• ঢাকা
  • সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ০৩:০৪ অপরাহ্ন

আসন্ন পৌর নির্বাচনে গোপালগঞ্জে ১১ জন ও মুকসুদপুরে ৬ জন মেয়র পদে তাদের মনোনয়ন জমা দিয়েছেন


প্রকাশের সময় : মে ১৮, ২০২২, ১:০৪ পূর্বাহ্ন / ৮৪
আসন্ন পৌর নির্বাচনে গোপালগঞ্জে ১১ জন ও মুকসুদপুরে ৬ জন মেয়র পদে তাদের মনোনয়ন জমা দিয়েছেন

কে এম সাইফুর রহমান, গোপালগঞ্জঃ আগামী ১৫ জুন গোপালগঞ্জ ও মুকসুদপুর পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এরই ধারাবাহিকতায় পৌর নির্বাচনে অংশ নিতে গোপালগঞ্জ পৌরসভার নির্বাচনে মেয়র পদে মোট ১১ জন এবং মুকসেদপুর পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে মোট ৬ জন প্রার্থী তাদের মনোনয়নপত্র রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে জমা দিয়েছেন। তবে মুকসুদপুর পৌর নির্বাচন দলীয় (নৌকা) প্রতীকে হলেও গোপালগঞ্জ পৌর নির্বাচনে আ.লীগের মনোনয়ন উন্মুক্ত (স্বতন্ত্র) হচ্ছে।

গোপালগঞ্জে মেয়র পদে (স্বতন্ত্র) মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন যারা তারা হলেন, এস এম নজরুল ইসলাম (নুতন), জি এম সাহাব উদ্দিন আজম, শেখ রকিব হোসেন, কাজী লিয়াকত আলী, দিলীপ কুমার সাহা (দিপু), মো. আবুল ফাত্তাহ (সজু), মৃনাল কান্তি রায় চৌধুরী (পপা), এম বদরুল আলম (বদর) মোহাম্মদ রেজাউল হক সিকদার (রাজু), মোহাম্মদ মুশফিকুর রহমান (লিটন)। এছাড়াও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ মনোনীত প্রার্থী মো. দিদারুল ইসলাম। উল্লেখ্য গোপালগঞ্জ পৌরসভা বর্ধিত হয়ে
৯ টি ওয়ার্ডের স্থলে ১৫ টি ওয়ার্ডে প্রতিস্থাপিত হয়েছে। সংরক্ষিত ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে ২১ জন এবং সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৬৮ জন তাদের মনোনয়নপত্র রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে জমা দিয়েছেন।

এদিকে মুকসুদপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র আলহাজ্ব এ্যাড. আতিকুর রহমান মিয়াকে পুনরায় নৌকা প্রতীকে মেয়র পদে নির্বাচন করার অনুমতি দিয়েছেন বাংলাদেশ আওয়ামীল লীগের মনোনয়ন বোর্ড।এছাড়া সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ১০ জন ও সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩৪ জন তাদের মনোনয়নপত্র রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে দাখিল করেন বলে গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন ফরিদপুরের সিনিয়র জেলা নির্বাচন অফিসার ও রিটার্নিং অফিসার মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান।

এদিকে গোপালগঞ্জ পৌর নির্বাচন উন্মুক্ত করে দেওয়ায় গোপালগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ইলিয়াস হক সকালে দেওয়া একসাক্ষাতকারে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং গোপালগঞ্জ -২ আসন থেকে বারবার নির্বাচিত সংসদ সদস্য আলহাজ্ব ড. শেখ ফজলুল করিম সেলিম মহোদয় সহ মনোনয়ন বোর্ডের সকলকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। সেইসাথে গোপালগঞ্জ ও মুকসুদপুর পৌর নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে সম্পন্ন হবে সেই প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন।