• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৩:০৯ অপরাহ্ন

মুক্তিযোদ্ধার বাড়িতে হামলা, ভাংচুর ও লুটপাট : ৬দিন পেরিয়ে গেলেও ব্যবস্থা নেয়নি পুলিশ


প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ১০, ২০২২, ১০:৩৪ অপরাহ্ন / ৫৪
মুক্তিযোদ্ধার বাড়িতে হামলা, ভাংচুর ও লুটপাট : ৬দিন পেরিয়ে গেলেও ব্যবস্থা নেয়নি পুলিশ

লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ লালমনিরহাটে বীর মুক্তিযোদ্ধা মৃত আজিজুর রহমানের বাড়িতে হামলা ও ভাংচুর করে ১৫ লক্ষ টাকা ও ৩ ভরি স্বর্ণালংকার লুটপাট করেছেন স্থানীয় নুর আলম গংরা। এ ঘটনায় সদর থানায় অভিযোগ দায়েরের ৬দিন পেরিয়ে গেলেও কোনো ব্যবস্থা নেয়নি লালমনিরহাট সদর থানা পুলিশ।

বিষয়টি নিয়ে ঘটনার দিনই (৫ ডিসেম্বর) লালমনিরহাট সদর থানায় একটি অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী মুক্তিযোদ্ধার ছেলে মিজানুর রহমান। কিন্তু অদৃশ্য কারণে ঘটনা ও অভিযোগ দায়েরের ৬ দিন পেরিয়ে গেলেও কোনো ব্যবস্থা নেয়নি লালমনিরহাট সদর থানা পুলিশ। উল্টো অভিযোগ তুলে নিতে হুমকি অব্যাহত রেখেছে হামলাকারীরা। এতে প্রভাবশালী ঐ হামলাকারীদের ভয়ে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যরা। জেলার সদর উপজেলার বানভাসা এলাকায় বীর মুক্তিযোদ্ধা মৃত আজিজুর রহমানের বাড়িতে এমন ঘটনা ঘটে।

মুক্তিযোদ্ধার সন্তান মিজানুর রহমান অভিযোগে উল্লেখ করে বলেন, সে বাঁধা দেয়ায় তার গলায় ছুরি ঠেকিয়ে, নুর আলমসহ তার লোকজন আমার বাড়িতে এসে আমাদেরকে মারধর করে আমার হজ্বে যাওয়ার ও জমি বিক্রির ১৫ লক্ষ টাকা ও ৩ ভরি স্বণা নিয়ে যান। পূর্বপরিকল্পনা ভাবে নুর আলম ও তার সন্ত্রাসীবাহিরা আমার ২.৫ সতক রাস্তার পাশে জমিতে জোর করে ঘর তুলে টিনের বেড়া দিয়ে ঘিরে ফেলে আমার জমি দখল করেন।ইতি পূর্বে লারমনিরহাট সদর থানায় অভিযোগ করার পরও এখনো আমার অভিযোগের পুলিশ কোন পদক্ষেপ নেয়নি। মিজানুর রহমান আরোও বলেন নুর আলম এলাকায় বলে বেরায় সে অর্থের বিনিময়ে পুলিশকে দিয়েছে।

এ বিষয়ে লালমনিরহাট সদর থানার অফিসার ইনর্চাজ (ওসি) এরশাদুল আলম বলেন, আমি অভিযোগ পেয়েছি এবং তদন্ত করার জন্য সদর পুলিশ ফাড়ির এস আই তাজরুল কে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। তদন্ত চলছে, তদন্ত শেষ হলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।