• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ০২:২৪ পূর্বাহ্ন

মাদকমুক্ত দীঘলী ইউনিয়ন উপহার দিতে আমি অঙ্গীকারবদ্ধ—-সোহেল রানা


প্রকাশের সময় : ফেব্রুয়ারী ১৯, ২০২২, ৭:১৭ অপরাহ্ন / ১৫৫
মাদকমুক্ত দীঘলী ইউনিয়ন উপহার দিতে আমি অঙ্গীকারবদ্ধ—-সোহেল রানা

এ.কে আজাদ, লক্ষ্মীপুরঃ লক্ষ্মীপুরের ১৩ নং দীঘলী ইউনিয়নকে মাদকমুক্ত করার লক্ষ্যে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন যুবলীগ নেতা সোহেল রানা। যিনি ইতোমধ্যে ইউপি নির্বাচনে জনগনের ভোটে মেম্বার পদে জয়লাভ করেন এবং দীঘলী ইউনিয়ন পরিষদের ভোটে প্যানেল চেয়ারম্যান টু নির্বাচিত হয়েছেন। রাজনৈতিক জীবনে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামীলীগের অঙ্গ সংগঠন ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম আহবায়কের দায়িত্ব পালন করছেন।প্রায় ২০ বছর যাবত তিনি সক্রিয় ভাবে আওয়ামী রাজনীতির সঙ্গে রয়েছেন বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে,সোহেল রানা অত্র ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডে জমাদ্দার বাড়ীর মরহুম সফিকউল্যাহর সুযোগ্য সন্তান।তারা ৪ ভাই ও দুই বোন।ভাই-বোনের মধ্যে সে বড়।এলাকায় রয়েছে তার যেমন সুনাম,তেমনি ইউনিয়ন ও জেলা পর্যায়ে সকল শ্রেণী পেশার মানুষের সঙ্গে ভালোবাসার যেন কোন অংশে ঘাটতি নেই।আওয়ামী লীগের জেলা পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ সহ তৃনমুল নেতৃবৃন্দের সঙ্গে রয়েছে সোহেল রানার নীবিড় সম্পর্ক।ইউপি নির্বাচনে তার প্রধান ইস্তেহার ছিলো এলাকাকে মাদকমুক্ত করবেন।এরই ধারাবাহিকতায় দীঘলি ইউনিয়নের সচেতন মহলকে সাথে নিয়ে তার নির্বাচনী ইস্তেহার রক্ষায় মাদকের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়ে মাদকসেবিদের বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছেন তিনি।এতে করে সকল শ্রেণী পেশার মানুষ তাকে সাধুবাদও জানিয়েছেন।ত্যাগি এই নেতা মাদকের বিরুদ্ধে অবস্থান নেওয়ায় ইতোমধ্যে মাদক ব্যবসায়ীরা এলাকা ছাড়তে শুরু করেছে বলে একাধিক সুত্র নিশ্চিত করেছে। অপরদিকে ভালো উদ্যোগ নেওয়ায় সোহেল রানার বিরুদ্ধে একটি কুচক্রী মহল গভীর যড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়ে নানামুখী অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছে বলেও শুনা গেছে।এলাকার সচেতন মহল জানান,আমরা মাদকমুক্ত সমাজ উপহার পেতে সবসময়ই সোহেল রানার পাসে আছি এবং থাকবো।কোন অপশক্তিই তাকে রুখতে পারবেনা।