• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৫:৩০ অপরাহ্ন

হত্যাকারী এডভোকেট ইলিয়াসের হাতে গলা কেটে ছোট ভাই খুন ঘাতক কথিত এ্যাড.ইলিয়াস পলাতক


প্রকাশের সময় : ফেব্রুয়ারী ৫, ২০২৩, ২:১৪ অপরাহ্ন / ১০২
হত্যাকারী এডভোকেট ইলিয়াসের হাতে গলা কেটে ছোট ভাই খুন ঘাতক কথিত এ্যাড.ইলিয়াস পলাতক

নিজস্ব প্রতিবেদক,চাঁপাইনবাবগঞ্জঃ চাঁপাইনবাবগঞ্জে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে বড় ভাইয়ের হাতে মো.গোলাম মোর্শেদ মিলন (৪০) নামে ছোট ভাই নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার (০২ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৮ টার দিকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর এলাকার শিয়ালা গাবতলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মৃত গোলাম মোর্শেদ মিলন চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর এলাকার শিয়ালা গাবতলা গ্রামের গোলাম মোস্তাফার ছেলে।

স্থানীয় বাসিন্দা,নিহতের পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, নিহত গোলাম মোর্শেদ মিলনের বড় ভাই অ্যাডভোকেট ইলিয়াস বিশ্বাসের সঙ্গে জমির নিয়ে দীর্ঘস্থায়ী বিরোধ চলে আসছিল। এরই জেরে সকালে মিলনের ঘরে ঢুকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে মিলনের গলা কেটে হত্যা করে ইলিয়াস বিশ্বাস। পরে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে।

নিহতের স্বজন আফজাল হোসেন জানান,বাবার জমিজমার ভাগ বাটোয়ারা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে তাদের মধ্যে দ্বন্দ্ব চলে আসছে। গতকাল রাত দিকে তাদের বিভিন্ন বিষয়গুলো তাদের চাচা মীমাংসার চেষ্টা করে। তবে তা সমাধান হয়নি। আজ সকালে গলা কেটে হত্যা করে পালিয়ে যায় বড় ভাই ইলিয়াস।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর মডেল থানার অফিসার-ইন-চার্জ (ওসি) আলমগীর জাহান বলেন খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। মরদেহ উদ্ধার করে ২৫০ শয্যা চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। নিহতের বড় ভাই ও হত্যাকারী অ্যাড.ইলিয়াস বিশ্বাসকে আটক করতে অভিযান শুরু করেছে পুলিশ। এবিষয়ে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। অ্যাডভোকেট ইলিয়াস চাঁপাইনবাবগঞ্জ আদালতে কর্মরত ছিল। এখানকার আরও এমন কিছু কথিত এডভোকেট রয়েছে। তাদের থেকে সাবধান থাকার অনুরোধ রইল। এখানে প্রতিনিয়ত হয়রানির শিকার হন আইনী সেবা নিতে আসা বাদি বিবাদি ও তাদের স্বজনরা৷ নানা অযুহাতে অ্যাডভোকেটরা হাতিয়ে নিচ্ছে লাখ লাখ টাকা। সর্বহারা হচ্ছে সমাজের অসহায় খেটে খাওয়া দরিদ্র জনগোষ্ঠী। যেখানে চাঁপাইনবাবগঞ্জে কয়েকদিন আগে এসব বিষয়ে সর্তক থাকতে ও আইনী সেবাগ্রহীতাদের সহযোগিতা করতে পরামর্শ দিয়েছেন প্রধান বিচারপতি। অথচ চাঁপাইনবাবগঞ্জের কিছু কথিত এডভোকেট প্রধান বিচারপতির নির্দেশনা অমান্য করে নানাভাবে হয়রানি করছেন সাধারণ জনগণকে।

এমনকি মহামান্য আদালতের বিচারক সঠিক ভাবে বিচার কাজ পরিচালনা করতে গিয়ে কোন আইনজীবীর বিরুদ্ধে তার গেলে তাতে উদ্ধতপূর্ন আচরণ করাসহ বিচারকের বিরুদ্ধে অবস্থান নেন ও বিচারকাজকে প্রভাবিত করেন তারা। এছাড়াও সাংবাদিকরা সংবাদ প্রকাশ করতে গিয়ে কোন আইনজীবীর নাম আসলে তাকেও নানাভাবে ভয়ভীতি ও মামলার হুমকি দেয় কিছু কথিত এডভোকেটরা।

সম্প্রতি চাঁপাইনবাবগঞ্জের এ্যাডভোকেট ইলিয়াস তার ছোট ভাইকে গলাকেটে হত্যা করলে তার নামে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হয়। এতে কমেন্টে সরাসরি মামলার হুমকি প্রদান করেন,জেলার কিছু এ্যডভোকেট বিশেষ করে রাসেল আহমেদ সনি,সাংবাদিক এসএম রুবেলকে মামলা করার হুমকি প্রদান করেন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের।

ভুক্তভোগী সচিন কুমার বলেন,আমি হাজিরা দিতে গেলে এ্যাডভকেট ৫০০ টাকা দাবি করেন। এই টাকা না দিলে সারাদিন তিনটা পর্যন্ত বসে থাকতে হবে নইলে আরো ৩০০ টাকা দিলে পরবর্তী ডেট নিয়ে দিবো
৫ টাকা সরকারি ফি সেখানে ৫০০ টাকা নিচ্ছে। এখানে আমরা সাধারণ মানুষরা হয়রানি হচ্ছে। এ থেকে আমরা মুক্তি চাই।

(আরো কিছু অসাধু এডভোকেটদের বিরুদ্ধে চাঞ্চল্যকর তথ্য নিয়ে প্রতিবেদনে বিস্তারিত আসছে)