• ঢাকা
  • বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২:১৯ অপরাহ্ন

লক্ষ্মীপুরে প্রত্যাসী ম্যানেজার সফিকের বিরুদ্ধে নারী কেলেংকারী সহ ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ


প্রকাশের সময় : জানুয়ারী ২৩, ২০২৪, ৯:২৫ পূর্বাহ্ন / ২১
লক্ষ্মীপুরে প্রত্যাসী ম্যানেজার সফিকের বিরুদ্ধে নারী কেলেংকারী সহ ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক, লক্ষ্মীপুরঃ লক্ষ্মীপুর ১৭ নং ভবানীগন্জ ইউনিয়নের ভবানীগন্জ বাজার শাখা প্রত্যাসী ম্যানেজার সফিকের বিরুদ্ধে নারী কেলেংকারী সহ নানান অভিযোগ ফুঁসে উঠেছে।

জানা গেছে, এনজিও প্রত্যাসী একটি বড় ধরনের ঋন প্রকল্প যা থেকে গরীব সাধারণ মানুষ সহ বিভিন্ন ব্যবসায়ী ক্ষুদ্র -মাঝারি ও বড় ধরনের লোন করিয়ে স্বাবলম্বী করে থাকেন। কিন্তু এই শাখায় নিয়োজিত ম্যানেজার সফিকের বিরুদ্ধে অভিযোগের যেন শেষ নেই।অত্র শাখায় যে কয়টি কেন্দ্র রয়েছে প্রত্যেকটি কেন্দ্রেই কোন না কোন অভিযোগ রয়েছে সফিকের বিরুদ্ধে। সুন্দরী কোন নারী দেখলেই সফিক তাকে সহজ শর্তে ঋন দিয়ে সুকৌশলে তার কব্জায় নিয়ে যায় এবং বিভিন্ন ধরনের কুপ্রস্তাব দিয়ে থাকে।বেশ কয়েকবার ধরা খেয়ে জনতার রসানলে পরে উত্তম মধ্যম খেয়ে পা ধরে মাফ চেয়ে নিজেকে বাচিয়ে নেয়।এছাড়াও থানার ওসি জেলার এসপি কোন সময় চট্টগ্রাম রেন্জ ডিআইজি’র নাম বিক্রি করে তার কার্যসিদ্ধি হাসিল করে।অত্যন্ত ধুরন্ধর প্রকৃতির এই সফিকের বাড়ী সম্ভবত চট্টগ্রামের রাউজান থানা এলাকায়।নিয়মিত অপরাধ সংগঠিত করায় নিজ গ্রামের বাড়ীর ঠিকানা দেয়না কোন গ্রাহকের কাছে।প্রত্যাসীর নিয়মিত ঋন গ্রহীতা শেলী বেগম(ছদ্ম নাম)তাকে বেশ কয়েকবার কু-প্রস্তাব দেয় নারী লোভী এই সফিক।তার কু প্রস্তাবে রাজী না হওয়ায় তার ঋন বন্ধ করে দিয়েছে বলে জানিয়েছেন একাধিক ব্যক্তিবর্গ।গ্রাহকরা বলছেন,ম্যানেজার সফিক বদমেজাজী নোংরা প্রকৃতির লোক।তার ভাষা ব্যবহার খুবই খারাপ।এসব লোক এনজিওতে থাকলে সংস্থার বদনামের পাশাপাশি নিরাপত্তাহীনতায় থাকবেন অনেক অসহায় ঋন গ্রহীতা। অনতিবিলম্বে নানান অভিযোগে অভিযুক্ত এই সফিককে বদলী করা সহ তদন্ত পুর্বক কার্যকরী পদক্ষেপ নেওয়ার দাবী জানিয়েছেন বিভিন্ন কেন্দ্রের সাধারণ ঋন গ্রহীতাগন।