• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৪:২০ অপরাহ্ন

রংপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে পুনরায় নির্বাচিত হলে জাতীয় পার্টির প্রার্থী মোস্তাফিজুররহমান মোস্তফা


প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ২৮, ২০২২, ১১:৫৭ অপরাহ্ন / ১৯
রংপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে পুনরায় নির্বাচিত হলে জাতীয় পার্টির প্রার্থী মোস্তাফিজুররহমান মোস্তফা

নিজস্ব প্রতিবেদক,রংপুরঃ রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে পুনঃনির্বাচিত হয়েছেন জাতীয় পার্টির (জাপা) প্রার্থী মোস্তাফিজার রহমান।

গতকাল রাত সোয়া ১২টার দিকে ২২৯টির কেন্দ্রের সব কটির ফলাফল ঘোষিত হয়েছে। এতে দেখা যায়, বড় ব্যবধানে বিজয়ী হয়েছেন তিনি। লাঙ্গল প্রতীকের এই প্রার্থী পেয়েছেন ১ লাখ ৪৬ হাজার ৭৯৮ ভোট। দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী (হাতপাখা প্রতীক) আমিরুজ্জামান। তিনি পেয়েছেন ৪৯ হাজার ৮৯২ ভোট। স্বতন্ত্র প্রার্থী (আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী) লতিফুর রহমান ৩৩ হাজার ৮৮৩ ভোট পেয়েছেন। আওয়ামী লীগের প্রার্থী হোসনে আরা লুৎফা (ডালিয়া) ২২ হাজার ৩০৬ ভোট পেয়ে চতুর্থ হয়েছেন।

গত মঙ্গলবার (২৭ ডিসেম্বর-২০২২) সকাল সাড়ে ৮টা থেকে বিকেল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত ইভিএমের মাধ্যমে ভোটগ্রহণ শেষে নবনির্মিত রংপুর জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে রাত ১২টায় রিটার্নিং কর্মকর্তা আবদুল বাতেন নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করেন।
এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন কমিশনের সচিব জাহাঙ্গীর আলম, আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা জি এম সাহতাব উদ্দিন প্রমুখ।

মঙ্গলবার (২৭ ডিসেম্বর) রাত পৌনে ১২টায় জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে ফলাফল ঘোষণা করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা আবদুল বাতেন।
এরপর রসিকের ৩৩টি সাধারণ ওয়ার্ড ও ১১টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদের ফলাফল ঘোষণা করা হয়।

ফলাফলে দেখা যায়, ১ নম্বর ওয়ার্ডে রফিকুল ইসলাম, ২ নম্বর ওয়ার্ডে গোলাম সরওয়ার মির্জা, ৩ নম্বর ওয়ার্ডে আশেক আলী, ৪ নম্বর ওয়ার্ডে হারাধন চন্দ্র রায়, ৫ নম্বর ওয়ার্ডে মোখলেছুর রহমান তরু, ৬ নম্বর ওয়ার্ডে আবু হাসান চঞ্চল, ৭ নম্বর ওয়ার্ডে আনোয়ারুল ইসলাম, ৮ নম্বর ওয়ার্ডে আফছার আলী, ৯ নম্বর ওয়ার্ডে নজরুল ইসলাম দেওয়ানী, ১০ নম্বর ওয়ার্ডে শাহ মো. কামরুজ্জামান, ১১ নম্বর ওয়ার্ডে ওয়াজেদুল আরেফীন, ১২ নম্বর ওয়ার্ডে মকবুল হোসেন, ১৩ নম্বর ওয়ার্ডে ফজলে এলাহী, ১৪ নম্বর ওয়ার্ডে মমদেল হোসেন সরকার, ১৫ নম্বর ওয়ার্ডে জাকারিয়া আলম, ১৬ নম্বর ওয়ার্ডে আমিনুর রহমান, ১৭ নম্বর ওয়ার্ডে আব্দুল গাফফার, ১৮ নম্বর ওয়ার্ডে মাসুদ রানা, ১৯ নম্বর ওয়ার্ডে মাহমুদুর রহমান টিটু, ২০ নম্বর ওয়ার্ডে তৌহিদুল ইসলাম, ২১ নম্বর ওয়ার্ডে মাহবুবুর রহমান মঞ্জু, ২২ নম্বর ওয়ার্ডে মিজানুর রহমান মিজু, ২৩ নম্বর ওয়ার্ডে লিটন পারভেজ, ২৪ নম্বর ওয়ার্ডে রফিকুল আলম, ২৫ নম্বর ওয়ার্ডে নুরুন্নবী ফুলু, ২৬ নম্বর ওয়ার্ডে পুনরায় ভোটগ্রহণ, ২৭ নম্বর ওয়ার্ডে রেজওয়ান আল মেহেদী, ২৮ নম্বর ওয়ার্ডে শাহাদাত হোসেন, ২৯ নম্বর ওয়ার্ডে হারুন অর রশীদ, ৩০ নম্বর ওয়ার্ডে জাহাঙ্গীর আলম তোতা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী, ৩১ নম্বর সামসুল হক, ৩২ নম্বর শাহাদৎ হোসেন এবং ৩৩ নম্বর ওয়ার্ডে সিরাজুল ইসলাম বিজয়ী হয়েছেন।