• ঢাকা
  • শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ০৩:৫৫ অপরাহ্ন

লক্ষ্মীপুরে ইকনো পরিবহনে সুপারভাইজারের রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার’


প্রকাশের সময় : এপ্রিল ৯, ২০২২, ১০:১৪ পূর্বাহ্ন / ১৫০
লক্ষ্মীপুরে ইকনো পরিবহনে সুপারভাইজারের রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার’

জয়নাল আবেদীন, লক্ষ্মীপুরঃ লক্ষ্মীপুর জেলা প্রশাসকের অফিসের সামনে দাঁড়িয়ে থাকা বাসের ভেতর থেকে রিয়াদ হোসেন লিটন নামের এক সুপারভাইজারের রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শনিবার (৯ এপ্রিল) ভোররাতে লক্ষ্মীপুর জজ কোর্ট ও জেলা প্রশাসক (ডিসি) কার্যালয়ের সামনে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় বাস চালক নাহিদকে আটক করলেও মৃত্যুর কারণ জানাতে পারেনি সে। নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

নিহত সুপারভাইজার লিটন লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার মান্দারী ইউনিয়নের মোহাম্মদ নগর গ্রামের দুদু মিয়ার ছেলে।
পুলিশ ও স্থানীয়দের দেয়া তথ্যমতে জানা যায়, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা ‘ইকোনো সার্ভিস’ নামক পরিবহনের যাত্রীবাহী বাস (ঢাকা মেট্রো-ব ১৫-০১০৩) আনুমানিক গত রাত ১০টার দিকে লক্ষ্মীপুর এসে পৌঁছে। পরে যাত্রীদের বাসস্ট্যান্ডে নামিয়ে দিয়ে গাড়িটি জেলা প্রশাসকের সামনে এসে দাঁড়ায়।
বাসটিতে নতুন একজন হেলপার, পুরাতন হেলপার শিপন, চালক নাহিদ ও সুপারভাইজার লিটন ছিল বলেও পুলিশ জানায়। পরবর্তীতে চালক ও পুরাতন হেলপার তাদের নতুন হেলপার ও সুপারভাইজারকে বাসে রেখে তাহারা বাসায় ফেরে ঘুমিয়ে পড়ে।
আনুমানিক ভোর ৪টার সময় চালক গাড়ির নিকট আসতেই গাড়ির ভিতর সুপারভাইজার লিটনের রক্তাক্ত মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয় লাইনম্যান সেলিমকে খবর দেয় এবং সেলিম সেখানে এসেই ঘটনাটি পুলিশকে অবহিত করে।
এ ঘটনার পর থেকেই গাড়ীতে থাকা নতুন হেলপার লাপাত্তা রয়েছে এবং তাঁর পরিচয়ও পাওয়া যায়নি।

লক্ষ্মীপুর সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জসীম উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মরদেহটি উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে এটি হত্যাকাণ্ড। গাড়ির চালক নাহিদ আমাদের হেফাজতে রয়েছে, তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তদন্ত পূর্বক পরবর্তী আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।