• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ০১:১১ পূর্বাহ্ন

লেগুনার হেলপার সেজে হত্যা মামলার আসামী গ্রেফতার করেন এস আই বিল্লাল আল আজাদ


প্রকাশের সময় : জানুয়ারী ৩০, ২০২২, ১১:০৯ পূর্বাহ্ন / ১১৮
লেগুনার হেলপার সেজে হত্যা মামলার আসামী গ্রেফতার করেন এস আই বিল্লাল আল আজাদ

মোঃ শরিফুল হক শরিফঃ যাত্রবাড়ি থানার এস আই বিল্লাল আল আজাদ কখনো হেলপার, কখনো আবার যাত্রী বেশে, এই চাঞ্চল্যকর হত্যা মামলার আসামীদের গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছেন।

যাত্রবাড়ি থেকে চিটাগাংরোডস্থ একটি ছিনতাইকারী চক্রের ৪ সদস্যসহ হত্যাকারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
জানা যায় গত শনিবার (২২ জানুয়ারী) ভোর রাতে মহির উদ্দিন (৫০) নামে এক লোক সাদ্দাম মার্কেট প্রধান সড়ক থেকে একটি লেগুনা গাড়িতে উঠেন, মাছ কিনতে যাত্রাবাড়ি মৎস্য আড়তের উদ্দেশ্যে বের হন। গাড়িটি যাত্রাবাড়ি মৎস্য আড়তের সামনে থামার কথা থাকলেও না থেমে গুলিস্তানগামী হানিফ ফ্লাইওভারের উপরে উঠে যায়।

পরে যাত্রাবাড়ি চৌরাস্তার উপর ফ্লাইওভারে নিয়ে তার থেকে ছিনতাই করে এবং চলন্ত গাড়ি থেকে মহিরকে ফেলে দেয়। পরে তিনি মারা যান। এ ঘটনায় জড়িত লেগুনার ড্রাইভার, হেলপারসহ চার ছিনতাইকারী।

পরে যাত্রবাড়ি থানায় নিহতের ছেলে খাইরুল ইসলাম (২৫) মামলা করেন। নিহত মহির উদ্দিন কিশোরগঞ্জ জেলার করিমগঞ্জ উপজেলার কিরাটন গ্রামের বাসিন্দা। তিনি সাদ্দাম মার্কেট এলাকায় পরবিার নিয়ে ভাড়া থাকতেন।

এ ঘটনায় যাত্রবাড়ি থানার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই বিল্লাল আল আজাদ সিসি ফুটেজ অনুযায়ী লেগুণাটি সনাক্ত করে তিনি যাত্রাবাড়ি, পোস্তগোলা, কোনাপাড়া, চিটাগাংরোডসহ জালকুড়ি লেগুনা স্ট্যান্ডে ছদ্ববেশে ৪ দিন খোজাখুজি করে সিসি ফুটেজের নির্দিষ্ট চিহ্ন দেখে লেগুনাটিকে একটি গ্যারেজ থেকে আটক করেন।

লেগুনাটি আটকের পর চালক ও হেল্পার সম্পর্কে জানা যায় আটককৃত লেগুনার মূল চালক তার শ্বশুরবাড়ি মাদারীপুর গিয়েছেন। পরবর্তীতে চালক কে মাদারীপুর থেকে আটক করা হয়।

এ ঘটনায় পুলিশ আব্দুর রহমান, মঞ্জু, রিপন, রুবেল নামে চারজনকে আটক করে। গ্রেফতারকৃত চার আাসামী ঘটনা স্বীকার করে বিজ্ঞ আাদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।