• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২৫ Jun ২০২৪, ১১:৪৪ পূর্বাহ্ন

রাজধানীর যাত্রাবাড়ি আদর্শবাগ প্রতিবেশীর চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে ৫ লক্ষ টাকা দাবি


প্রকাশের সময় : মার্চ ২৩, ২০২৩, ১:৫৩ অপরাহ্ন / ৬৮
রাজধানীর যাত্রাবাড়ি আদর্শবাগ প্রতিবেশীর চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে ৫ লক্ষ টাকা দাবি

এম রাসেল সরকার, ঢাকাঃ রাজধানীর যাত্রাবাড়ী থানা এলাকার আদর্শবাগে প্রতিবেশীর চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। আলী মোহাম্মদ খান রোড আদর্শবাগ এলাকার মাসুদ আলম রানার বিরুদ্ধে এ অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী বাড়ির মালিক আবুল কাশেম যাত্রাবাড়ী থানায় অভিযোগ দিয়েছেন । ঐ রাস্তায় প্রতিবন্ধকতা তৈরি করে ভুক্তভোগীর কাছে পাঁচ লক্ষ টাকা দাবি করছে মাসুদ আলম রানা।

সরেজমিনে দেখা গেছে, যাত্রাবাড়ী থানার আলী মোহাম্মদ খান রোড আদর্শবাগ এলাকায় ৬৬/১১ নং হোল্ডিংয়ের মালিক মাসুদ আলমের বাড়ির পিছনে এম.এ মতিন ১৯৯৬ সালে এওয়াজ বদল দলিল মূলে মালিক হন। ২০২১ সালে চলাচলের এই রাস্তাটি সচল রাখতে মাসুদ রানাকে রাস্তা মেরামত বাবদ ৪০ হাজার টাকা এবং দুই ফিট জমির মূল্য বাবদ এক লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকা প্রদান করা হয়।

সেই সময়ে ননজুডিশিয়াল স্ট্যাম্পে একটি লিখিত চুক্তি স্বাক্ষর করা হয়। চুক্তি অনুযায়ী এম এ মতিন সাহেবের প্লটের পশ্চিম দক্ষিণ কোন থেকে আবু হানিফ ও মোহাম্মদ মাসুদ আলম রানার প্লটের পশ্চিম পাশের চার ফুট রাস্তা যেটি মোকাম্মেল এর বাড়ির পাশ দিয়ে ১০ ফুট রাস্তার সাথে সংযোগ হয়েছে সে রাস্তাটি পক্ষ গনের একান্ত ব্যক্তিগত রাস্তা হিসেবে পরিগণিত হবে এবং চুক্তিতে উল্লেখ করা হয় রাস্তাটি চলাচলে কোন প্রকার বাধা ও প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করা যাবে না। চুক্তিতে এমএ মতিন প্রথম পক্ষ এবং মাসুদ আলম রানা,আবু হানিফ বেপারী ও জাহাঙ্গীর কবির দ্বিতীয় পক্ষ হিসেবে নন-জুডশিয়াল স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর করেন এবং জমির মূল্য বাবদ এক লক্ষ নব্বই হাজার টাকা গ্রহণ করেন। এবং ওই রাস্তায় প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টিকারী দেওয়ালটি ভেঙে দেন। স্বাক্ষরিত চুক্তিতে সাক্ষী হিসেবে ছিলেন আদর্শবাগ মহল্লা উন্নয়ন কমিটির সভাপতি এম এ বাসেত মোল্লা, সাধারণ সম্পাদক এলাহী বক্স, হামিদ উদ্দিন, সেলিম খান, সোহেল আহমেদ, এম.এ মোতালেব।

গত সাত মাস পূর্বে আবুল কাশেম ওই বাড়িটি এম.এ মতিন এর কাছ থেকে ক্রয় করে বসবাস করছেন। গত দুই-তিন দিন পূর্ব থেকে পুনরায় ওই রাস্তায় প্রতিবন্ধকতা তৈরি করে মাসুদ আলম রানা অবৈধভাবে আবুল কাশেমের কাছে পাঁচ লক্ষ টাকা দাবি করছে। রাস্তা বন্ধের ভয়দেখিয়ে পাঁচ লক্ষ টাকা দাবি করায় বিষয়টি নিয়ে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে এলাকায়।

ভুক্তভোগী বাড়ির মালিক আবুল কাশেম দৈনিক সকালের সময়কে জানান, মাসুদ আলম রানা আমার চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে প্রতিবন্ধকতা তৈরি করে আমার কাছ থেকে ৫ লক্ষ টাকা দাবি করছে, আমি প্রতিবাদ করলে আমাকে ইট ছুড়ে মারে, আমি হাত দিয়ে তা ফিরিয়ে দিই হাতে গুরুতর আঘাতপ্রাপ্ত হই।

স্থানীয়রা জানান, মাসুদ আলম রানা রাস্তার জায়গা বন্ধ করে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে অন্যায় ভাবে ভুক্তভোগী পরিবারের কাছ থেকে ৫ লক্ষ টাকা দাবি করছে। এটা অনেকটা চাঁদা দাবি করার মত। বিষয়টি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদয় হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন ভুক্তভোগী আবুল কাশেম।