• ঢাকা
  • শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ০৪:৪৬ পূর্বাহ্ন

লক্ষ্মীপুরে একই পরিবারের ১১ সদস্যকে অজ্ঞান করে ডাকাতি


প্রকাশের সময় : মে ২৭, ২০২২, ৪:৩২ অপরাহ্ন / ৯৭
লক্ষ্মীপুরে একই পরিবারের ১১ সদস্যকে অজ্ঞান করে ডাকাতি

জয়নাল আবেদীন, লক্ষ্মীপুরঃ লক্ষ্মীপুর জেলা সদরে গভীর রাতে একই পরিবারের ১১ সদস্যকে অজ্ঞান করে করে দুর্ধর্ষ ডাকাতি সংঘটিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৬ মে) রাতে জেলা সদরের মান্দারী ইউনিয়নের মটবী গ্রামের দাস বাড়িতে এ ডাকাতি সংঘটিত হয়। ওই পরিবারের ১১ জন সদস্যকে অজ্ঞান অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশের ধারণা রাতের খাবারে কিছু মিশিয়ে পরিবারের সবাইকে অজ্ঞান করে অপরাধীরা এই কাজ করেছে।

পরিবারের সদস্যরা জানান, সদরের মটবী গ্রামের দাস বাড়িতে কয়েকটি হিন্দু পরিবার বসবাস করে। রাতের খাবার খেয়ে তারা ঘুমিয়ে পড়েন। হঠাৎ পরিবারের একটি শিশুর কান্নার শব্দে প্রতিবেশি ও স্বজনরা খোলা দরজা দিয়ে ঘরের ভিতরে প্রবেশ করে। পরে দুইটি ঘরে পরিবারের ১১ সদস্যকে অচেতন অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেয়। একই সঙ্গে রবি চন্দ্র দাস, সমির, অঙ্কুর, কানু, কমলা, কান্তি, নারায়ণ, লক্ষ্মী, অহনা ও তিমুসহ ১১ জনকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

পরিবারের অন্য সদস্যদের দাবি, ডাকাতরা রাতের খাবারের সঙ্গে কিছু মিশিয়ে সবাইকে অজ্ঞান করে দেয়। এরপর ওই ঘর থেকে নগদ টাকা ও স্বর্ণালঙ্কারসহ প্রায় ৮ লাখ টাকার মালামাল লুট করে চলে যায়।

চন্দ্রগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোসলেহ উদ্দিন বলেন, ধারণা করা হচ্ছে রাতের খাবারের সঙ্গে কিছু মিশিয়ে দেওয়া হয়েছিল। পরে সবাই অজ্ঞান হয়ে গেলে তাদের মালামাল নিয়ে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে বলে জানান ওসি।