• ঢাকা
  • বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১:৪১ পূর্বাহ্ন

লক্ষ্মীপুরে জমি দখলের প্রতিবাদ করায় প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে মামলা দিয়ে হয়রানি


প্রকাশের সময় : মার্চ ২৮, ২০২৩, ১১:৩৫ পূর্বাহ্ন / ৪৩
লক্ষ্মীপুরে জমি দখলের প্রতিবাদ করায় প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে মামলা দিয়ে হয়রানি

নিজস্ব প্রতিবেদক, লক্ষ্মীপুরঃ লক্ষ্মীপুর কমলগরে চার পরিবারের নারীসহ ৯ দিনমজুরের বিরুদ্ধে জোরপূর্বক জমি দখল ও প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করার জন্য মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির করার অভিযোগ উঠেছে মাকছুদুর রহমান গংদের বিরুদ্ধে।

গণমাধ্যম কর্মীদের এ তথ্য নিশ্চিত  করেছেন ভুক্তভোগী মোঃ খোকন, মোঃ মনির আহম্মেদ , লোকমান হোসেন, শাহাব উদ্দিন , ইউসুফ, বিবি কুলসুম, ফাতেমা বেগম, কহিনুর বেগম গংরা। সোমবার  বেলা ১১টায় লক্ষ্মীপুর কমনগর উপজেলার তোরাবগঞ্জ ইউনিয়নের আব্দুর রব মাঝি বাড়িতে তাদের অসহায়ত্বের চিত্র তুলে ধরেন ভুক্তভোগী পরিবার।

মামলার আসামী মোঃ খোকন, লোকমান, বিবি কুলসুম, কহিনুর বেগম বলেন, ডিআরা ৪৬,২৯১ ৬১৭ খতিয়ানে ১ একর ৬২ ডি বাড়ি, রাস্তাসহ ভোগ দখল করে আসছেন মূল মালিক আব্দুর রব মাঝির ওয়ারিশ এবং খরিদ সূত্র মালিক, মেয়েরাসহ ৬ পুত্র। ১৯৮৭ সালে ৪২৮৬ দলিল মূলে ৭২ শতাংশ জমি খরিদ সূত্রে মালিক হয়  আবুল বাশারসহ  ৬ ভাই। গোলাম মাওলা চৌধুরী গংদের থেকে ৭২ শতাংশ জমি খরিদ সূত্রে মালিক আবুল বাশার গংরা। একই দলিল মূলে ১২ শতাংশ জমির মালিক শাহাজাহান মাঝি, মাকছুদুর রহমান, কবির হোসেন, আবুল কাশেম, জয়নাল মাষ্টার। তারা ১২ শতাংশ জমির মালিক হয়ে ৮৫ শতাংশ জমি আরএস খতিয়ানে অবৈধভাবে  রেকর্ড করে মালিকানা দাবি করে জোর জবরদস্তি করে সন্ত্রাসী কায়দায় একেরপর এক জমি দখল করে আসছেন শাহাজান মাঝি গংরা।

জমির মালিক মোঃ খোকন, আছিয়া বেগম, সাহিনুর, বলেন,গত ১৫ মার্চ  আমাদের ভোগ দখলকৃত জমিতে চারাগাছ রোপন করতে গিলে কমলনগর থানা  এসআই সিরাজ আমাদের জমির দলিলপত্র নিয়ে থানা আসার জন্য বলেন, কাগজপত্র নিয়ে থানায় গেলে কমলনগর থানার আওয়ামীলীগের সভাপতি নিজাম উদ্দিনের নির্দেশে গত ১৬ মার্চ আমাদের পরিবারের নারীসহ  ৯ জনের বিরুদ্ধে  মিথ্যা মারামারির মামলা করেন। মামলার বাদী মাকছুদুর রহমান,মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে বাদীর মাথায় লোহার রডদিয়ে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করা হয় মোবাইল চুরির ঘটনায় মিথ্যা মামলায় দিয়ে হয়রানির করেন মাকছুদুর রহমান গংরা। সোমবার ২৭ মার্চ আবদুল সহিদের জামিন মুক্তি পান আদালত থেকে।এর আগে ৮ জনের জামিন নেন আদালত থেকে।আমরা এই মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার দাবি জানায়।

এ ঘটনায় মামলার বাদী মাকছুদুর রহমান জানিয়েছেন, তার মাথায় কোন আঘাতের চিহ্ন নেই, জমি বিরোধকে কেন্দ্র করে মামলা করেছেন,তবে আসামীর জামিন বিরোধীতা করেননি তিনি। জমি বিরোধ নিষ্পত্তি দাবি করেন মাকছুদুর রহমান।

এ বিষয়ে কমলনগর থানায় ওসি সোলায়মান জানিয়েছেন জমি সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে মারামারি ঘটনা মামলা হয়েছে।