• ঢাকা
  • সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:৪৫ পূর্বাহ্ন

রাজধানীতে অভিনব কায়দায় ল্যাপটপ চুরি চক্রের মূলহোতাসহ দু’জনকে গ্রেফতার করেছে পিবিআই


প্রকাশের সময় : জুলাই ৭, ২০২১, ১০:১৮ অপরাহ্ন / ১৭৩
রাজধানীতে অভিনব কায়দায় ল্যাপটপ চুরি চক্রের মূলহোতাসহ দু’জনকে গ্রেফতার করেছে পিবিআই

মনিরুজ্জামান অপূর্ব,ঢাকা : চক্রটি দীর্ঘ দুই বছর ধরে অভিনব কায়দায় রাজধানীর বিভিন্ন এলাকার বাসা বাড়ি থেকে ল্যাপটপ, মোবাইল নাম্বার চুরি করে আছে। চুরির পর আবার মালিকের কাছে ফোন করে বিকাশের মাধ্যমে টাকা দাবি করতো, যে টাকা দিলে তার মালামাল ফেরত দেওয়া হবে। এভাবে বহু মানুষের কাছ থেকে মালামাল ও বিকাশের মাধ্যমে অর্থ হাতিয়ে নিতো।

সাম্প্রতিক একজন ভুক্তভোগী মোঃ তানিম হোসেন (২৯) পিতা-মোঃ আব্দুল কাদের, বাসা নং-১০৫/সি, ফ্ল্যাট নং-৬ বি, আগার ঢাকা শেরেবাংলা নগর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন যে, গত ১০/১০/২০১৯ সকাল ০৮.৩০ ঘটিকা হতে বিকাল সাড়ে পাঁচটা সময়ে তার বাসার দরজার তালা ভেঙ্গে অজ্ঞাতনামা চোর বা চোরেরা তার উল্লিখিত বাসা হতে একটি ল্যাপটপ ব্যাগসহ চুরি করে নিয়ে যায়। পরবর্তীতে বাদীর নিকট অভিনব চোর চক্রের সদস্যরা বিভিন্ন সময়ে বাদীর নিকট মোবাইলে ফোন করে চোরাই ল্যাপটপ ফেরত দেওয়ার শর্তে বিকাশের মাধ্যমে টাকা দাবী করে। উক্ত অভিযোগের প্রেক্ষিতে শেরেবাংলা থানার মামলা নং-৩০(১০)২০১৯, ধারা-৩৮০ রুজু হয়। বিজ্ঞ আদালতের নির্দেশে মামলাটির তদন্তভার পিবিআই গ্রহণ করে। পিবিআই এর চিফ ডিআইজি বনজ কুমার মজুমদার, মামলাটি সঠিক ভাবে তত্ত্বাবধান ও দিক-নির্দেশনায় দেয়, পিবিআই ঢাকা মেট্রো (উত্তর) এর বিশেষ পুলিশ সুপার মোঃ জাহাঙ্গীর আলমকে। বিশেষ পুলিশ সুপার নিবিড় তদারকীতে বুধবার পিবিআই ঢাকা মেট্রো (উত্তর) এর তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই/মোঃ মোস্তাকিম বিল্লাহ ও এসআই ফরিদ উদ্দিন এর সমন্বয়ে গঠিত একটি বিশেষ টিম ঘটনার সাথে প্রত্যক্ষভাবে জড়িত আসামী আব্দুল্লাহ আল মামুন @ নোমান (৪২) ঢাকা মহানগরীর কেরানীগঞ্জ এলাকা থেকে এবং আসামী মোঃ মাসুদ আলী @ হেলাল (৩৭) দারুসসালাম থানা এলাকা থেকে গ্রেফতার করে। সেসময় তাদের কাছ থেকে দুটি চোরাই ল্যাপটপ উদ্ধার করা হয়।
গ্রেফতারকৃত আসামীদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ ও তদন্তে জানা যায়, গ্রেফতারকৃত আসামী আব্দুল্লাহ আল মামুন @ নোমান একটি সংঘবদ্ধ চোরচক্রের মুল হোতা। সে কম বয়সী ছেলেদেরকে টার্গেট করে বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে দলে নিয়ে আসে এবং তাদেরকে দিয়ে বিভিন্ন বাসা বাড়ি হতে অভিনব কৌশলে ল্যাপটপ ও মোবাইলসহ বিভিন্ন মুল্যবান মালামাল চুরি করায়। পরবর্তীতে চোরাই মালামালের মালিকের ফোন নম্বর সংগ্রহ করে মালামাল ফেরত দেয়ার কথা বলে বিকাশের মাধ্যমে টাকা হাতিয়ে নেয়। পরবর্তীতে চোরাই মালামাল ঢাকা মহানগরীর মোতালেব প্লাজা ও স্টেডিয়াম মার্কেটে বিক্রি করে থাকে। পিবিআই জানায় অভিযান অব্যাহত আছে, এই চক্রের সাথে আরো জড়িতদের সনাক্ত করে দ্রূত সময়ের মধ্যে গ্রেফতার করা হবে।