• ঢাকা
  • শনিবার, ২২ Jun ২০২৪, ০৩:০০ অপরাহ্ন

মাদারীপুরের কালকিনিতে মৎস্য কর্মকর্তা অপকর্ম ঢাকতে মরিয়া


প্রকাশের সময় : জুন ৮, ২০২৩, ৩:৩৩ অপরাহ্ন / ৬৪
মাদারীপুরের কালকিনিতে মৎস্য কর্মকর্তা অপকর্ম ঢাকতে মরিয়া

নিজস্ব প্রতিবেদক, মাদারীপুরঃ কোন নিয়ম নীতিকে তোয়াক্কা না করে প্রায় ৬ বছর যাবত একই উপজেলায় চাকরি করে আসছেন মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা সন্দীপন মজুমদার। এ সুযোগে তিনি জেলেদের মাঝে বিশেষ ভিজিএফের চাল ও ছাগল বিতরনসহ বিভিন্ন অনিয়ম করার সাহস পাচ্ছেন বলে এলাকায় অভিযোগ রয়েছে।

এদিকে তার বিরুদ্ধে এসব অনিয়মের অভিযোগ পেয়ে জেলা মৎস্য কর্মকর্তা ও সংশ্লিষ্টদের কাছে অভিযোগ দায়ের করেছেন কালকিনি উপজেলা নির্বাহী অফিসার পিংকি সাহা।

অপরদিকে এই ঘটনা জাতীয় পত্রিকাসহ বেশ কয়েকটি পত্রিকা, জাতীয় অনলাইন, স্থানীয় পত্রিকা ও স্থানীয় অনলাইন পোর্টালে “কালকিনিতে মৎস্য কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ” শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হয়। কিন্তু কিছু পেটুয়া সাংবাদিকদের মাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ দিয়ে ওই অন্যায়কারী মৎস্য কর্মকর্তা সন্দীপন মজুমদার একই চেয়ারে পুরো জীবন চাকরি করার চেষ্টা চালিয়ে আসছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ওই অনিয়মকারী মৎস্য কর্মকর্তার বিরুদ্ধে। প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ দেয়ায় স্থানীয় সচেতন মহলের মাঝে চরম ক্ষোভ বিরাজ করছে।

উল্লেখ্য উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা সন্দীপন মজুমদার গত ২০১৭ইং সালের ০৩ ডিসেম্বর কালকিনিতে সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা হিসেবে যোগদান করেন। একইস্থানে কোনো কর্মকর্তা তিন বছরের বেশি সময় চাকরি করার ব্যাপরে বিধান থাকলেও তিনি নিয়ম নীতিকে তোয়াক্কা না করে উপর মহলকে ম্যানেজ করে প্রায় ৬ বছর যাবত একই উপজেলায় দায়িত্ব পালন করে আসছেন। এবং এই সত্য ঘটনার সংবাদ প্রকাশ হওয়ায় তিনি পুরো চাকরি জীবন একই চেয়ারে কাটানোর জন্য প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ দিয়েছেন বলে স্থানীয় সচেতন মহলের দাবী।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন সচেতন ব্যক্তি বলেন, উপজেলা মৎস্য অফিসার দীর্ঘ বছর যাবত এখানে চাকরি করায় তার শেকড় গজিয়েছে। তাই তিনি বিভিন্ন অনিয়ম করতে সাহস পাচ্ছেন। আর এ বিষয় নিয়ে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ দিয়ে তিনি পার পাবেননা বলে আমরা বিশ্বাস করি। কারন বর্তমান সরকার অনিয়মকারীকে ছাড় দেননা। তাই তিনিও ছাড় পাবেন না।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার পিংকি সাহা বলেন, ‘উপজেলা মৎস্য অফিসার সন্দীপন মজুমদারের বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ পেয়ে জেলা মৎস্য কর্মকর্তা ও সংশ্লিষ্টদের কাছে অভিযোগ করা হয়েছে। তবে প্রতিবাদের বিষয়ে কর্তৃপক্ষ বলতে পারবে তার বিষয়ে কি করবে।