• ঢাকা
  • সোমবার, ১৭ Jun ২০২৪, ০৭:৫১ পূর্বাহ্ন

গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে মোক্তার হোসেন ও মুকসুদপুরে পুনরায় কাবির মিয়া চেয়ারম্যান নির্বাচিত


প্রকাশের সময় : মে ২২, ২০২৪, ৬:২৩ অপরাহ্ন / ২৮
গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে মোক্তার হোসেন ও মুকসুদপুরে পুনরায় কাবির মিয়া চেয়ারম্যান নির্বাচিত

কে এম সাইফুর রহমান, গোপালগঞ্জঃ ৬ষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচন – ২০২৪ এর অংশ হিসেবে দ্বিতীয় ধাপে ২১ মে (মঙ্গলবার) গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী ও মুকসুদপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

কাশিয়ানী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের সভাপতি, প্রবীন রাজনীতিবিদ বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ মোক্তার হোসেন দোয়াত-কলম প্রতীকে ৩২,২০৪ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মুন্সী ফররুখ হোসাইন মিন্টু আনারস প্রতীকে ২৭,৮৩৮ ভোট পেয়েছেন।

এদিকে মুকসুদপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মোঃ কাবির মিয়া ঘোড়া প্রতীকে ৫৪,৫৫৪ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে পুনরায় উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী এম মহিউদ্দিন আহম্মেদ মুক্ত মুন্সী মটর সাইকেল প্রতীকে ৪২,৮১১ ভোট পেয়েছেন।

কাশিয়ানী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মোঃ জামিনুর রহমান উড়োজাহাজ প্রতীকে ৩৬,১৫১ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রার্থী দীনবন্ধু মন্ডল তালা প্রতীকে ২১,২১২ ভোট পেয়েছেন। মহিলা ভাই চেয়ারম্যান পদে জিনাত রেহানা খান প্রজাপতি প্রতীকে ২৬,৮৯০ ভোটে নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সোহাগী রহমান মুক্তা পদ্ম ফুল প্রতীকে ২৫,৪৫৪ ভোট পেয়েছেন।

এদিকে মুকসুদপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে শাহরিয়ার বিপ্লব চশমা প্রতীকে ৩৩,৮৮৩ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী রবিউল ইসলাম মোল্লা উড়োজাহাজ প্রতীকে ৩২,৭১৫ ভোট পেয়েছেন। তানিয়া আক্তার মিতু হাঁস প্রতীকে ৬২,৪৫২ ভোট পেয়ে মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী নাজমা বেগম কলস প্রতীকে ৪৫,৮৫৬ ভোট পেয়েছেন।

সকাল ৮ টা থেকে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। তবে বিভিন্ন কেন্দ্র পরিদর্শন করে পুরুষ ভোটারের চেয়ে নারী ভোটারের উপস্থিতি ছিলো চোখে পড়ার মতো। বয়োবৃদ্ধ, প্রতিবন্ধীসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ নির্দিষ্ট কেন্দ্রে আবাধে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন।

এদিকে কোন ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হওয়ায় প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী, কর্মী-সমর্থক ও সুধী সমাজের নেতৃবৃন্দ গোপালগঞ্জ জেলা প্রশাসক ও বিজ্ঞ জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কাজী মাহবুবুল আলম, পুলিশ সুপার আল-বেলী আফিফা পিপিএম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ও মুকসুদপুর এবং কাশিয়ানী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা মোঃ গোলাম কবির, জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মুহাম্মদ ফয়জুল মোল্লা, গণমাধ্যমকর্মীসহ নির্বাচন সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।