• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৫:১৯ পূর্বাহ্ন

রাজধানীতে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার পরিচয় দিয়ে সার্জেন্টের কাছে ধরা


প্রকাশের সময় : এপ্রিল ২, ২০২৩, ১০:৫৫ পূর্বাহ্ন / ৪২
রাজধানীতে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার পরিচয় দিয়ে সার্জেন্টের কাছে ধরা

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাঃ নিজেকে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার পরিচয় দিয়ে সার্জেন্টের কাছে ধরা খেলেন এক প্রতারক। তার নাম মোহাম্মদ সানাউল্লাহ সরকার। ইতোমধ্যে তাকে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়েছে। পুলিশ জানায়, বুধবার দুপুরে রাজধানীর ওয়ারী থানাধীন ইত্তেফাক মোড়ে ফোর্সসহ দায়িত্ব পালন করছিলেন ট্রাফিক সার্জেন্ট মোহাম্মদ আসাদুল্লাহ আল গালিব। এ সময় মতিঝিলের দিক থেকে আসা একটি মোটরসাইকেলে হেলমেটবিহীন আরোহীকে দেখে তিনি সেটিকে থামার সংকেত দেন। স্যুট পরা ওই আরোহীকে তিনি হেলমেট না পরার কারণ জানতে চান। এ সময় আরোহী নিজেকে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বলে পরিচয় দেন। তিনি সরকারি জরুরি কাজে যাচ্ছেন দাবি করে তার মোটরসাইকেল ছেড়ে দিতে নির্দেশ দেন। তিনি যে মোটরসাইকেলে যাচ্ছিলেন সেটি ভাড়ায়চালিত অ্যাপসভিত্তিক পাঠাও মোটরসাইকেল।

এ সময় সার্জেন্ট গালিব ওই আরোহীকে স্যার সম্বোধন করে কৌতূহল নিয়ে জানতে চান, স্যার আপনি কততম ব্যাচের বিসিএস ক্যাডার। উত্তরে তিনি জানান ২২তম ব্যাচের। সার্জেন্ট তার বিপি নম্বর জানতে চাইলে ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন ওই আরোহী। বলেন, আমি তোমার সুপিরিয়র, আমার নির্দেশ পালন করো। কথা না বাড়িয়ে মোটরসাইকেল ছেড়ে দাও। ধমক থেকে সন্দেহ হলে সার্জেন্ট তাকে একাধিক প্রশ্ন করেন। এ সময় তার অসংলগ্ন কথাবার্তায় সন্দেহ আরও বাড়ে সার্জেন্ট গালিবের। পরে ওয়ারী থানা পুলিশে খবর দেওয়া হয়। পুলিশের জেরার মুখে তিনি নিজের নাম মোহাম্মদ সানাউল্লাহ সরকার বলে জানান। একই সঙ্গে তিনি অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কিংবা কোনো সরকারি কর্মকর্তা নন বলে জানান। এ ঘটনায় সার্জেন্ট গালিব বাদি হয়ে ওয়ারী থানায় একটি মামলা করেন।

ওয়ারি থানার ওসি মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ভুয়া অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এর আগেও বিভিন্নজনের সঙ্গে প্রতারণা করেছেন। প্রতারণার অভিযোগে ঢাকার খিলগাঁও থানায় এর আগে একটি মামলা হয়েছিল। তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলে পাঠানো হয়েছে।