• ঢাকা
  • সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:৫৪ অপরাহ্ন

সানাকে উপজেলা চেয়ারম্যান বিজয়ী করতে আট চেয়ারম্যান মেয়র একট্টা


প্রকাশের সময় : এপ্রিল ৪, ২০২৪, ৮:২৩ পূর্বাহ্ন / ২৯
সানাকে উপজেলা চেয়ারম্যান বিজয়ী করতে আট চেয়ারম্যান মেয়র একট্টা

বিশেষ প্রতিবেদকঃ আসন্ন উপজেলা পরিষদ সাধারন নির্বাচনের প্রথম ধাপ ও দ্বীতিয় ধাপের তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। গত সোমবার (১ এপ্রিল) নির্বাচন কমিশন সচিব জাহাংগীর আলম দ্বীতিয় ধাপের এ তফসিল ঘোষণা করেন। এই ধাপে আগামী ২১ মে দেশের ১৬১টি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। দ্বিতীয় ধাপে যেসব উপজেলায় নির্বাচন হবে তারমধ্যে বানারীপাড়া উপজেলা একটি সেখানে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ তারিখ ২১ এপ্রিল। মনোনয়ন বাছাই হবে ২৩ এপ্রিল এবং মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ সময় ৩০ এপ্রিল।

তফসিল ঘোষনার পরপরই বানারীপাড়ায় জমে উঠেছে উপজেলা পরিষদ সাধারন নির্বাচন। প্রার্থীদের প্রচার প্রচারনা লবিং তদবির বেড়েছে শতগুন। এরই মধ্যে বানারীপাড়া উপজেলা নির্বাচনে হেবিওয়েট চারজন সরকার দলীয় প্রার্থীদের নাম শোনা গেলেও তারই এক হেবিওয়েট প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক অ্যাডভোকেট আলহাজ্ব মাওলাদ হোসেন সানার পক্ষে বর্তামান পাচঁ ইউপি চেয়ারম্যান,সাবেক দুই ইউপি চেয়ারম্যান ও সাবেক এক মেয়র সহ সর্বমোট আট চেয়ারম্যান ও মেয়র একট্টা হয়ে মাঠে নেমে প্রচার প্রচারনা চালাচ্ছেন। ইতিমধ্যে তারা শোডাউন করে জানান দিয়েছেন ওই হেবিওয়েট প্রার্থীর মাওলাদ হোসেন সানার পক্ষে তারা।

এদিকে মাওলাদ হোসেন সানার পক্ষে যারা অবস্থান নিয়েছেন তারা হলেন বানারীপাড়া পৌরসভার সাবেক তিনবারের বিজয়ী মেয়র গোলাম সালেহ মঞ্জু মোল্লা যিনি প্রয়াত সম্পাদক একুশে পদক প্রাপ্ত গোলাম সারওয়ারের ছোট ভাই ,বানারীপাড়া উপজেলার চাখার ইউনিয়েনের চেয়ারম্যান সৈয়দ মজিবুল হক টুকু ,সাবেক চেয়ারম্যান খিজির হোসেন সরদার, বাকপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মো.ছিদ্দিকুর রহমান( মাষ্টার), বানারীপাড়া সদর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ,বিশারকান্দী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম শান্ত,সৈয়দকাঠী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেন মৃধা,উদয়কাঠী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো.রাহাদ আহমদ ননীসহ এই আটজন সরাসরি মাওলাদ হোসেন সানার পক্ষ নিয়ে সরাসরি তাদের অবস্থান পরিস্কার করছেন।

এদিকে সানার পক্ষে তারা অবস্থান নেয়ায় ধীরে ধীরে সকলে খোলস ছেরে বের হতে শুরু করছে। অন্যদিকে তারা বানারীপাড়ার বিভিন্ন ইউনিয়নে গণসংযোগ ও মতবিনিময় কালে মাওলাদ হোসেন সানার অতীত রাজনৈতিক জীবন এবং ভবিষ্যতে এলাকার উন্নয়ন ও রাজনীতিতে কর্ম পরিকল্পনা কথা জানান দিচ্ছেন তারা। সব মিলিয়ে বলা যায় মাওলাদ হোসেন সানার পাল্লা ভারী হয়ে উঠেছে।

উল্লেখ্য বানারীপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক আলহাজ্ব অ্যাডভোকেট মাওলাদ হোসেন সানার আওয়ামী রাজনীতিতে রয়েছে বর্নাঢ্য কর্ম জীবন। মাওলাদ হোসেন সানা তিনি এক সময়ে কেন্দ্রীয় আওয়ামী যুবলীগের সদস্য ছিলেন। তিনি তৃতীয় উপজেলা পরিষদ সাধারন নির্বাচনে বিপুল ভোটে ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হয়েছেন।পরবর্তীতে তিনি জেলা পরিষদ নির্বাচনেও বিপুল ভোটে সদস্য পদে নির্বাচিত হয়েছেন। এছাড়াও তিনি সুনামের সহিত আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদকের দ্বায়িত্ব পালন করে আসছেন।