শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২, ০৬:৫০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
নড়াইলের কালিয়ায় চেয়ারম্যানের উদ্যোগে ১৯৭১টি গাছ রোপন রাজধানী সবুজবাগে পিকআপের ধাক্কায় অটোচালকের মৃত্য রাজধানী শ্যামপুর থেকে চোরাই মোটর সাইকেলসহ গ্রেফতার-১ সাংবাদিক অমিত হাবিবের মৃত্যুতে ডিইউজের শোক সাংবাদিক অমিত হাবিবের মৃত্যুতে তথ্যমন্ত্রীর শোক নড়াইলে সন্তানকে অপহরণের ভয় দেখিয়ে মাকে ধর্ষণ, মামলা দায়ের নরসিংদীতে স্বামীকে না জানিয়ে ভূয়া ঠিকানা ব্যবহার করে সৌদি আরব যাওয়ার চেষ্টা গোপালগঞ্জে শব্দ দূষণ নিয়ন্ত্রণে সমন্বিত ও অংশীদারিত্ব মূলক প্রকল্পের আওতায় সচেতনতামূলক মতবিনিময় সভা যশোরের শার্শা টু কাশিপুর সড়ক যেন মৃত্যু ফাঁদ : সড়কের অজুহাতে বাড়তি ভাড়া আদায় যে বিদ্যালয়ে অনিয়মই যেন নিয়ম অফিস কক্ষে নেই বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি

বাজারে শীতের আগাম সবজি, বেড়েছে ব্রয়লারের দাম

Reporter Name
  • Update Time : শুক্রবার, ১৩ আগস্ট, ২০২১
  • ১৭৫ Time View

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ শীতের আগাম সবজি শিম ও ফুলকপি রাজধানীর বাজারগুলোতে চলে এসেছে। তবে দাম একটু চড়া। শিম কিনতে ক্রেতাদের কেজিতে ১৬০-২০০ টাকা গুনতে হচ্ছে। আর ছোট একটা ফুলকপি কিনতে লাগছে ৩০-৫০ টাকা।

আজ (শুক্রবার) রাজধানীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে ক্রেতা ও বিক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে এমন তথ্য পাওয়া গেছে।

বিক্রেতারা বলছেন, বাজারে নতুন আসায় এখন শিম ও ফুলকপির দাম একটু বাড়তি। এই বাড়তি দাম আরও বেশকিছু দিন থাকবে। তবে দাম বেশি হলেও বাজারে শিম ও ফুলকপির বেশ চাহিদা রয়েছে।
কারওয়ান বাজারের এক ব্যবসায়ে বলেন, বাজারে যখন নতুন কোনো সবজি আসে তার দাম একটু বাড়তি থাকে। সে হিসেবে এখন শিম ও ফুলকপি দাম খুব বেশি না। সহসা এ দাম কমার সম্ভাবনা নেই। বরং সামনে আরও বাড়তে পারে।
তিনি বলেন, বাজারে শীতের সবজি ভরপুর আসতে আরও অনেক সময় বাকি আছে। এখন যে শিম ও ফুলকপি আসছে তা আগাম সবজি। এর চাষ অল্প পরিমাণে হয়। ফলে বাজারে সরবরাহ কম থাকে। আর নতুন জিনিসের প্রতি ক্রেতাদের বাড়তি চাহিদা থাকে। তাই দাম বেশি হলেও এখন শিম ও ফুলকপি বেশ ভালো বিক্রি হচ্ছে।
খিলগাঁওয়ের আরেক ব্যবসায়ী বলেন, অল্প কয়েকদিন ধরে বাজারে শিম ও ফুলকপি আসতে শুরু করেছে। বাজারে এ দুটি সবজির চাহিদা বেশ ভালো রয়েছে। তবে বেশিরভাগ ক্রেতা এক পোয়া (২৫০ গ্রাম) আধা কেজি করে কিনছেন।
এদিকে বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা গেছে, অন্যান্য বেশিরভাগ সবজির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে। তবে কিছুটা বেড়েছে মুরগির দাম।
গত সপ্তাহে ১২৫ থেকে ১৩০ টাকা কেজি বিক্রি হওয়া ব্রয়লার মুরগির দাম কিছুটা বেড়ে ১৩০ থেকে ১৩৫ টাকা বিক্রি হচ্ছে। সোনালী মুরগির কেজি বিক্রি হচ্ছে ২১০ থেকে ২৪০ টাকা, যা গত সপ্তাহে ছিল ২০০ থেকে ২৩০ টাকা।
মুরগির দাম বাড়ার বিষয়ে রামপুরার ব্যবসায়ী মো. সিকান্দার বলেন, লকডাউন তুলে নেয়ার কারণে গ্রাম থেকে অনেকে ঢাকায় ফিরেছেন। হোটেল রেস্তোরাঁগুলোতেও বিক্রি কিছুটা বেড়েছে। এ কারণে মুরগির চাহিদা এখন একটু বেশি। তাই সপ্তাহের ব্যবধানে দাম কিছুটা বেড়েছে। আমাদের ধারণা সামনে দাম আরেকটু বাড়তে পারে।

শিম বাদ দিলে আগের মতো এখনো সব থেকে বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে গাজর ও টমেটো। মানভেদে গাজরের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৮০ থেকে ১১০ টাকা। আর পাকা টমেটোর কেজি বিক্রি হচ্ছে ১০০ থেকে ১২০ টাকার মধ্যে।
এছাড়া ঝিঙের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৪০ থেকে ৫০ টাকা, করোলার কেজি ৪০ থেকে ৬০ টাকা, চিচিঙ্গার কেজি ৩০ থেকে ৪০ টাকা, পটলের কেজি ৪০ থেকে ৫০ টাকা, কাঁচা পেঁপের কেজি ২৫ থেকে ৩০ টাকা, কাঁচকলার হালি বিক্রি হচ্ছে ২৫ থেকে ৩০ টাকার মধ্যে। এ সবজিগুলোর দাম সপ্তাহের ব্যবধানে অপরিবর্তিত রয়েছে।
আগের মতো ঢ়েঁড়সের কেজি পাওয়া যাচ্ছে ৩০ থেকে ৪০ টাকার মধ্যে। বরবটির কেজি পাওয়া যাচ্ছে ৬০ থেকে ৭০ টাকায়। গত সপ্তাহে এক লাফে কেজি ২০০ টাকায় উঠে যাওয়া কাঁচা মরিচ এখনো চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে। গত সপ্তাহের মতো ব্যবসায়ীরা এক পোয়া (২৫০ গ্রাণ) কাঁচা মরিচ ৫০ থেকে ৬০ টাকা বিক্রি করছেন।
মালিবাগের ব্যবসায়ী ঝন্টু বলেন, শীতের সবজি বাজারে ভরপুর আসার আগে সবজির দাম কমার সম্ভাবনা নেই। এখন যে দামে সবজি বিক্রি হচ্ছে তা আরও চার মাসের মতো থাকতে পারে।
মাছের বাজারে গিয়ে দেখা যায়, রুই মাছের কেজি বিক্রি হচ্ছে ২৮০ থেকে ৩৮০ টাকা, মৃগেল মাছ ২২০ থেকে ২৫০ টাকা। তেলাপিয়া ১৬০ থেকে ১৮০ টাকা কেজি, পাবদা ৪৫০ থেকে ৬০০ টাকা, পাঙাস ১২০ থেকে ১৬০ টাকা। ঈদের পর থেকেই মাছ এই দামে বিক্রি হচ্ছে।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© All rights reserved © 2020 ajkerbd24.com
Design & Development By: Atozithost
Tuhin