• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩, ০৪:৫৬ অপরাহ্ন

রাজধানী যাত্রাবাড়ী যৌতুক না পেয়ে স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যা


প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ১৭, ২০২২, ২:৩৩ অপরাহ্ন / ৫৬
রাজধানী যাত্রাবাড়ী যৌতুক না পেয়ে স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যা

মোঃ রাসেল সরকার,ঢাকাঃ রাজধানী যাত্রাবাড়ী থানাধীন কাজিরগাও এলাকায় ৪ লক্ষ টাকা যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে নির্যাতন ও শ্বাসরোধ করে হত্যা করে পালিয়েছে স্বামী হুমায়ূন মল্লিক। মঙ্গলবার ১৩ ডিসেম্বর সুমাইয়া ১৭ এর মৃতদেহটি উদ্ধার করেছে যাত্রাবাড়ী থানার এসআই মহসীন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন যাত্রাবাড়ী থানার এসআই মহসিন।

নিহত সুমাইয়া মানিকগঞ্জ জেলার সিংগাইর উপজেলার বার্তা গ্রামের প্রবাসী নুরুল ইসলাম স্বপনের কন্যা। তার মায়ের নাম আফরোজা বেগম। পিতা- নুরুল ইসলাম স্বপন কুয়েত প্রবাসী। নিহতের মা আফরোজা বেগম জানান, গত চার মাস পূর্বে বরিশালের ঝালকাঠি জেলার কাঠালিয়া উপজেলার মধ্যজোর খালি গ্রামের নজরুল মল্লিকের ছেলে হুমায়ুন মল্লিকের সাথে পরিবারের অমতে বিবাহ হয়। তারা আলাদা ভাড়া বাসায় বসবাস করতেন।

বিবাহের পর থেকেই স্বামী হুমায়ুন মল্লিক চার লক্ষ টাকা যৌতুক চেয়ে আসছিলেন সুমাইয়ার পরিবারের কাছে। নানা সময়ে যৌতুকের দাবিতে সুমাইয়াকে মারধর করত স্বামী হুমায়ুন মল্লিক। সুমাইয়ার মামি শাশুড়ি গত কয়েকদিন যাবত সুমাইয়ার পরিবারের লোকজনের কাছে এসে চার লক্ষ টাকা যৌতুকের জন্য বারবার দেন দরবার করতে থাকে। সুমাইয়া কে যৌতুক না পাওয়ায় কয়েকদিন যাবত ঠিকমত খাবার দিত না পাসন্ড স্বামী।

সোমবার সকালে সুমাইয়াকে মারধর করে দাবীকৃত যৌতুকের টাকা আনতে তার মায়ের কাছে পাঠায় ঘাতক স্বামী। গতকাল সকালে মায়ের বাসায় এসে সুমাইয়া যৌতুকের টাকার জন্য কান্নাকাটি করে। তার মা কুয়েতে তার পিতার সাথে ফোনে আলাপ করে কিছু টাকা দিতে রাজি হয়। এতেও মন গলে নি পাসন্ড স্বামী হুমায়ুন মল্লিকের।

যৌতুকের পুরো টাকা না পাওয়ার আশঙ্কা করে ক্ষিপ্ত হয়ে স্বামী হুমায়ুন মল্লিক নির্যাতন করে হত্যা করেছে তার স্ত্রী সুমাইয়াকে। এলাকা বাসী ও স্থানীয় বাড়ির মালিকরাও নির্যাতনের বিষয়টি সংবাদ কর্মীদের নিশ্চিত করেছেন।