• ঢাকা
  • শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০৩:০৯ অপরাহ্ন

সুনামগঞ্জ সাংবাদিকদের সাথে পুলিশ সুপারের মত বিনিময়


প্রকাশের সময় : এপ্রিল ২, ২০২৩, ৪:৫৭ অপরাহ্ন / ৪৬
সুনামগঞ্জ সাংবাদিকদের সাথে পুলিশ সুপারের মত বিনিময়

নিজস্ব প্রতিবেদক, সুনামগঞ্জঃ সুনামগঞ্জ জেলা পুলিশের বিভিন্ন অভিযানে এক সপ্তাহে ওয়ারেন্টভূক্ত আসামী গ্রেফতার ও মাদক উদ্ধারসহ নিয়মিত মামলার আসামী গ্রেফতার এবং চাঞ্চল্যকর মামলার রহস্য উদঘাটন ইত্যাদি বিষয়ে সাংবাদিকদের নিয়ে পুলিশ সুপারের প্রেস ব্রিফিং অনুষ্টিত হয়েছে।

রবিবার দুপুরে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে সুনামগঞ্জ কর্মরত সাংবাদিকদের নিয়ে প্রেস ব্রিফিং করেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ এহ্সান শাহ্। এসময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(প্রশাসন ও অর্থ) আবু সাঈদ,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম অ্যান্ড অপস্) রিপন কুমার মোদক, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) জাহিদুল ইসলাম খান, সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী প্রমূখ।

প্রেস ব্রিফিংয়ে পুলিশ সুপার বলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক ‘স্মার্ট বাংলাদেশ ২০৪১’ রূপকল্প বাস্তবায়নে স্মার্ট সিটিজেন, স্মার্ট ইকোনমি, স্মার্ট গভর্নমেন্ট ও স্মার্ট সোসাইটি গঠনের জন্য টেকসই উন্নয়ন, নিরাপত্তা ও শান্তি নিশ্চিত করতে দিনরাত্রী নিরবিচ্ছিন্নভাবে কঠোর পরিশ্রম করে যাচ্ছে বাংলাদেশ পুলিশ।

তারই ধারাবাহিকতায় গত এক সপ্তাহে (২৫-০৩-২০২৩ খ্রি. হতে ০১-০৪-২০২৩ খ্রি. পর্যন্ত) সুনামগঞ্জ জেলার বিভিন্ন থানা কর্তৃক বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে জিআর ওয়ারেন্টভূক্ত ৭ জন (ছাতক-২, জগন্নাথপুর-২, দোয়ারাবাজার-২, শান্তিগঞ্জ-১); সিআর ওয়ারেন্টভূক্ত ৩ জন (সদর-১, ছাতক-২); জিআর সাজা ওয়ারেন্টভূক্ত-২ জন (জগন্নাথপুর-১, দোয়ারাবাজার-১); সিআর সাজা ওয়ারেন্টভূক্ত-২ জন (জগন্নাথপুর-১, দোয়ারাবাজার-১); মাদক মামলায়-৪ জন (বিশ্বম্ভরপুর-১, দিরাই-৩); চোরাচালান মামলায়-৫ জন (সুনামগঞ্জ সদর-১, ছাতক-২, দোয়ারাবাজার-২); চুরি মামলায়-৯ জন (জগন্নাথপুর-৩, দোয়ারাবাজার-১, জামালগঞ্জ-১, ধর্মপাশা-৪); প্রতাশ্য জুয়া মামলায়-২৮ জন (সদর-৯,তাহিরপুর-৯, দোয়ারাবাজার-১০); ফৌঃ কাঃ বিঃ ৫৪ ধারায়-৯ জন, ১৫১ ধারায়-৫ জন, পুলিশ আইনের ৩৪ ধারায়-৩ জন ও অন্যান্য মামলায় ৪৭ জনসহ সর্বমোট ১২৪ জন আসামীকে গ্রেফতার করা হয়।

এছাড়া গত এক সপ্তাহে চোরাচালান মামলায় ১৩০০ কেজি ভারতীয় চিনি, ২টি সিএনজি চালিত অটোরিক্সা, ৬০ বোতল ভারতীয় মদ, চুরি মামলায় ২টি গরু, ১টি সিলিং ফ্যান, ২টি বাটন মোবাইল; ডাকাতি মামলায় ১২টি গরু, মোটরসাইকেল ১টি, বাটন মোবাইল ২টি, ছুরি ১টি, কিরিচ ১টি, ক্ষুর ১টি; বালুমহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা মামলায় স্টিল বডি নৌকা-১টি, ইঞ্জিন-১টি, ৪২০ ঘনফুট বালু এবং মাদক মামলায় ২৪ (ছব্বিশ) বোতল AC BLACK বিদেশী মদ উদ্ধার কার হয়।

সুনামগঞ্জ জেলাকে মাদক ও অপরাধ মুক্ত করার লক্ষ্যে জেলা পুলিশের এই অভিযান অব্যাহত থাকবে। যেকোনো ধরণের অপরাধ যেমন-চুরি, ছিনতাই, ডাকাতি, অস্ত্র, চাঁদাবাজী, মাদক, সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড, নারী নির্যাতন, সাইবার অপরাধসহ সমাজের শান্তি-শৃঙ্খলা বিনষ্টকারীর সাথে যেই জড়িত থাকুক না কেন, তাকে আইনের আওতায় আনতে বদ্ধ পরিকর সুনামগঞ্জ জেলা পুলিশ। এসময় প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিকস এবং অনলাইনের গণমাধ্যম কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।