• ঢাকা
  • শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৭:৫১ অপরাহ্ন

লাগলে নিয়ে যান, থাকলে দিয়ে যান এভাবেই উদ্ভাবক মিজানের শীতবস্ত্র বিতরণ


প্রকাশের সময় : জানুয়ারী ২১, ২০২৪, ৭:২৩ অপরাহ্ন / ১৬
লাগলে নিয়ে যান, থাকলে দিয়ে যান এভাবেই উদ্ভাবক মিজানের শীতবস্ত্র বিতরণ

আজিজুল ইসলাম, যশোরঃ প্রতি বছরের ন্যায় এবারো শীতার্ত মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন শার্শার দেশ সেরা উদ্ভাবক মিজানুর রহমান। তবে এবার তিনি বিনামূল্যে শীতবস্ত্র বিতরণ করছেন ভ্রাম্যমান পদ্ধতিতে। তার উদ্ভাবনী মোটর গাড়িতে করে সারাদিন তিনি বিভিন্ন ছোট বড় হাট বাজার ও রাস্তার মোড়ে মোড়ে ভ্রাম্যমান পদ্ধতিতে শীতবস্ত্র বিতরণ করছেন তিনি। লাগলে নিয়ে যান, থাকলে দিয়ে যান এই স্লোগানকে সামনে রেখে গরীব অসহায় ছিন্নমূল পথ শিশু ও পথে থাকা মানুষদের জন্য তার এই শীতের কার্যক্রম।

চলছে মাঘের তান্ডব। ঘন কুয়াশার সাথে মৃদু শৈত্য প্রবাহের ফলে তীব্র শীতে যবুথবু মানুষ। এমন পরিস্থিতিতে শীতার্ত মানুষের পাশে এখনো কাউকে দাঁড়াতে দেখা না গেলেও মানবতার ফেরিওয়ালা ও দরদী মিজানকে দেখা গেছে অভিনব ভাবে। মিজানের বিনামূল্যে ভ্রাম্যমান শীতবস্ত্র বিতরণ গাড়িতে মিলছে ছোট বড় সব বয়সী মানুষের হাত মোজা, মাথার টুপি, কান টুপি, জামা, সোয়েটার, প্যান্ট সহ রয়েছে শীতের গরম সব ভিন্ন ভিন্ন পোশাক। স্লোগান অনুযায়ী মিজানের ভ্রাম্যমান গাড়ি থেকে দরিদ্র মানুষেরা নিজের পছন্দ মত শীতবস্ত্র নিচ্ছেন ১ টা থেকে ৩টা পর্যন্ত। কেউ কেউ মিজানের এমন কর্মকান্ড দেখে শীতার্ত মানুষের জন্য গরম কাপড় মিজানের ভ্রাম্যমান গাড়িতে সরবরাহ করছেন।

উদ্ভাবক মিজানুর রহমানের ভ্রাম্যমান শীতবস্ত্র বিতরণ গাড়ি থেকে শীতের গরম কাপড় নিতে আসা আরিফুল ইসলাম, মিজানুর রহমান, সুফিয়া খাতুন সহ অনেকে মিজানের এমন অভিনব বিষয়ের প্রতি অনেক অনেক কৃতজ্ঞতা ও সাদুবাদ জানান। তারা বলেন এখান থেকে ফ্রি শীতবস্ত্র পেয়ে অনেক খুশি তারা।

উদ্ভাবক মিজানুর রহমান বলেন, প্রতি শীত মৌসুমে আমি কম্বল সহ শীতবস্ত্র বিতরণ করি। পথে থাকা মানুষ ও গরীব অসহায় মানুষের জন্য নিজের অর্থায়নে শীতবস্ত্র বিতরণ করে আসছি। এবার শীতার্ত আবহাওয়া আগের থেকে অনেক বেশি হওয়ায় আর বসে থাকতে পারলাম না। তাই এবার শীতার্ত গরীব অসহায় মানুষের জন্য অভিনব কায়দায় ভ্রাম্যমান শীতবস্ত্র বিতরণ কর্মসূচী হাতে নিয়েছি। আমার মতে একার মিজানের পক্ষে এতবড় দায়িত্ব পালন করা সম্ভব না তাই আমার এই ভ্রাম্যমান গাড়ি থেকে যার লাগবে সে নিয়ে যাবে এবং যার আছে সে অসহায় মানুষের জন্য দিয়ে যাবে।

এ সময় মিজানুর রহমান আরো বলেন, ইতোমধ্যে অনেক সাড়া পেয়েছি। মানুষ এখান থেকে যেমন ফ্রিতে শীতবস্ত্র সংগ্রহ করছে তেমনি যাদের আছে তারা আমাকে দিয়ে যাচ্ছে যা আমি প্রতিনিয়ত এভাবে বিতরণ করছি।

এজন্য তিনি এই তীব্র শীতে যবুথবু শীতার্ত গরীব অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য বিত্তশালী মানুষের প্রতি আহবান জানান। গরম না পড়া পর্যন্ত এভাবে নিজের অর্থ দিয়ে হলেও শীতার্ত মানুষের কাছে শীতবস্ত্র পোঁছে দেওয়ায় কথা জানান মিজানুর রহমান।