• ঢাকা
  • শনিবার, ২২ Jun ২০২৪, ০৪:১৫ অপরাহ্ন

রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান : ১০টি প্রতিষ্টানকে সাড়ে ৩১ লাখ টাকা জরিমানা


প্রকাশের সময় : অগাস্ট ২৫, ২০২৩, ১১:৫৪ পূর্বাহ্ন / ৭১
রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান : ১০টি প্রতিষ্টানকে সাড়ে ৩১ লাখ টাকা জরিমানা

এম রাসেল সরকারঃ রাজধানীতে অনুমোদনহীন ও বিভিন্ন নকল পর্ণ্য সামগ্রী বাজারজাত ও বিক্রি করার দায়ে ১০ টি প্রতিষ্ঠানকে সাড়ে ৩১ লাখ টাকা জরিমানা করেছে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

বৃহস্পতিবার র‌্যাব- ১০ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) সিনিয়র এএসপি এম. ফখরুল হাসান জানান, বুধবার সকাল ১০ টার দিকে রাজধানীর যাত্রাবাড়ী, কদমতলী ও ডেমরায় পৃথক তিনটি এলাকায় ভেজাল বিরোধী মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়।

র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানটি গতকাল ১০ টায় শুরু হয়ে আজ বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ৩ টায় শেষ হয়। অভিযানে নেতৃত্ব দেন র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ মাজহারুল ইসলাম।

তিনি আরো জানান, অভিযানকালে র‌্যাব-১০ এর সমন্বয়ে গঠিত একটি দল ভ্রাম্যমাণ আদালত কার্যক্রম সম্পন্ন করে। এসময় বিএসটিআই’র প্রতিনিধির উপস্থিতিত ছিলেন। অনুমোদনহীন নকল বৈদ্যুতিক সরঞ্জামাদি, প্লাস্টিকের পাইপ ও ভেজাল ভোজ্যতেল উৎপাদন, মজুদ ও বিক্রি করার অপরাধে ১০টি প্রতিষ্ঠানকে সর্বমোট ৩১ লাখ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা প্রদান করেন।

এম. ফখরুল হাসান জানান, জরিমানা করা প্রতিষ্ঠান গুলো হলো-কোয়ালিটি মেটালকে নগদ-১ লাখ টাকা, আন্নেশা কর্পোরেশনকে নগদ- ১০ লাখ টাকা, ন্যাং-ফ্যাং ক্যাবলসকে নগদ- ২ লাখ টাকা, ফাহিম প্লাস্টিককে নগদ- ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা, সাবিয়া এন্ড সামিয়া পাইপকে নগদ- ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা, শাফায়াত কনজিউমার প্রোডাক্টসকে নগদ- ২ লাখ টাকা, রেনটা ফুড এন্ড কনজিউমারকে নগদ- ২ লাখ টাকা, তৃশা ইলেকট্রো প্রোডাক্টসকে নগদ- ৫ লাখ টাকা, হুদা ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডকে নগদ- ২ লাখ টাকা ও রিয়াল পলিমার এন্ড পাইপকে নগদ- ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা।

র‌্যাব-২ এর সিনিয়র এএসপি জানান, এছাড়া বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এর নির্দেশে ওই ভ্রাম্যমাণ আদালত আনুমানিক ৫০ হাজার টাকা মূল্যের নকল বৈদ্যুতিক সরঞ্জামাদি ও ভেজাল ভোজ্যতেল জব্দ ও ধ্বংশ করা হয়।

প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায়, বেশ কিছুদিন যাবৎ এই অসাধু ব্যবসায়ীরা অনুমোদনহীন নকল বৈদ্যুতিক সরঞ্জামাদি, প্লাস্টিকের পাইপ ও ভেজাল ভোজ্যতেল উৎপাদন, মজুদ ও বাজারজাত করে আসছিল।