• ঢাকা
  • বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১:৫৫ পূর্বাহ্ন

খুলনার পাইকগাছায় প্রতিবন্ধীর জমি হতে কাঁচা ধান কেটে ক্ষতি সাধন : আদালতে মামলার প্রস্তুতি


প্রকাশের সময় : নভেম্বর ২২, ২০২৩, ২:৫০ অপরাহ্ন / ৬১
খুলনার পাইকগাছায় প্রতিবন্ধীর জমি হতে কাঁচা ধান কেটে ক্ষতি সাধন : আদালতে মামলার প্রস্তুতি

মোঃ মানছুর রহমান জাহিদ, খুলনাঃ খুলনার পাইকগাছায় প্রতিবন্ধী সাত্তার সরদারের জমি হতে কাঁচা ধান কেটে ক্ষতি সাধন করেছে প্রতিপক্ষরা। এ ঘটনায় আদালতে মামলার প্রস্তুতি চলছে। ঘটনাটি উপজেলার শ্যামনগর গ্রামে। এ ঘটনায় এলাকায় উত্তেজন বিরাজ করছে।

ভুক্তভোগী পরিবারের প্রতিবন্ধী গদাইপুর গ্রামের আব্দুস সাত্তার সরদার জানান, উপজেলার শ্যামনগর মৌজায় এস এ ১০১ নং খতিয়ানের ১৯৫ দাগে ২৮ শতক জমি তার শ্বাশুড়ি তারা বিবি ২১২৪ নং দানপত্র দলিলে ১১/১২ /০৩ তারিখে তার নামে রেজিস্ট্রি করে দেন। সাত্তারের শ্বাশুড়ীর নামে ডিপি ৪০৫ নং খতিয়ানে সেটেলমেন্ট জরিপে রেকর্ড প্রকাশিত হলে সাত্তার তার নিজ নামে নামপত্তন করে নতুন খতিয়ান খুলে সরকারের কর খাজনা প্রদান করে আসছে। সেখান থেকে সাত্তার উক্ত সম্পত্তি চাষ কারকিত করে ভোগ দখল করে আসছে। কিছুদিন পর গাছ পড়ে সাত্তারের পিঠের হাড় ভেঙ্গে গেলে সে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দীর্ঘ সময় ব্যয় করে সুস্থ হলেও সে চলাফেরা করতে পারে না। উক্ত ২৮ শতক জমিতে সাত্তার সচেতন মহলের সহযোগিতায় গত ১২/৮/২৩ তারিখ তার সত্ত্ব দখলীয় ও রেকর্ডীয় সম্পত্তি দখলে থাকা অবস্থায় সেখানে সকলের জ্ঞাতসারে ধান রোপন করেন। সাত্তারের রোপণ কৃত ধান এখনও কর্তৃন করার মত হয়নি।

এদিকে গত ইং ১৯/১১/২০২৩ তারিখ ভোর রাতে মৃত আলম সরদারের পুত্র মজিদ, মোস্তফা, মুজিবর সহ আরও ৩০/৪০ জন নারী পুরুষ দা কাচি সহ লাঠি শোটা নিয়ে সাত্তারের রোপণ কৃত কাঁচা ধান কর্তন করতে থাকে।

এ সংবাদ পেয়ে প্রতিবন্ধী সাত্তার ৯৯৯ ফোন করলে ঘটনা স্থলে পুলিশ উপস্থিত হয়ে কার্যক্রম বন্ধ করে দেন। এর মধ্যে প্রতিপক্ষরা বহু ধান নারী পুরুষ মিলে বহন করে নিয়ে যায় এবং ব্যাপক ক্ষতি সাধন করে।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত উক্ত ঘটনায় প্রতিবন্ধী সাত্তার পাইকগাছা বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছিল।
পাইকগাছা থানার ওসি মোঃ রফিকুল ইসলাম জানান, ৯৯৯ নম্বরে ফোন করার পর পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে এবং যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।