• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩, ০২:২৮ অপরাহ্ন

ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে চাল চুরির তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে সংবাদকর্মী হামলার শিকার


প্রকাশের সময় : অক্টোবর ২১, ২০২০, ২:০৬ অপরাহ্ন / ৯৮১
ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে চাল চুরির তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে সংবাদকর্মী হামলার শিকার

ময়মনসিংহ প্রতিনিধিঃ ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলায় খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ১০ টাকা কেজি দরে চাল বিক্রিতে নানা অনিয়মের বিষয়ে প্রতিবেদন করতে গিয়ে হামলার শিকার হয়েছেন একজন সাংবাদিক। স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান শামসুল আলম খোকনের নেতৃত্বে তাঁর কর্মী-সমর্থকেরা ওই সাংবাদিকের ওপর হামলা করেন বলে অভিযোগ।

২০/১০/২০২০ ইং মঙ্গলবার সকাল ১০ টার দিকে ৮নং গফরগাঁও ইউনিয়ন হাতিখলা বাজারে মজনু চায়ের দোকানের সামনে এই হামলার ঘটনা ঘটে। হামলার শিকার মাজহারুল ইসলাম রাজু দৈনিক বাংলাদেশ বুলেটিন গফরগাঁও উপজেলা প্রতিনিধি। ঘটনার পরপর স্থানীয় লোকজন তাঁকে উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে নিয়ে আসেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, চাল চুরি এবং ১০ টাকা কেজি দরে চাল বিক্রিতে নানা অনিয়মের বিষয়ে প্রতিবেদন করতে মঙ্গলবার সকাল ০৮ টায় হাতিখলা বাজারে যান রাজু।
৩০ কেজি চালের পরিবর্তে ২৫ কেজি চাল দেওয়ায় এক মহিলা এই নিয়ে প্রতিবাদ করে।
মাজহারুল ইসলাম রাজু’র অভিযোগ, চেয়ারম্যার শামসুল আলম খোকনের বিরুদ্ধে দরিদ্র মানুষের জন্য বরাদ্দ চাল না দেওয়া এবং আত্মসাতের বিস্তর অভিযোগ করে আসছেন স্থানীয় লোকজন। এসব তথ্যের অনুসন্ধান করতে গিয়েই রাজু হামলার শিকার হন।

অভিযোগের বিষয়ে বক্তব্য নিতে তাঁর মুঠোফোনে ফোন করে জানতে চাইলে তেলে-বেগুনে জ্বলে ওঠেন ইউপি চেয়ারম্যান।
গালাগাল শুরু করেন। এরপরই হামলার ঘটনা ঘটে। হামলায় অংশ নেওয়া সন্ত্রাসী হৃদয়,আবু রায়হান,রতন ও নুরু মিয়া ক্ষিপ্ত হইয়া মারার জন্য আসিলে আমি দৌড়ে গিয়ে হাতিখলা বাজারে মজনুর দোকানে আশ্রয় নেয়।
প্রত্যক্ষদর্শী কয়েকজন জানান, ইউপি চেয়ারম্যানের লোকজন দোকান থেকে টেনেহিঁচড়ে নামিয়ে এনে মারধর করতে থাকেন। এ সময় লাঠি, ও রড দিয়ে তাঁর নাকে-মুখে-বুকে-পিঠে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে রক্তাক্ত করা হয়। আহত ওই সাংবাদিককে হাসপাতালে নেওয়ার পর ওই চেয়ারম্যান বিভিন্ন ভাবে হুমকি দিচ্ছে।

আহত অবস্থায় রাজুকে নিয়ে আসা হয়। তাঁর নাকে-মুখে-বুকে-পিঠে মারধর করায় রক্তাক্ত জখম তৈরি হয়েছিল। প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার পর তাকে বাড়ীতে পাঠানো হয়।

চেয়ারম্যান শামসুল আলম খোকনের মুঠোফোনে একাধিক বার ফোন করিলে সে ফোন ধরেনি এই ব্যাপার চেয়ারম্যান কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

গফরগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অনূকূল বিশ্বাস বলেন, এই ঘটনায় অভিযোগ হাতে পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্হা নেওয়া হবে।

গফরগাঁও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ তাজুল ইসলাম বলেন সাংবাদিককর্মীর উপরে হামলা দুঃখজনক ঘটনা। গরীবের চাল কম দিবে কেনো?অডিও বার্তা শুনেছি এই বিষয়ে তদন্ত চলছে,চেয়ারম্যান দোষী হলে ওনার বিরুদ্ধে বিধিমোতাবেক আইনগত ব্যবস্হা নেওয়া হবে