• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২৫ Jun ২০২৪, ০২:৫৯ অপরাহ্ন

নীলফামারীতে ৫০টির অধিক অবৈধ ইটভাটা : নেই কোন আইনী ব্যবস্থা


প্রকাশের সময় : ফেব্রুয়ারী ১৬, ২০২৩, ৩:১৮ অপরাহ্ন / ৫৬
নীলফামারীতে ৫০টির অধিক অবৈধ ইটভাটা : নেই কোন আইনী ব্যবস্থা

নিজস্ব প্রতিবেদক,নীলফামারীঃ নীলফামারীতে চলছে ৫০টি অবৈধ ইটভাটার কার্যক্রম। ইট তৈরির জন্য মাটি কাটায় বিনষ্ট হচ্ছে কৃষিজমি। এতে ভারসাম্য হারাচ্ছে পরিবেশ। কৃষিজমি নষ্ট করে গড়ে ওঠা এসব ইটভাটা দীর্ঘদিন ধরে কীভাবে চালু রয়েছে এ নিয়ে বিস্ময় প্রকাশ করেছে সচেতন মহল।

ইট ভাটার কালো ধোঁয়ায় পরিবেশ দূষণ হচ্ছে। মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে জরিমানা আদায় করেও নিয়ন্ত্রণে আসছে না ইট ভাটা গুলো। ভাটার মালিকরা নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে যে-যার মতো করে ইটভাটা দিয়ে অদৃশ্য শক্তির বলে পার পেয়ে যাচ্ছেন। স্থানীয় সচেতন মহল বলছে, সবাইকে ম্যানেজ করেই বছরের পর বছর চলছে এসব অবৈধ ইটভাটা।

এসব অবৈধ ভাটা ভেঙে গুঁড়িয়ে না দিলে বন্ধ হবে না। এ ছাড়া জমির টপসয়েল কেটে ইটভাটায় ব্যবহার কারায় উর্বরতা হারিয়ে উৎপাদন হ্রাস পেয়েছে হাজার হাজার একর কৃষিজমির। প্রতিদিন শত শত অবৈধ ট্রলি ও ট্রাক্টরে অতিরিক্ত ইট ও মাটি পরিবহনের ফলে ভেঙে চৌচির হচ্ছে রাস্তাঘাট। নীলফামারী জেলায় ৫৬টি ইটভাটা রয়েছে।

সরকারি ভাবে অনুমোদিত ছয়টি। এর মধ্যে সৈয়দপুর উপজেলায় তিনটি, জলঢাকায় দুটি এবং ডোমার উপজেলায় একটি। বাকি ৫০টি ইটভাটা অবৈধ চলছে।

নীলফামারী জেলা পরিবেশ অধিদফতরের সহকারী পরিচালক কমল কুমার বর্মন বলেন, ‘বিষয়টি নিয়ে আমরা কাজ করছি। ইতোমধ্যে অবৈধ নয়টি ইটভাটায় অভিযান পরিচালনা করেছি।