• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০:০৪ পূর্বাহ্ন

অবৈধ অনলাইন জুয়ার মূলহোতা ও এজেন্টসহ ৪’জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ


প্রকাশের সময় : মার্চ ৯, ২০২৩, ৫:৫৪ অপরাহ্ন / ৬৪
অবৈধ অনলাইন জুয়ার মূলহোতা ও এজেন্টসহ ৪’জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ

এম রাসেল সরকারঃ বাংলাদেশ পুলিশ দীর্ঘদিন ধরে অনলাইন জুয়া বন্ধে সার্বক্ষণিক বিভিন্ন কার্যক্রম চালিয়ে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ পুলিশের এন্টিটেররিজম ইউনিটের সাইবার ক্রাইম উইং (ATU) বিভিন্ন মাধ্যমে অনলাইন জুয়া সংক্রান্তে গোপন তথ্য সংগ্রহের মাধ্যমে কুড়িগ্রাম জেলা পুলিশের ভূরুঙ্গামারী থানা পুলিশের সাথে যৌথ অভিযানের মাধ্যমে উত্তরবঙ্গের অনলাইন জুয়ার মূলহোতা অনলাইন জুয়ার অবৈধ সফটওয়্যার ডেভলপার সহ মোট ৩ জনকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।

এন্টি টেররিজমের সাইবার উইং, বাংলাদেশ পুলিশ ঢাকা ও কুড়িগ্রাম জেলা পুলিশের যৌথ টিম অনলাইন মনিটরিং ও গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারেন যে, বেশ কিছুদিন যাবৎ একটি সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্র পরস্পর যোগসাজসে কয়েকটি জুয়ার এ্যাপস যাহার নাম Maxplayer, sports zone ব্যবহার করে অনলাইন ক্যাসিনো / জুয়া খেলার মাধ্যমে সাধারন মানুষকে বিভিন্ন ধরনের প্রলোভন দেখিয়ে প্রতারণার উদ্দেশ্যে অনলাইনে জুয়া খেলায় উদ্বুদ্ধ করে মোবাইল ব্যাংকিং (নগদ / বিকাশ/ রকেট) ব্যবহার করে অবৈধ ই- ট্রানজেকশন এর মাধ্যমে শত শত উঠতি বয়সি তরুণদের কাছে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। সেই অব্যহত ধারাবাহিকতায় অনলাইন মনিটরিং এবং গোপন সংবাদের মাধ্যমে জানতে পারেন উক্ত প্রতারক চক্রের একটি দল মুলাটল, রংপুর সদর, রংপুরে অবস্থান করছে। পরবর্তিতে রংপুর শহরের মুলাটল সেনপাড়া, মুলাটোল প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন অয়ন ছাত্রাবাস হইতে আসামী অনলাইন জুয়ার এজেন্ট আবুল কালাম (২২), কে ধৃত করে এবং আসামী কে তল্লাশী করে তার দখল হইতে অনলাইন জুয়ায় ব্যবহৃত ০৩ টি সচল মোবাইল ফোন সহ মোবাইলে থাকা ০১টি ৩২জিবি মেমোরী কার্ড ও ০৬ টি সিমকার্ড এবং নগদ ৫,০০০ (পাঁচ হাজার) টাকা উদ্ধার করে। আসামী আবুল কালাম (২২), কে জিজ্ঞাসাবাদে জানায় যে, তাকে এই অনলাইন জুয়ার এ্যাপসটি অর্থের বিনিময়ে আসামী অনলাইন জুয়ার অবৈধ সফটওয়্যার ডেভলপার মোঃ সুজন মিয়া (২৪), এ্যাপসটি ডেভেলপ করে দেয় এবং রক্ষণাবেক্ষন করে। আসামী আবুল কালাম (২২) আরোও জানায় আসামী ভবানী রায়, সাং- রামনগর, পোঃ কাচিনীয়া, থানা- খানসামা, জেলা- দিনাজপুর বিভিন্ন সময়ে সিম ও মোবাইল ব্যাংকিং লেনদেনে তাকে সহায়তা করে। পরবর্তিতে ভূরুঙ্গামারী থানা পুলিশের সহায়তায় অনলাইন জুয়ার অবৈধ সফটওয়্যার ডেভলপার মোঃ সুজন মিয়া কে ভূরুঙ্গামারী ভানা এলাকা হতে গ্রেফতার করে। এবং তার দখলে থাকা অনলাইন জুয়া খেলার কাজে ব্যবহৃত ১টি সচল ল্যাপটপ ২ টি সচল মোবাইল ফোন সহ মোবাইলে থাকা ৩টি সিমকার্ড এবং নগদ ১০,০০০ (দশ হাজার) টাকা উদ্ধার করে।

এই সংক্রান্তে ভূরুঙ্গামারী থানায় মামলা রুজু পূর্বক অনলাইন জুয়ার এজেন্ট ভবানী রায় কে দিনাজপুরের খানসামা থানা এলাকা থেকে গ্রেফতার ও তার নিকট হতে ২ টি মোবাইল ফোন উদ্ধার করে ভূরুঙ্গামারী থানার একটি চৌকস টিম।

এ ভাবেই অনলাইন ও অফলাইন জুয়া বন্ধে কুড়িগ্রাম জেলা পুলিশ দিবারাত্রি কঠোর পরিশ্রম করে যাচ্ছে।