• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২৫ Jun ২০২৪, ০৩:৫৬ অপরাহ্ন

মুন্সিগঞ্জের মিরকাদিম পৌর মেয়রের অপসারণের দাবীতে মানববন্ধন


প্রকাশের সময় : জুলাই ৩০, ২০২৩, ৪:৪১ অপরাহ্ন / ৮৫
মুন্সিগঞ্জের মিরকাদিম পৌর মেয়রের অপসারণের দাবীতে মানববন্ধন

মতিউর রহমান রিয়াদঃ মুন্সীগঞ্জের মিরকাদিম পৌরসভার মেয়র হাজ্বী আব্দুস ছালামের অপসারণের দাবীতে মানববন্ধন করেছে মিরকাদিম নাগরিক কমিটির ব্যানারে। মানববন্ধনকারীরা গণ্ডমূর্খ এবং মানসিক ভারসাম্যহীন মেয়রের অপসারণের দাবী গণমাধ্যমে তুলেন অভিযোগরা।

জানা গেছে, মিরকাদিম পৌরসভার মেয়র হাজ্বী আব্দুস ছালামের সাথে স্থানীয় সমাজকর্মী ও মাহবুব রহমান কাজলের গত ২৩ জুলাই ময়লা আবর্জনা ফেলার ডাস্টবিন নিমার্ণ করাকে কেন্দ্র বকাঝকা ও মারপিটের ঘটনা ঘটে।

এই ঘটনার প্রতিবাদে শনিবার বিকেল ৪ টার দিকে রিকাবিবাজার এলাকার নূরপুর সড়কে সমাজকর্মী মাহবুব রহমান কাজল মেয়র হাজ্বী আব্দুস ছালামের অপসারন ও মারধরের বিচার দাবীতে মানববন্ধন,বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা কর্মসূচি পালন করেন।

এ সময় বক্তব্য রাখেন মুন্সীগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা কামাল উদ্দিন আহমেদ, মুন্সীগঞ্জ থিয়েটারের সভাপতি হুমায়ুন ফরিদ, জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সহ-সভাপতি তাইফুর রহমান শান্ত, সমাজকর্মী মাহবুব রহমান কাজল, তার স্ত্রী আয়শা কাজল, ছোট বোন রুমানা রহমান, খুকু ও মেয়ে রোকসানা।

এদিকে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা শেষে সমাজকর্মী মাহবুব রহমান কাজলের লোকজন একটি বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে রামগোপালপুর এলাকা প্রদক্ষিণ করে। ওই সময় মিছিলকারীরা পৌরসভার মেয়র হাজ্বী আব্দুস ছালামের বাসভবনের ভেতরে প্রবেশের চেষ্টা করে,তখন পুলিশ বাঁধা দেয়। ওই সময় মিছিলকারীরা মেয়র হাজ্বী আব্দুস ছালামের বাসভবনের ইট পাটকেল ছুঁড়ে জালানার কাঁচ ভেঙ্গে ফেলে।

এ বিষয়ে মিরকাদিম পৌরসভার মেয়র হাজ্বী আব্দুস ছালাম বলেন, মাহবুব রহমান কাজল একজন সন্ত্রাসী। সে পরিকল্পিতভাবে মিরকাদিম পৌরসভার উন্নয়ন কাজের অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছে তার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। আমি তার প্রতিবাদ করলে ওই সন্ত্রাসী কাজল আমার উপর ক্ষুব্দ হয়,আজ মানববন্ধন করে। আমার বাড়িতে হামলা চালিয়ে দু’জনকে আহত করেছে।

এদিকে জেলা সেচ্ছাসেবকলীগের সহ-সভাপতি তাইফুর রহমান শান্ত বলেন, আমরা শান্তিপূর্ণ মানববন্ধন করেছি। আমরা ডাস্টবিন নির্মাণের স্হানে মিছিল নিয়ে যাওয়ার সময়। মেয়রের লোকজন তার বাড়িতে ঢিল ছুঁড়ে,আমাদের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে।

মুন্সীগঞ্জ সদর থানার (ওসি) মো. তারিকুজ্জামান বলেন, আমারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। মেয়রের বাসভবনে যে ইট পাটকেল ছুঁড়া হয়েছে তার প্রমান সংগ্রহ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে অভিযোগ পেলে যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।