। এগুলো পর্যায়ক্রমে বন্ধ করা হবে বলে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি সূত্রে জানা গেছে।

জানা যায়, ১ অক্টোবর এনইআইআর সিস্টেমে সচল হয়েছে ১ লাখ ২৩ হাজার ৭৫টি ফোন। এরমধ্যে বৈধ ৭৮ হাজার ৮৭৬টি ও অবৈধ ৪৪ হাজার ১৯৯টি। ২ অক্টোবর সিস্টেমে সক্রিয় হয়েছে ১ লাখ ৩ হাজার ৯৮৯টি মোবাইল ফোন। এরমধ্যে বৈধ ৬৬ হাজার ৩২৬টি, অবৈধ ৩৭ হাজার ৬৬৩টি।

৩ অক্টোবর অ্যাকটিভেট হয়েছে ১ লাখ ২২ হাজার ৫৮৮টি ফোন। এরমধ্যে বৈধ ৭৯ হাজার ৫৮৯টি, অবৈধ ৪২ হাজার ৯৯৯টি মোবাইল ফোন। বৈধ হওয়ায় ২ লাখ ২৪ হাজার মোবাইল ফোন চালু আছে। অবৈধ চিহ্নিত ১ লাখ ২৪ হাজার ৮৬১টি মোবাইল ফোন চালু থাকলেও সেগুলোর গ্রাহককে ফোনটি অবৈধ চিহ্নিত করে মেসেজ পাঠানো হয়েছে। এসব ফোন অপারেটর ধরে ধরে বন্ধ করা হবে বলে বিটিআরসি জানিয়েছে। কিছু ফোন এরইমধ্যে বন্ধ করা হয়েছে।
বিটিআরসির স্পেকট্রাম ব্যবস্থাপনা বিভাগের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. শহিদুল আলম বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘যেসব মোবাইল ফোন বৈধ, সেসবে নিবন্ধিত মেসেজ চলে গেছে। তাদের চিন্তার কারণ নেই। যাদের মোবাইল সেটটি অবৈধ বলে মেসেজ গেছে সেগুলো ক্রমান্বয়ে বন্ধ করে দেওয়া হবে।’
যারা বন্ধের মেসেজ পেয়েছেন তারা যে দোকান থেকে ফোনটি কিনেছেন সেই দোকানে ফেরত দিয়ে বদলে নিতে পারেন বা টাকা ফেরত নিতে পারেন। বিদেশ থেকে আনা ফোনের বিষয়ে ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. শহিদুল আলম বলেন, ‘বিদেশ থেকে আনা কোনও ফোন যদি বন্ধ হয়ে যায় তবে ফোনটির কাগজপত্র জমা দিলে আমরা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে যথার্থতা পেলে ফোন চালু করে দেবো। যারা মোবাইল ফোন নিয়ে আসবেন তারা (http://www.neir.btrc.gov.bd) সাইটে গিয়ে নিবন্ধন করতে পারবেন।’
তিনি জানান, বিটিআরসি কর্মকর্তারা ঢাকায় সশরীরে গিয়ে মোবাইল ব্যবসায়ীদের বলেছেন, নোটিশও দিচ্ছেন। ঢাকার বাইরেও সবাইকে জানানো হচ্ছে। মোবাইল ফোনে নাগরিকদের জানানো হচ্ছে। আগামী সাত দিনের মধ্যে সব ফোন ব্যবহারকারী এই মেসেজ পেয়ে যাবেন।

বিটিআরসির একটি সূত্র জানায়, অবৈধ মেসেজ যাওয়া ফোন যদি কোনও মোবাইল বিক্রেতা ফেরত না নেন, বদলে না দেন বা টাকা ফেরত না দেন, তবে বিটিআরসির কল সেন্টারে (১০০ নম্বরে) ফোন দিয়ে জানাতে পারেন। বিটিআরসি এই বিষয়ে আইনগত পদক্ষেপ নেবে বলে জানা গেছে।
বিদেশ থেকে আনা মোবাইল ফোন নিবন্ধন করা যাবে যেভাবে
বিদেশ থেকে মোবাইল ফোন আনা হলে (শুল্কমুক্তভাবে ২টি, শুল্ক দিয়ে ৬টি) পাসপোর্ট, ভিসার কপি, পণ্য ক্রয়ের রসিদসহ প্রয়োজনীয় কাগজ ওয়েবসাইটে (http://www.neir.btrc.gov.bd) জমা দিয়ে ফোনটি নিবন্ধন করা যাবে। ফোন উপহার পেলে তার পক্ষেও প্রমাণপত্র থাকতে হবে।



Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category



© All rights reserved © 2020 ajkerbd24.com
Design & Development By: Atozithost
Tuhin