• ঢাকা
  • রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ১২:৫৭ পূর্বাহ্ন

স্থানীয় সন্ত্রাসী ইমরান হোসেন এর নেতৃত্বে মসজিদের ইমামের ওপর হামলা ও হত্যার হুমকি


প্রকাশের সময় : মে ৬, ২০২২, ১:৪৫ অপরাহ্ন / ২২০
স্থানীয় সন্ত্রাসী ইমরান হোসেন এর নেতৃত্বে মসজিদের ইমামের ওপর হামলা ও হত্যার হুমকি

মোঃ রাসেল সরকারঃ রাজধানীর মুগদা থানাধীন মানিকনগর ওয়াসা রোড মদিনা মনোয়ারা জামে মসজিদ জামিয়া ইসলামিয়া জহিরুদ্দীন আহমেদ মাদ্রাসার ইমাম হাফেজ মাওলানা মুফতি জুবায়ের অহমাদ ও মসজিদ কমিটির সাধারণ সম্পাদক মোঃ মজিবুর রহমান আকন্দ সহ মসজিদের মুসল্লিদের ওপর হামলা এবং হত্যার হুমকি দেন স্থানীয় সন্ত্রাসী ইমরান হোসেন এর নেতৃত্বে সন্ত্রাসী মাসুম ওরফে পাগলা মাসুম,সন্ত্রাসী আব্দুল আজিজ,সন্ত্রাসী মামুন।

এদিকে ভুক্তভোগী মসজিদের ইমাম হাফেজ মাওলানা মুফতি জুবায়ের অহমাদ ও মসজিদ কমিটির সাধারণ সম্পাদক মোঃ মজিবুর রহমান আকন্দ সহ মসজিদের মুসল্লিরা এ ঘটনায় স্থানীয় সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করতে গেলে পুলিশ মামলা না নিয়ে একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) নিয়ে উক্ত ভুক্তভোগীদের কে থানা থেকে বের করে দেন থানার কর্তৃপক্ষ।

গত ২৮ এপ্রিল ২০২২ ইং দিবাগত রাত ১১ টার দিকে মুগদা থানাধীন মানিকনগর ওয়াসা রোড মদিনা মনোয়ারা জামে মসজিদ জামিয়া ইসলামিয়া জহিরুদ্দীন আহমেদ মাদ্রাসার ইমাম হাফেজ মাওলানা মুফতি জুবায়ের অহমাদ ও মসজিদ কমিটির সাধারণ সম্পাদক মোঃ মজিবুর রহমান আকন্দ সহ মসজিদের মুসল্লিদের কে হত্যার হুমকি দিয়েছেন স্থানীয় সন্ত্রাসী এমরান হোসেন,মাছুম ওরফে পাগলা মাছুম, আব্দুল আজিজ ও মামুন। এই ঘটনায় মুগদা থানা ভুক্তভোগীরা মামলা করতে গেলে উল্টো সাধারণ ডায়েরি(জিডি)নেন থানার কতৃপক্ষ।

সাধারণ ডায়েরি (জিডি) সূত্রে জানা যায়,গত বৃহস্পতিবার রাত এগারোটার দিগে এলাকার স্থানীয় সন্ত্রাসী আজিজ ও মামুনের নেতৃত্বে মদিনা মনোয়ারা জামে মসজিদ ও জামিয়া ইসলামিয়া জহিরুদ্দীন আহমেদ মাদ্রাসার ইমাম হাফেজ মাওলানা মুফতি জুবায়ের অহমাদ ও মসজিদ কমিটির সাধারণ সম্পাদক মোঃ মজিবুর রহমান আকন্দের উপর হামলা এবং হত্যা সহ মসজিদ উচ্ছেদ করার জন্য হুমকি দিয়ে যান তারা।

ঘটনা সুত্রে জানা যায় হাফেজ মাওলানা মুফতি জুবায়ের অহমাদ ও মসজিদ কমিটির সাধারণ সম্পাদক মোঃ মজিবুর রহমান আকন্দকে তাঁরা আসন্ন রমজানের আগেই মসজিদ ও মাদ্রাসার দায়িত্ব ছেড়ে চলে যেতে বলেন। অন্যথায় তাঁদেরকে হত্যার হুমকি বা অপমান জনক বিদায়ের কথা বলেন স্থানীয় সন্ত্রাসী এমরান হোসেন, আব্দুল আজিজ ও মাছুম ওরফে পাগলা মাছুম, এবং সন্ত্রাসী মামুন।

ভুক্তভোগীরা জানান, আমরা বর্তমানে অনিরাপত্তাহীন জীবন যাপন করতে হচ্ছে ,আমরা রাষ্ট্র ও স্থানীয় আইন শৃঙ্খলা কতৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি আমাদেরকে এই সন্ত্রাসী বাহিনীর কবল থেকে রেহাই দিন।