• ঢাকা
  • রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ০১:৪৯ পূর্বাহ্ন

রাজশাহীর চারঘাটে তীব্র গরমে বেড়েছে ডায়রিয়ার প্রকোপ


প্রকাশের সময় : মে ৮, ২০২৪, ৭:৩৬ অপরাহ্ন / ৪৫
রাজশাহীর চারঘাটে তীব্র গরমে বেড়েছে ডায়রিয়ার প্রকোপ

নিজস্ব প্রতিবেদক, চারঘাট, রাজশাহীঃ তীব্র তাপদাহ ও প্রচন্ড গরমে রাজশাহীর চারঘাটে বড়দের তুলনায় শিশুদের বেড়েছে ডায়রিয়ার প্রকোপ অনেক বেশি। গরমে অস্থির হয়ে উঠছে খেটে খাওয়া মানুষ ও শিশুরা। আক্রান্ত হচ্ছে ডায়রিয়া, সর্দি-কাশি, জ্বর এবং হিটস্ট্রোকে। এই গরমে বিশেষ করে বৃদ্ধ ও শিশুরা বেশি ভুগছে। বাতাসে জলীয়বাষ্পের পরিমাণ বেশি থাকায় প্রচুর ঘাম হচ্ছে এবং এতে শরীরে দেখা দিচ্ছে পানিশূন্যতা ও ডায়রিয়া। বিশেষ করে শিশুরাই আক্রান্ত হচ্ছে বেশি।

চারঘাট  উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, চিকিৎসাধীন রয়েছেন শতাধিক রোগী। রোগীদের চাপ সামাল দিতে হিমসিম খেতে হচ্ছে চিকিৎসক ও সেবিকাদের। এছাড়াও অনেকেই প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়িতে চলে গেছেন।

হাসপাতালে আসা রোগীর অভিভাবকরা বলেন, আমরা শ্রমজীবী মানুষ কাজেই তীব্র গরমেও বাইরে কাজ করতে হয়। কাজ করতে গিয়ে অসুস্থ হয়ে পড়ি। আমার ডায়রিয়া হয়েছে বলে ডাক্তাররা বলেছেন। এখন হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছি।

রোগীর আরেক অভিভাবক বলেন, গরমে সকলে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছি। আমার ৯ মাসের মেয়ে হঠাৎ করে পাতলা পায়খানা শুরু হয়। মেয়েকে হাসপাতালে নিয়ে এসে জানতে পারি ডায়রিয়া হয়েছে। বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছি।

চিকিৎসকরা বলছেন, হঠাৎ ডায়রিয়া বেড়ে যাওয়ার অন্যতম কারণ আবহাওয়া পরিবর্তন ও অধিক উষ্ণতা। পাশাপাশি দূষিত পানি পানের কারণেও ডায়রিয়া বাড়ছে। গরমের কারণে শরীরে পানিশূন্যতা, খোলা-বাসি খাবার খাওয়া, পানি কম খাওয়া ইত্যাদি কারণে এ সময় ডায়রিয়ার প্রবণতা বেশি দেখা যায়। ডায়রিয়া থেকে রক্ষায় পানি ফুটিয়ে খাওয়া, রাস্তার পাশের খোলা খাবার ও শরবত এড়িয়ে চলাসহ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পরামর্শ দিয়েছেন তারা।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃপঃ কর্মকর্তা ডাঃ আশিকুর রহমান বলেন, ডায়রিয়া বা হিটস্ট্রোকের মতো রোগ দেখা দিলে আতংকিত না হয়ে যত দ্রুত সম্ভব রোগীকে হাসপাতালে নিয়ে আসতে হবে। হাসপাতালে পর্যাপ্ত পরিমাণে স্যালাইন ও প্রয়োজনীয় ঔষধ রয়েছে।

তিনি হিটস্ট্রোকের ব্যাপারে বলেন, প্রচন্দ খরতাপ ও গরমের কারণে হিটস্ট্রোক দেখা দিলে রোগীকে ঠান্ডা বাতাস ও চোখ মুখে ঠান্ডা পানি দিতে হবে এবং হিটস্ট্রোকের হাত থেকে রক্ষা পেতে তাপ প্রতিরোধক পোশাক ব্যবহারের পরামর্শ দিয়েছেন। জরুরী প্রয়োজন ছাড়া বাড়ির বাইরে না যাওয়ার পরামর্শ দেন এবং প্রচুর পরিমাণে ঠান্ডা পানি পান করা জন্য পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।