• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০:২৭ পূর্বাহ্ন

নড়াইলের নড়াগাতীতে ক্রাইম রিপোর্টার মোঃ তরিকুল ইসলাম কে হত্যার চেষ্টা


প্রকাশের সময় : মার্চ ৯, ২০২৩, ১১:৩৫ অপরাহ্ন / ৪৫
নড়াইলের নড়াগাতীতে ক্রাইম রিপোর্টার মোঃ তরিকুল ইসলাম কে হত্যার চেষ্টা

মোঃ বাবলু মল্লিক, নড়াইলঃ নড়াইলের কালিয়া উপজেলার নড়াগাতীতে জাতীয় দৈনিক মাতৃভূমির খবর পত্রিকার বিভাগীয় ক্রাইম রিপোর্টার মোঃ তরিকুল ইসলামকে মারপিট করেছে সন্ত্রাসীরা। এ সময় তার কাছে থাকা ৪৫ হাজার টাকা দামের একটি ক্যামেরা ও কাছে থাকা নগত ১৭ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয় ওই সন্ত্রাসী বাহিনী।

বিলম্বে পাওয়া তথ্যে জানা যায়, বুধবার রাত ৯টায় বাঐসোনা ইউনিয়নের পশ্চিম ডুমরিয়া গ্রামের বাবর শেখের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। আহত সাংবাদিক তরিকুল ইসলাম নড়াগাতী গ্রামের মৃত সিরাজ ফকিরের ছেলে। তিনি বর্তমানে গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

স্থানীয় ও ভুক্তভোগী সূত্রে জানা যায়, ওই দিন রাত পৌনে ৯টার দিকে ওই গ্রামের সমির শেখ নামে এক ব্যক্তি ফোনে জানায়, পশ্চিম ডুমরিয়া গ্রামের বাবর শেখের বাড়িতে যোগানিয়া গ্রামের ছবুর তালুকদারের ছেলে জসিম কে অপকর্মের দায়ে আটকিয়ে মারতেছে। তাৎক্ষণিক তিনি বিষয়টি নড়াগাতী থানা পুলিশকে অবহিত করে ঘটনাস্থলে পৌছালে বাবর শেখ (৫৫)সহ, ওই গ্রামের জাফর শেখ (৪৫) পিতা মৃত মঘফুল শেখ, আহম্মাদ বিশ্বাস (৩৫), সামিম বিশ্বাস (৩৮) সুমন বিশ্বাস (৪০), ইমন বিশ্বাস (২২) সর্ব পিতা মৃত মজনু বিশ্বাস, আকাশ শেখ (২১) পিতা জাফর শেখ, খায়রুল শেখ (৩৫) জাজিম শেখ (২৭) উভয় পিতা হোছিয়ার শেখ, রিয়াজুল সরদার (৩৫) পিতা মৃত হানেফ সরদার, হোসাইন কাজী (৩৫) হাচান কাজী (৩৫), উভয় পিতা ওবায়দুল কাজী, আসাদ শেখ (২১) পিতা তয়েব শেখ, মেহেদী শেখ (২১) পিতা হোসেন শেখ, হাফিজুর শেখ (৪০) পিতা খোকা শেখ, বাসার শেখ (২১) পিতা শাহাজান শেখসহ ১৫/২০ জন এসে সাংবাদিক তরিকুল ইসলাম কে অকথ্য ভাষায় গালাগালি করে হত্যার উদ্দেশ্যে লোহার রড, বাঁশের লাঠি, হাতুড়ি গাছের ডাল দিয়ে এলোপাতাড়ি মারপিট ও কিলঘুষি শুরু করে।

এ সময় সাংবাদিক তরিকুল ইসলামের কাছে থাকা ৪৫ হাজার টাকা দামের একটি ক্যামেরা ও পকেটে থাকা নগত ১৭ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয় ওই সন্ত্রাসী বাহিনীর লোকেরা। এসময় খবর পেয়ে নড়াগাতী থানা পুলিশ তাকে উদ্ধার করে।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী মামলা দায়েরের করবেন বলে জানিয়েছেন।

নড়াগাতী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সুকান্ত সাহা বলেন, এ বিষয়ে কোন অভিযোগ এখনো পাইনি। পেলে আইনগত ব্যবস্থা নিব।