• ঢাকা
  • শুক্রবার, ০৯ Jun ২০২৩, ০৬:৫০ পূর্বাহ্ন

কে এই ইউপি সদস্য ববি কেনই বা গ্রেফতার হলেন


প্রকাশের সময় : মে ১৭, ২০২৩, ৭:১৬ অপরাহ্ন / ২১
কে এই ইউপি সদস্য ববি কেনই বা গ্রেফতার হলেন

নিজস্ব প্রতিবেদক, পঞ্চগড়ঃ এক সময় খুব ভালো ছিলেন ভালোই চলতেন অভিযোগ সূত্র থেকে জানা যায় আফরোজা আক্তার (ববি) পঞ্চগড় ১ নং অমরখানা ইউপি সদস্য ববি ইউনিয়ন পরিষদে ৩,৫,৯ নং ওয়ার্ডের মহিলা ইউপি সদস্য হওয়ার পর তার স্বামী রিপন, সহ এলাকার আরো কিছু মাদক সহযোগী দের কে নিয়ে বিভিন্ন সিন্ডিকেট তৈরি করে সন্ত্রাসী কায়দায় একের পর এক কাণ্ড ঘটিয়ে বিষম্ময় কর তুলেছে ইউপি সদস্য (ববি) গ্রুপ

এলাকাবাসী বলছে এত অপরাধ করার পরেও একাধিকবার হাজতবাসি আফরুজা আক্তার (ববি) এর কোন পদক্ষেপ নেইনি কর্তৃপক্ষ। (ববি) গ্রুপ মাদক ব্যবসা,জমি দখল,পুকুরের মাছ চুরি, মানুষকে বিপদে ফেলে লাখ লাখ টাকা অর্থ আদায়, করে নারী ব্যবসাসহ একের পর এক নানা সিন্ডিকেট করেই চলেছে এর অত্যাচারে এলাকার সুশীল সমাজ পরিবার নিয়ে আতঙ্কে আছে।

এলাকাবাসী জানান ববি ওই এলাকায় বসবাস নগ্ন থেকেই মহিলা ইউপি সদস্য ববির বিরুদ্ধে ও মাদক আসক্ত স্বামীর পরোক্ষ সহযোগিতায় এলাকার শান্তিপ্রিয় মানুষের উপর নানারকম অত্যাচার মিথ্যা মামলা সহ বিভিন্ন প্রকার সমাজ বিরোধী কার্যকলাপে লিপ্ত এই ববি, ও তার সহযোগীরা।
গত ২৪/০৩/২০২৩ ইং তারিখে মোছাঃ আফরোজা আক্তার (ববি) এক পুলিশ সার্জনকে রাস্তা থেকে সুকৌশলে অপহরণ করে তার নিজ বাড়িতে এনে চোখ ও হাত-পা বেঁধে মারপিট করে এবং মোবাইল ফোন, ওয়াললেজ, এটি এম কার্ড ছিনিয়ে নেয় এবং ওই পুলিশকে জিম্মি করে তার স্ত্রীকে মোবাইল করে বলে এক লক্ষ টাকা মুক্তিপণ দিতেহবে।

গত ১৯/০৯/২০২১ ইং তারিখে মোছাঃ আফরোজা আক্তার (ববি), এক অটো চালক মোঃ এনামুল হক, এর অটোতে চরে বাড়িতে এসে তাকেও অপহরণ পূর্বক জিম্মি করে মারপিট করে মৃত্যুর ভয় দেখিয়ে ৫০ হাজার টাকা মুক্তিপণ দাবি করে।

এছাড়াও তার মেয়ে রিংকি কে দিয়ে এলাকার বিভিন্ন মানুষকে মাদক ও নারী দিয়ে আসক্ত করে অর্থ উপার্জন করে। এতে করে সমাজের মারাত্মক ক্ষতি হয়। নিমাই পাড়া এলাকার আতিয়ার রহমানের ছেলে আলামিন, নারী নির্যাতন সি আর ৩৬/১৬ নং মিথ্যা মামলা দিয়েছে যা এখনো বিচারধীন। এছাড়াও কেউ প্রতিবাদ করতে গেলে তাদের উপর জি, আর মামলা করে যার মামলা নং ০৬/৩৩৮ এরকম মিথ্যা মামলা ভয় দেখিয়ে, দীর্ঘদিন থেকে এলাকায় তার খেয়াল খুশি মতো করে চলেছে।

গত ১০/০৬/২০১৫ ইং তারিখে চাইলের জন্য ইউ,পি সদস্য আব্দুল আজিজকে চরম ভাবে অপমান অপদস্থ করেছে। গত কোরবানীর মাংস দিতে গিয়ে সোনারবান গ্রামের গিয়াস উদ্দিন ও জাহের মিয়াকে ১০ বার কান ধরে উঠবস করায়। অমরখানার তহশিলদার মান্ননকে তার অফিস থেকে শার্টের কলার ধরে টেনে হেচরে ববির বাড়িতে নিয়ে আশে।পরে এলাকার লোকজন তোশিলদার কে তার বাড়ি হতে উদ্ধার করে। ববি তার নিজের বাড়িতে খড়ের মধ্যে আগুন ধরিয়ে জাহের মিয়া নামের এক ব্যক্তির কাছ থেকে মামলা করার হুমকি দিয়ে জরিমানা আদায় করে।

এছাড়াও দক্ষিণ তালমা এলাকার গোলজার হোসেন কে আকাসের দোকানের সামনে পায়ের জুতা খুলে মারে এবং অপমান অপদস্থ করে। কাজিরহাট বাজারের দোকান থেকে বাকি খায়, দোকানদার টাকা চাইলে দোকানদার কেও মামলার হুমকি দেয়। সোনারবান গ্রামের মনোয়ারা, স্বামী মৃত আফজাল আলীর বাড়ি থেকে অন্যায় ভাবে জ্বালানি খরি ও পুকুরের মাছ ধরে নিয়ে আসে বাধা দিলে তাকেও মারপিট করে।

প্রতিবেশী আব্দুল সাত্তার এসব ব্যাপারে ন্যায়ের প্রতিবাদ করতে গেলে তাকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দিয় এবং কিল ঘুসি মারে, আব্দুল সাত্তার ইউপি মহিলা সদস্য ববির মারপিট অবস্থায় কাজিরহাট বাজারে পড়ে মারা যায়। এছাড়াও মহিলা ইউপি সদস্য ববি, কাজির হাট বাজারে রাত ১২ থেকে ১ টা পর্যন্ত অবস্থান করে এবং মাদক সেবক ও মাদক ব্যবসায়ীদের সঙ্গে আড্ডা মারে এতে করে কাজিরহাট বাজারের মানুষ আতঙ্কে থাকে, পঞ্চগড়ে ১ নং আমারখানা ইউনিয়নের সর্বস্তরের মানুষের দাবি, এই অত্যাচারী সন্ত্রাসী মহিলাকে এলাকা থেকে বিতাড়িত করার অনুরোধ জানাচ্ছি। পরবর্তীতে ববির আটকের বিষয়টি শুনে অনেকেই খুশি। পরবর্তী পর্বে বিস্তারিত আসছে