• ঢাকা
  • শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ০৪:২৫ অপরাহ্ন

লক্ষীপুরের কুশাখালী ইউপি চেয়ারম্যান সালাহউদ্দিন মানিককে নিয়ে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত একটি কুচক্রী মহল


প্রকাশের সময় : মার্চ ১০, ২০২২, ১১:৪২ পূর্বাহ্ন / ১৮৭
লক্ষীপুরের কুশাখালী ইউপি চেয়ারম্যান সালাহউদ্দিন মানিককে নিয়ে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত একটি কুচক্রী মহল

এ.কে আজাদ, লক্ষীপুরঃ লক্ষ্মীপুরের ১৮ নং কুশাখালী ইউনিয়নে নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান সালাহউদ্দিন মানিককে নিয়ে গভীর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত একটি কুচক্রী মহল।জানা গেছে,গত ৪র্থ ধাপের ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন বেশ কয়েকজন প্রার্থী। এতোসব প্রার্থীর মধ্যে জনগন তাদের পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছেন। ভোটও হয়েছে অবাধ,সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ। প্রশাসনের নজরদারি বৃদ্ধি ও তাদের তৎপরতায় একটি সুন্দর ভোট অনুষ্ঠিত হয়েছিলো তা সকলেরই জানা।লক্ষ্মীপুরবাসী প্রশাসনকে বাহবাও দিয়োছিলো।আসন্ন ভোটকে কেন্দ্র করে বিপুল জনসমর্থিত এই চেয়ারম্যানের উপর সন্ত্রাসী হামলা হয়েছিলো যা বিভিন্ন জাতীয় দৈনিক পত্রিকায় প্রকাশিত হয়।চেয়ারম্যান সালাহউদ্দিন মানিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকলেও জনগন তাদের পছন্দের প্রার্থীকেই বেছে নিয়েছেন। ভোটের দিন বিপুল ভোটে জয়যুক্ত হন তিনি।চেয়ারম্যানের সফথ গ্রহন করার পরপরই ইউনিয়নবাসীর দীর্ঘদিনের স্বপ্ন বাস্তবায়নের প্রচেষ্টায় নিজেকে উৎস্বর্গ করেন উন্নয়নমুলক নানানমুখী কাজের মাধ্যমে।ইউনিয়ন পরিষদ সুন্দর ও মনোরম পরিবেশে সজ্জিত করার পাসাপাসি রাস্তা-ঘাট, পোল কালভার্ট, সুপেয় পানির জন্য গভীর নলকুপ স্হাপন সহ বিভিন্ন ধরনের কর্মসূচী তিনি হাতে নিয়েছেন। রাতদিন কঠোর পরিশ্রম করে যাচ্ছেন জনগনের সেবা নিশ্চিত করতে।সচেতন ইউনিয়নবাসী বলছেন,মানিক চেয়ারম্যানের উন্নয়ন মুলক কর্মকান্ডকে বাধাগ্রস্থ করতেই একটি কুচক্রী মহল গভীর যড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছেন।এ ব্যাপারে সালাহউদ্দিন মানিক বলেন,আমার বিরুদ্ধে যতই ষড়যন্ত্র করুক না কেন,আমাকে জনতার কাতার থেকে কেউ সড়াতে পারবেনা।আমি তাদের মুল্যবান ভোট পেয়েই নানা প্রতিকুলতার মধ্য দিয়ে চেয়ারম্যান হয়েছি।