• ঢাকা
  • বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:৪৮ পূর্বাহ্ন

নড়াইলে সাংবাদিক হাচিবুরকে হাতুড়ি দিয়ে পিটানো ও হত্যার হুমকি : ইউএনও বরাবর অভিযোগ দায়ের


প্রকাশের সময় : এপ্রিল ৪, ২০২৩, ১১:০৩ অপরাহ্ন / ৮০
নড়াইলে সাংবাদিক হাচিবুরকে হাতুড়ি দিয়ে পিটানো ও হত্যার হুমকি : ইউএনও বরাবর অভিযোগ দায়ের

নিজস্ব প্রতিবেদক, নড়াইলঃ নড়াইলের কালিয়ায় সংবাদ প্রকাশের জেরে ও দুর্ণীতির তথ্য ফাঁস করায় উপজেলা সমাজ সেবা অফিসের ইউনিয়ন সমাজকর্মী তরিকুল ইসলাম কর্তৃক চ্যানেল এস টেলিভিশন ও বিডি খবর পত্রিকার কালিয়া উপজেলা প্রতিনিধি মোঃ হাচিবুর রহমানকে হাতুরি দিয়ে পিটানো ও দেখে নেওয়াসহ হত্যার হুমকি দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুরে সাংবাদিক মোঃ হাচিবুর রহমান হুমকিদাতা তরিকুলের বিরুদ্ধে কালিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। সমাজকর্মী তরিকুল ইসলাম উপজেলার নড়াগাতী থানার কেশবপুর গ্রামের মৃত রাইজুল চৌধুরীর ছেলে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, পহরডাঙ্গা ইউনিয়নের পহরডাঙ্গা গ্রামের বিধবা ভাতাভোগী বৃদ্ধা সাহেরা খাতুনকে মৃত দেখিয়ে ভাতা থেকে বঞ্চিত করার অভিযোগ উঠে সমাজসেবা অফিসের ইউনিয়ন মাঠ সমাজকর্মী তরিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে। ২০২২ সালের ফেব্রুরায়ী মাসের ২৮ তারিখে ওই ইউনিয়নের সরসপুর গ্রামে একই নামের ভাতাভোগী মৃত তালেব শেখের স্ত্রী সাহেরা খাতুনের মৃত্যু হলে ইউনিয়নের চৌকিদার মাসুদ সমাজকর্মী তরিকুলকে বিষয়টি ফোনে জানালে তিনি মৃত্যু সনদ ছাড়াই ভুক্তভোগী জীবিত সাহেরার নাম কেটে অন্য একজনকে অন্তর্ভুক্ত করেন। বিগত ১ বছর যাবত জীবিত সাহেরা ভাতা না পেয়ে কালিয়া সমাজ সেবা অফিসে গেলে কম্পিউটারে মৃত হয়ে গেছে বলে ফিরিয়ে দেন। অবশেষে অসহায় বৃদ্ধা সাংবাদিকদের শরনাপন্ন হলে অনুসন্ধানে বেরিয়ে আসে ওই সমাজকর্মীর ভুলে তিনি ভাতা থেকে বঞ্চিত হয়েছেন। বিষয়টি বিষয়ে ৩০ মার্চ বিভিন্ন অনলাইন পোর্টাল ও অনলাইন টিভিতে সংবাদ প্রকাশ হয় এবং ৩১ মার্চ জাতীয় ডেল্টা টাইমস ও আঞ্চলিক বিডি খবর পত্রিকায় জীবিত থেকে ও মৃত ছাহেরা।কালিয়ায় ভাতা থেকে বঞ্চিত বৃদ্ধা সাহেরা/ কালিয়ায় সমাজ সেবা অফিসরে ভুলে ভাতা থেকে বঞ্চিত সাহেরাসহ বিভিন্ন শিরোনামে প্রকাশিত হয়। প্রকাশিত খবর ফেসবুকে আপলোড করলে সমাজকর্মী তরিকুল আপত্তিকর মন্তব্য করেন সাংবাদিক হাচিবুর রহমানের বিরুদ্ধে এবং ২ এপ্রিল ইউএনও কালিয়া রুনু সাহা সাংবাদিক ও সমাজ সেবা অফিসারের উপস্থিতিতে ভাতা বঞ্চিত বৃদ্ধা সাহেরা খাতুনকে তারঁ অফিসে ডেকে ক্ষতিপুরনসহ ভাতার বইটি পুনরায় চালু করার ব্যবস্থা করে দেন।

এ সময় ওই সমাজকর্মীকে ফেসবুকে আপত্তিকর মন্তব্যের বিষয়ে প্রশ্ন করলে উত্তেজিত হয়ে দেখে নেওয়ার হুমকি দেয় এবং বাহিরে গিয়েও অকথ্য ভাষায় কথা বলতে থাকে যা অনেকে শুনেছেন। অতঃপর সমাজকর্মী তরিকুল সাংবাদিক বাবর আলীকে তার অফিসে ফোন করে ডেকে নিয়ে নড়াগাতী গেলে সাংবাদিক হাচিবুর রহমানকে বংশীয় প্রভাব খাটিয়ে হাতুড়ি পেটা করবে ও হত্যা করবে বলেন। কিন্তু দুর্ভাগ্যক্রমে তরিকুলের হুমকি স্বরূপ কথা গুলো সাংবাদিক বাবর আলীর মোবাইলে গোপন ক্যামেরায় রেকর্ড হয়। সমাজকর্মী তরিকুল জয়নগর, বাঐসোনা ও পহরডাঙ্গা ইউনিয়নের দায়িত্বপ্রাপ্ত সমাজকর্মী।

এ ঘটনায় সাংবাদিক মোঃ হাচিবুর রহমান বলেন, কালিয়া সমাজ সেবা অফিসের সমাজকর্মী তরিকুলের বিরুদ্ধে অনিয়ম দুর্নীতির সংবাদ প্রকাশ করায় ইয়োলো অফিস থেকে দেখে নেয়া হুমকি দেয়।এবং আমার এক সহকর্মীকে ডেকে বলে আমাকে সে হাতুড়ি দিয়ে পিটাবে এবং তার দলবল লোকজন দিয়ে আমাকে মারবে এবং আমাকে হত্যা করার হুমকি দেয়।যার ভিডিও রেকর্ড হয়েছে।আমি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি ,তার বিরুদ্ধে বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর অভিযোগ করেছি।

এ বিষয়ে ইউএনও কালিয়া রুনু সাহা অভিযোগ প্রাপ্তির বিষয়টি নিশ্চিত করে বিষয়টি তিনি দেখবেন বলে জানান।