• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৭:২১ পূর্বাহ্ন

রাজবাড়ীতে স্বতন্ত্র প্রার্থীর প্রচার মাইক ভাংচুর ও মারধর-আটক-১


প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ২৭, ২০২৩, ১১:৫৭ অপরাহ্ন / ১০
রাজবাড়ীতে স্বতন্ত্র প্রার্থীর প্রচার মাইক ভাংচুর ও মারধর-আটক-১

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজবাড়ীঃ রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলার পাট্রা ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থীর প্রচার মাইক ভাংচুর ও কর্মীকে মারধরের ঘটনায় এক ইউপি চেয়ারম্যানের দেহরক্ষী রোমানকে আটক করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃত রোমানের পিতার নাম সাইদুল ইসলাম। তার বাড়ী পাট্রা ইউপির মাজাইল গ্রামে।

জানা গেছে, বুধবার দুপুর ২টার দিকে রাজবাড়ী-২ আসনের পাংশা উপজেলার পাট্রা ইউনিয়নে অটোযোগে স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য পদপ্রার্থী নূরে আলম সিদ্দিকী হকের ঈগল প্রতিকের প্রচারণা চালানোর সময় স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রব মুনা বিশ্বাস ও তার দেহরক্ষী রোমানসহ কয়েকজন প্রচার কাজে বাধা দেয়। এক পর্যায়ে ইউপি চেয়ারম্যান মুনা বিশ্বাস স্বতন্ত্র প্রার্থীর প্রচারণার কাজে নিয়োজিত অটো চালক রাসেলের গলা চেপে ধরে। এসময় চেয়ারম্যানের দেহরক্ষীসহ অন্যরা প্রচারকাজে নিয়োজিত অপর ২ সমর্থক তানজীম ও তাওহীদকে মারধর করে এবং পোষ্টার কেড়ে নেয়।

এ ঘটনার কিছু সময় পূর্বে একই ইউনিয়নের আন্দুলিয়া এলাকায় স্বতন্ত্র প্রার্থী নূরে আলম সিদ্দিকী হকের প্রচার কাজে নিয়োজিত ভ্যান চালক আক্কাছকে মারধর ও পোস্টার কেড়ে নেয় প্রতিপক্ষের লোকজন।

পাংশা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা স্বপন কুমার মজুমদার বলেন, খবর পেয়ে ঘটনার পর পরই পাংশা থানা পুলিশ পাট্রা ইউপির বাহের মোড় এলাকায় অভিযান চালিয়ে পাট্রা ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রব মুনা বিশ্বাসের দেহরক্ষী রোমানকে আটক করেছে। এ ব্যাপারে পরবর্তী আইনি পদক্ষেপ চলমান আছে।