• ঢাকা
  • শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ০৩:৫১ অপরাহ্ন

খুলনায় চাঞ্চল্যকর বিস্ফোরক মামলার দুইজন কুখ্যাত আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব-৬


প্রকাশের সময় : জুলাই ২৩, ২০২২, ১:৪১ অপরাহ্ন / ৮৬৩
খুলনায় চাঞ্চল্যকর বিস্ফোরক মামলার দুইজন কুখ্যাত আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব-৬

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ র‌্যাব ফোর্সেস আমাদের প্রিয় মাতৃভূমির অপ্রতিরোধ্য উন্নয়ন অগ্রযাত্রাকে তরান্বিত করতে এবং সন্মানিত নাগরিকদের জন্য টেকসই নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে আইনের আলোকে কঠোর পরিশ্রম করে যাচ্ছে। এছাড়াও বিভিন্ন সময়ে সংগঠিত চাঞ্চল্যকর অপরাধে জড়িত অপরাধীদের আইনের আওতায় এনে র‌্যাব জনগনের সুনাম অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে।

গত ১৫ জুলাই ২০২২ তারিখ একটি অজ্ঞাতনামা মোবাইল নম্বর হতে জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ এ কল করে ডুমুরিয়া থানাধীন ধামালিয়া গ্রামস্থ জনৈক আমিনুল হকের বাড়ির পুকুর পাড়ে একটি ব্যাগের মধ্যে সন্দেহজনক বিস্ফোরক জাতীয় ককটেল সাদৃশ্য বস্তু রয়েছে বলে জানায়। খবর পেয়ে খুলনা জেলার ডুমুরিয়া থানাধীন রঘুনাথপুর তদন্তকেন্দ্রের টহল দল ঘটনাস্থল হতে ১৫টি ককটেল বোমা সাদৃশ্য বস্তু উদ্ধার করে। পরবর্তীতে বিজ্ঞ আদালতকে অবহিত করে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার নির্দেশে প্রযুক্তি নির্ভর তদন্তের মাধ্যমে ঘটনার সাথে জড়িত দুই ব্যক্তিকে গত ২১ জুলাই ২০২২ তারিখে গ্রেফতার করা হয় ৷ অধিকতর জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিরা জানায় তারা সহ মোট ছয় জন এবং আরো ৩/৪ জন অজ্ঞাতনামা ব্যক্তির সহযোগীতায় ঘটনাস্থলের লোকজন সহ আশেপাশে মানুষের মধ্যে নাশকতামূলক কর্মকাণ্ড ঘটিয়ে জনগণের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টির লক্ষ্যে তারা পূর্ব পরিকল্পিতভাবে উক্ত ককটেল সাদৃশ্য বস্তু সেখানে রেখেছে। এই সংক্রান্তে খুলনা জেলার ডুমুরিয়া থানায় পুলিশ কর্তৃক গ্রেপ্তারকৃত দুজন আসামি ১। মোঃ নাজির মোল্লা (৪৫) ও ২। মোঃ হুমায়ুন কবির (৪০) সহ ৪ জন পলাতক আসামি ও ৩/৪ জন অজ্ঞাতনামা আসামীদের নামে বিস্ফোরক দ্রব্যাদি আইনে একটি মামলা দায়ের করে৷ এই ঘটনাটি গণমাধ্যমে প্রচারে পর জনমনে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করে৷ এই সংক্রান্তে র‌্যাব-৬ (সদর কোম্পানি) এর একটি আভিযানিক দল গোয়েন্দা তৎপরতা শুরু করে এবং আসামীদের গ্রেফতারের লক্ষ্যে অভিযান অব্যাহত রাখে।

এরই ধারাবাহিকতায় ২২ জুলাই ২০২২ তারিখ র‌্যাব-৬ (সদর কোম্পানি) এর অভিযানিক দলটি গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে যে উক্ত মামলার আসামীরা খুলনা জেলার ডুমুরিয়া থানা এলাকায় অবস্থান করছে। প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে আভিযানিক দলটি খুলনা জেলার ডুমুরিয়া থানাধীন রঘুনাথপুর এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে একই তারিখ ২৩.৩০ ঘটিকার সময় উক্ত বিস্ফোরক দ্রব্যাদি মামলার এজাহার নামীয় আসামী ১। হরিদাশ(৪০) থানা-ডুমুরিয়া, জেলা- খুলনাকে এবং খুলনা জেলার ডুমুরিয়া থানাধীন ধামালিয়া এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে একই তারিখ ২৩.৫০ ঘটিকার সময় একই মামলার এজাহার নামীয় আসামী ২৷ মোঃ রিমু (৪৫), থানা-ডুমুরিয়া, জেলা-খুলনাকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত আসামীদ্বয়কে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য খুলনা জেলার ডুমুরিয়া থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।