• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৫:৩৬ পূর্বাহ্ন

মানুষ মেরে, গাড়ি পুড়িয়ে, পুলিশ মেরে, গণতন্ত্রের কথা বলে এটা কোন গণতন্ত্র গোপালগঞ্জে নির্বাচনী জনসভায়——শেখ সেলিম


প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ২২, ২০২৩, ১:৩৯ অপরাহ্ন / ৩৩
মানুষ মেরে, গাড়ি পুড়িয়ে, পুলিশ মেরে, গণতন্ত্রের কথা বলে এটা কোন গণতন্ত্র গোপালগঞ্জে নির্বাচনী জনসভায়——শেখ সেলিম

কে এম সাইফুর রহমান, গোপালগঞ্জঃ মানুষ মেরে, গাড়ি পুড়িয়ে, পুলিশ মেরে, তারা গণতন্ত্রের কথা বলে, এটা কোন ধরনের গণতন্ত্র? আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার ১নং জালালাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আয়োজনে বড়ফা এজিএম স্কুল এন্ড কলেজ মাঠ প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত এক নির্বাচনী জনসভায় প্রধান অতিথি হিসেবে শেখ ফজলুল করিম সেলিম এমপি এসব কথা বলেন। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের অন্যতম প্রেসিডিয়াম সদস্য ও গোপালগঞ্জ-২ আসনের বারবার নির্বাচিত সংসদ সদস্য, আধুনিক গোপালগঞ্জের রূপকার, সাধারণ জনগণকে বাংলাদেশের ইতিহাস আবারো স্মরণ করিয়ে দিয়ে বলেন, বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে আজ বাংলাদেশের জন্ম হতো না, আমরা স্বাধীন দেশের নাগরিক হতে পারতাম না। বিএনপি একটি সন্ত্রাসী দল, জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধু হত্যার সাথে সরাসরি জড়িত ছিলো। সে বেঁচে থাকলে তারও ফাঁসি হতো। আমাদেরকে মেরে ক্ষমতায় আসতে পারবে না। সাধারণ মানুষ আজ ওদের সম্পর্কে বুঝে গেছে। বাংলাদেশের জনগণ আজ ওদেরকে ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করেছে। সাধারণ মানুষ উন্নয়নে বিশ্বাস করে। তারা আবারো আওয়ামী সরকারকে বিপুল ভোটে নির্বাচিত করে ক্ষমতায় আনবে এবং উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখবে।

গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার জালালাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি এম. সুপারুল আলম টিকের সভাপতিত্বে নির্বাচনী জনসভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় যুবলীগের যুগ্ন-সাধারণ সম্পাদক শেখ ফজলে নাঈম, গোপালগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মাহাবুব আলী খান, সহ-সভাপতি এড. আতিয়ার রহমান, বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ লুৎফার রহমান বাচ্চু, সাধারণ সম্পাদক জি.এম সাহাব উদ্দিন আজম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি কাজী লিয়াকত আলী, সাধারণ সম্পাদক আবু সিদ্দিক সিকদার, কাশিয়ানী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোক্তার হোসেন, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম কবির, সাধারণ সম্পাদক মোঃ আলিমুজ্জামান বিটু, জালালাবাদ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মারুফ হাসান, সাবেক চেয়ারম্যান মিনা মুজিবুর রহমান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও উলপুর ইউপি চেয়ারম্যান কামরুল হাসান বাবুল) প্রমূখ।

এ সময় জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা ইউসুফ আলী খান, সহ সভাপতি পপা রায় চৌধুরী, যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মুশফিকুর রহমান লিটন, শেখ মো. রফিকুল ইসলাম মিটু, এস এম নজরুল, অর্থ বিষয়ক সম্পাদক এড এম এম নাসির আহমেদ, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নিউটন মোল্লা, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক মোঃ সাইফুল ইসলাম, এড. মতিয়ার রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক সাজ্জাদ খান, গোপালগঞ্জ জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি ও সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার সম্পাদক সৈয়দ মুরাদুল ইসলাম, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম কবির, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মাহামুদ রাসেল, মাছুদ রানা, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নিরুন্নাহার ইউসুফ সহ বিভিন্ন ইউনিয়নের ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্য গণসহ বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।