• ঢাকা
  • সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ০৩:০৯ অপরাহ্ন

গোপাগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় মুজিববর্ষের সমাপনী অনুষ্ঠান নিয়ে উদযাপন কমিটির সংবাদ সম্মেলন


প্রকাশের সময় : মার্চ ১৬, ২০২২, ১০:৫৭ অপরাহ্ন / ১৫৯
গোপাগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় মুজিববর্ষের সমাপনী অনুষ্ঠান নিয়ে উদযাপন কমিটির সংবাদ সম্মেলন

কে এম সাইফুর রহমান, গোপালগঞ্জঃ মুজিববর্ষের সমাপনী অনুষ্ঠান নিয়ে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় সংবাদ সম্মেলন করেছে উদযাপন জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির মুখ্য সমন্বয়ক ডা. কামাল আব্দুল নাসের চৌধুরী। বুধবার বেলা ১২টায় জাতির পিতার সমাধিসৌধ কমপ্লেক্সের প্রধান ফটকের সামনে মুজিববর্ষ সমাপনী অনুষ্ঠান নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন তিনি। সংবাদ সম্মেলনে ডা. কামাল আব্দুল নাসের চৌধুরী বলেন, মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে গত বছর আমরা অনেক পরিকল্পনা গ্রহণ করেছিলাম। পরিকল্পনাগুলোর মধ্যে আমরা কিছু বাস্তবায়ন করেছি। কিন্তু করোনার কারণে সারা পৃথিবী বিপর্যস্ত হয়ে গেছে। তাই আমরা অনেক কিছুই করতে পারিনি। তবে সারা পৃথিবীতে নানা আয়োজনের মাধ্যমে মুজিববর্ষ উদযাপন করা হয়েছে। মুজিববর্ষে বিভিন্ন দেশও আমাদের সঙ্গে সম্পৃক্ত হয়েছে। তবে আমরা যে আয়োজনগুলো করেছি তার মধ্যে আমাদের বিশাল একটি অতৃপ্তি ছিলো। সে অতৃপ্তিটি হচ্ছে আমরা জাতির পিতার সমাধিসৌধে এসে তার প্রতি সবাই মিলে শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করতে পারিনি। তাই এবার বাস্তবায়ন কমিটি সহ আমাদের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের বিশিষ্টজনের সহায়তায় মুজিববর্ষের সমাপনী আয়োজন করেছি। যার মূল থিম হচ্ছে “টুঙ্গিপাড়া হৃদয়ে পিতৃভূমি”। তিনি আরো বলেন, আমরা মনে করি টুঙ্গিপাড়া হচ্ছে বাংলাদেশের সকলের গ্রাম। কারণ বঙ্গবন্ধু হচ্ছেন বাঙালির সেই আরাধ্য পুরুষ। যার মাধ্যমে বাঙালি জাতি একটি স্বাধীন রাষ্ট্র ও সত্যিকারের আত্মপরিচয় পেয়েছে। আমাদের সকলের হৃদয়ের ভিতর টুঙ্গিপাড়াকে পিতৃভূমি হিসেবে লালন করেছি। ১৭ই মার্চ দুপুর আড়াইটা থেকে বিকাল ৪ টা ৪০ পর্যন্ত আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে। আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এছাড়া সাংষ্কৃতিক অনুষ্ঠান, বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে গান, কবিতা সহ বিভিন্ন বিষয়নিয়ে সাজানো হয়েছে। অনুষ্ঠানে ঢাকা ও টুঙ্গিপাড়ার শিশু শিল্পী অংশগ্রহণ করবেন। আমরা বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবসকে ঘিরে আমাদের আয়োজন ভিন্ন মাত্রায় নিয়ে যাবে। এছাড়া ‘টুঙ্গিপাড়া হৃদয়ে পিতৃভূমি’র মাধ্যমে অনুষ্ঠানটিকে চিরস্মৃতিময় করে রাখতে চাই। আর এ ব্যাপারে সকলের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন তিনি।

এ সময় গোপালগঞ্জ জেলা প্রশাসক শাহিদা সুলতানা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আব্দুর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।