• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৩:৩৬ অপরাহ্ন

রাজধানীর যাত্রাবাড়ী মোড়ে সড়কে অবৈধ দোকানপাট : পাশে রয়েছে লেগুনা স্ট্যান্ড


প্রকাশের সময় : মার্চ ৮, ২০২৩, ৭:৩৩ অপরাহ্ন / ৪৭
রাজধানীর যাত্রাবাড়ী মোড়ে সড়কে অবৈধ দোকানপাট : পাশে রয়েছে লেগুনা স্ট্যান্ড

এম রাসেল সরকার, ঢাকাঃ রাজধানীর যাত্রাবাড়ী মোড়ে সড়কের উপর অবৈধভাবে বসানো হয়েছে ফল, তরকারি, কাপড়সহ হরেক রকমের দোকানপাট। রয়েছে অবৈধ লেগুনা ও বাস স্ট্যান্ড। এতে সড়ক সংকুচিত হয়ে পড়েছে। এ কারনে ওই এলাকায় লেগেই থাকে যানজট। এছাড়াও সড়কের জায়গা দখল করে রয়েছে পচা ও দুর্গন্ধ যুক্ত ময়লা-আবর্জনা, কাদা দুর্গন্ধে সড়ক দিয়ে চলা যেন দায়। যাত্রাবাড়ী মোড় পাঁচটি রাস্তার সংযোগস্থল। মোড় থেকে পূর্ব দিকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক, দক্ষিণে ঢাকা-মাওয়া বা পদ্মা সেতু সড়ক, উত্তর-পূর্ব দিকে যাত্রাবাড়ী-ডেমরা সড়ক, পশ্চিম-উত্তর দিকে যাত্রাবাড়ী-গুলিস্তান বা সায়েদাবাদ বাস টার্মিনাল সড়ক, পশ্চিম-দক্ষিণ দিকে শহীদ ফারুক বা যাত্রাবাড়ী-সদরঘাট সড়ক।

এছাড়াও যাত্রাবাড়ী পার্কের পূর্ব পাশ দিয়ে উত্তর যাত্রাবাড়ী ও পার্কের পশ্চিম দিকে যাত্রাবাড়ী-ধলপুর সড়ক রয়েছে। এ পাঁচ সড়কের সংযোগস্থলে যাত্রাবাড়ী মোড়। এ সড়ক দিয়ে দেশের দক্ষিণাঞ্চলের বিশ জেলার লোকজন রাজধানীতে প্রবেশ ও বের হন। এছাড়া নারায়ণগঞ্জ, পোস্তগোলা, শনিরআখড়া, ডেমরা, সারুলিয়া, কোনাপাড়া, কাঁচপুর, চিটাগাং রোডসহ এ এলাকার মানুষ যাতায়াত করেন। এতে দিন-রাত এ এলাকায় যানবাহনের জটলা ও মানুষের ভিড় লেগেই থাকে। এর মধ্যে সড়কের যাত্রাবাড়ী মোড় থেকে কোয়ার্টার কিলোমিটার পর্যন্ত সড়ক ও ফুটপাত দখল করে অবৈধভাবে বসানো হয়েছে দোকানপাট। রয়েছে অবৈধ লেগুনা ও বাস স্ট্যান্ড এবং ময়লা আবর্জনার স্তূপ। ফুটপাত না পেয়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে যানবাহনের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে মূল সড়ক দিয়ে পথ চলতে হয় পথচারীদের। মোড়ে নেই ট্রাফিক সিগন্যাল ও জেব্রা ক্রসিং।

সরেজমিন দেখা যায়, যাত্রাবাড়ী মোড় মসজিদ ই মুনীর থেকে শুরু হয়ে ডেমরা সড়কের বিবির বাগিচা ১নং গেট পর্যন্ত সড়কের অর্ধেকেরও বেশি জায়গা দখল করে রয়েছে বিভিন্ন ফল ও শাক-সবজির দোকান। দুর্গন্ধময় ময়লা-আবর্জনা ও কাদা। মোড়ের মাঝের একটি সড়কের ওপর নোয়াখালী ও চাঁদপুরের হাজীগঞ্জসহ দূরপাল্লার ও শহরের লোকাল বাস থামিয়ে রাখা হয়। ট্রাফিক পুলিশের সামনে ঘণ্টার পর ঘণ্টা এসব বাস থামিয়ে যাত্রী নেয়া হয়। ফলে যাত্রাবাড়ী মোড় থেকে সায়েদাবাদ ও কাঁচপুর পর্যন্ত গোটা যাত্রাবাড়ী মোড়ে তীব্র যানজট সৃষ্টি হয়। যাত্রাবাড়ী মোড় থেকে দক্ষিণ দিকে ট্রাফিক বক্সের পশ্চিম পাশে ঢাকা-মাওয়া বা পদ্মা সেতু সড়কে মাওয়াগামী ইলিশ পরিবহনের বাস রাখা হয়।

একটু সামনে রয়েছে পোস্তগোলা, শ্যামপুরগামী লেগুনা স্ট্যান্ড। মোড় থেকে দক্ষিণ দিকে দোলাইরপাড় সড়কে রহমান ম্যানশন ও হাজী সামাদ সুপার মার্কেটের সামনে পূর্ব পাশে সড়কের ওপর যাত্রাবাড়ী মিরপুরগামী ট্রান্সসিলভা বাস স্ট্যান্ড।যাত্রাবাড়ী পার্কের দক্ষিণ পাশে ডেমরা সড়কের ওপর কয়েক সারিতে বসানো হয়েছে অন্তত ২ শতাধিক ফলসহ হরেক প্রকারের দোকানপাট। ময়লার দুর্গন্ধে ওই সড়ক দিয়ে নাক-মুখ চেপে পথ চলতে হয় পথচারীদের। সড়ক দখল করে রয়েছে ডেমরা ও কোনাপাড়াগামী লেগুনা স্ট্যান্ড।যাত্রাবাড়ী এলাকার একাধিক বাসিন্দা ও পথচারী বলেন, মানুষ এখন স্বস্তিতে হাঁটতে পারছেনা।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের অঞ্চল-৫ এর আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা বলেন, মোড়ে প্রায় সময়ই দোকানপাট উচ্ছেদ কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়। উচ্ছেদের কয়েক ঘণ্টা পর আগের অবস্থায় ফিরে আসে। উচ্ছেদের পর যাতে আর কোনো দোকানপাট বসতে না পারে এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়া হবে।