• ঢাকা
  • শনিবার, ১৩ Jul ২০২৪, ১১:০০ অপরাহ্ন

যশোরের বেনাপোলে সুদের টাকায় জোর পূর্বক জমি দখল করে বাড়ী নির্মান


প্রকাশের সময় : জুলাই ৩০, ২০২১, ৩:০৫ অপরাহ্ন / ১৯৭
যশোরের বেনাপোলে সুদের টাকায় জোর পূর্বক জমি দখল করে বাড়ী নির্মান

বেনাপোল প্রতিনিধি: সুদের টাকা আদায় করতে গিয়ে জোরপুর্বক জমি দখল করে বাড়ী নির্মান করছে যশোরের বেনাপোলে। এ ব্যাপারে বেনাপোল পোর্ট থানায় একটি অভিযোগ দায়ের হয়েছে।

বেনাপোল ভবের বেড় দিঘীর পাঁড় এলাকার মৃত হাসমত ব্যাপারীর ছেলে আকবর হোসেন ৮ বছর আগে শেখ মান্দার বক্সের ছেলে দাদন ব্যবসায়ী বিল্লালের কাছ থেকে ছয় লাখ টাকা সুদে গ্রহন করে। বিল্লাল প্রতি মাসে সুদের টাকা নিয়ে নিতো। শেষে আকবর ছয় লাখ টাকা শোধ করে দিতে চাইলে বিল্লাল সুদে আসলে অনেক টাকা দাবি করে। বিল্লাল ও তার ভাই হাসেম,বাবু ও জিয়া টাকার হিসাব করবে বলে আকবরকে তাদের বাড়ি ডেকে নেয়। এরপর থেকে আকবর আজও বাড়ি ফেরেনি।

আকবরের বৃদ্ধা মা বলেন, আকবরকে বিল্লাল ও তার ভাইয়েরা আটকে রেখে আমাকে ফোনে ডেকে নিয়ে একটি সাদা কাগজে সই করে নেয়। বলে তোমার ছেলেকে ছেড়ে দেবো। এরনপর বৃদ্ধা বাড়ী এলেও ছেলে বাড়ী ফেরেনি ছ’বছরেও।

আকবরের মা আরো জানান, তার নামের ৬ কাটা জমি যার মুল্য ত্রিশ লাখ টাকা। ৬ লাখ সুদের টাকা শোধ হয়নি দাবি করে জোর পূর্বক সেই জমিতে পাকা ঘর নির্মান করছে। তিনি বলেন বেনাপোল পোর্ট থানায় অভিযোগ করেও পুলিশ তাকে কোনো সাহায্য করেনি।

আকবরের স্ত্রী মর্জিনা জানান,আমার স্বামীকে বিল্লাল ও তার ভাইয়েরা ডেকে নিয়ে গিয়েছিলো সেই থেকে আমার স্বামী আর ফিরে আসেনি।আমার ছেলে মেয়ে ও বৃদ্ধা শাশুড়ীকে নিয়ে অনেক কষ্ট করে গত ছয় বছর জীবনযাপন করছি।এখন আমার শশুরের বসতভিটা টা ও বিল্লাল ও তার ভাইয়েরা জোর পূর্বক দখল করে নিয়ে ঘর নির্মান করেছে। আমি আমার ছোট ছেলে মেয়ে ও বৃদ্ধা শাশুড়ীকে নিয়ে কোথায় থাকবো?

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত বিল্লাল অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন আমি আকবারের কাছ থেকে ১৫ লক্ষ টাকা দিয়ে ওই জমি ক্রয় করে কবলা দলিল করে নিয়েছি। পুলিশ তদন্ত শেষে আমার পক্ষে রায় দিয়ে ঘর করার অনুমতি দিয়েছে।

বেনাপোল ইউপি চেয়ারম্যান বজলুর রহমান জানান,বিষয়টি আমি শুনেছি। আমি বাজার কমিটির সকলের সাথে কথা বলেছি।যাতে বৃদ্ধা মা ও আকবরের অসহায় স্ত্রী সঠিক বিচার পায় এবং আকবরকে ফেরত পাওয়া যায় তার জন্য আমরা বসে মিমাংসার চেষ্টা করবো।