• ঢাকা
  • সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ০৪:০৭ অপরাহ্ন

গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরে সরকারি জমি দখল ও অবৈধভাবে বালু উত্তোলন বন্ধের দাবিতে এলাকাবাসীর মানববন্ধন


প্রকাশের সময় : এপ্রিল ১০, ২০২২, ৭:২৭ পূর্বাহ্ন / ৪০৭
গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরে সরকারি জমি দখল ও অবৈধভাবে বালু উত্তোলন বন্ধের দাবিতে এলাকাবাসীর মানববন্ধন

কে এম সাইফুর রহমান, গোপালগঞ্জঃ জেলার মুকসুদপুর উপজেলার খান্দারপাড় বাজার রক্ষা সহ সরকারি জমি দখল এবং অবৈধভাবে বালু উত্তোলন বন্ধের দাবিতে শনিবার (৯ এপ্রিল) সকাল ১০ টায় খান্দারপাড় বাজারের দোকান মালিকগণ ও এলাকার সাধারন জনগণ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে।

খান্দারপাড় বাজার বনিক সমিতির সাবেক সভাপতি মোঃ আলম লস্কার, মিজানুর রহমান সিকদার মানববন্ধন চলাকালে সাংবাদিকদের জানান, আবু জাহিদ সেন্টু মিয়া বাজার সংলগ্ন পুকুর হতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে বাজারের পুর্ব পাশে নিচু জমি ভরাট করছেন। এতে করে পুকুরপাড়ে অবস্থিত সরকারি হাসপাতাল, মসজিদ, মন্দির এবং বেশ কিছু দোকান ঘর ভেংগে পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তিনি বাজারের দোকান পাট, সরকারি হাসপাতাল, মসজিদ, মন্দির সহ এলাকার সর্ব সাধারনের ক্ষতির বিষয়টি বিবেচনা করে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন দ্রুত বন্ধে মুকসুদপুর উপজেলা প্রশাসনের নিকট জোর দাবি জানিয়েছেন। মানববন্ধনে খান্দারপাড় বাজারের দোকানীরা এবং এলাকার প্রায় ৪ শতাধিক লোক উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় বিষয়টি নিয়ে মুকসুদপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. জোবায়ের রহমান রাশেদের সাথে আলাপ করার জন্য তার মুঠোফোনে বেশ কয়েক বার কল করা হলেও তিনি কলটি রিসিভ করেন নি।

এ ব্যাপারে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনকারী এ্যাডঃ আবু জাহিদ সেন্টু মিয়ার সাথে সাংবাদিকরা মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, খান্দারপাড় বাজার উন্নয়নের স্বার্থে এবং এলাকার বেকার লোকজনের কর্মসংস্থানের লক্ষে আমাদের ব্যক্তিগত খান্দারপাড় বাজারের পূর্ব পাশে নিচু জমি ভরাট করে নতুন দোকান ঘর নির্মাণ করার উদ্দেশ্যে বাজারের পশ্চিশ পাশের ব্যক্তিগত পুকুর হতে বালু ও মাটি উত্তোলন করে ওই জমি ভরাট করছি। বড় পুকুর হতে যতটুকু বালু ও মাটি উত্তোলন করা হবে এতে হাসপাতাল, মসজিদ, মন্দির এবং বাজারের দোকান ঘরের কোন ক্ষতি হবেনা বলেও জানান তিনি।

সরকারি জায়গা দখল ও অবৈধভাবে বালু উত্তোলন বন্ধে গোপালগঞ্জ জেলা প্রশাসক ও জেলা পুলিশ সুপারের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেন মানববন্ধনে অংশগ্রহণকারীরা।