• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ০২:০৪ পূর্বাহ্ন

বিদেশী আদলে হবে গোপালগঞ্জ পৌরসভা – মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সে নির্বাচনী সভায় মেয়র প্রার্থী শেখ রকিব হোসেন


প্রকাশের সময় : জুন ১১, ২০২২, ১১:০১ অপরাহ্ন / ১১২
বিদেশী আদলে হবে গোপালগঞ্জ পৌরসভা – মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সে নির্বাচনী সভায় মেয়র প্রার্থী শেখ রকিব হোসেন

কে এম সাইফুর রহমান, গোপালগঞ্জঃ গোপালগঞ্জ জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সে সাবেক জেলা কমান্ডার এম, বদরুদ্দোজা বদরের সভাপতিত্বে জেলার সকল মুক্তিযোদ্ধাগণ এক হয়ে আসন্ন গোপালগঞ্জ পৌরসভায় মেয়রপ্রার্থী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার চাচা শেখ রকিব হোসেনকে পূর্ণসমর্থন জানান।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন গোপালগঞ্জ জেলা আ. লীগের মাহাবুব আলী খান। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ লুৎফার রহমান বাচ্চু। বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ গোপালগঞ্জ জেলা শাখার সাবেক কমান্ডার এম, বদরুদ্দোজা বদর বলেন, দেশ স্বাধীন হওয়ার পরে কোন সরকারই মুক্তিযোদ্ধাদের সঠিক মুল্যায়ন করেননি। একমাত্র বাংলাদেশ সকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় এসে সকল মুক্তিযোদ্ধাদের পূর্ণমর্যাদা সহ আমাদের বেতন ও ভাতার ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। মুক্তিযোদ্ধাদের দেশের শ্রেষ্ঠ সন্তান হিসাবে স্বীকৃতি দিয়েছেন। আমরা সকল মুক্তিযোদ্ধারা তার প্রতি সন্মান রেখে তার চাচা শেখ রকিব হোসেনকে সমর্থন করেন ও আমাদের আশপাশের আত্মীয়-স্বজনকেও রকিব ভাইয়ের নারিকেল গাছ মার্কায় ভোট দেওয়ার অনুরোধ জানান। গোপালগঞ্জ পৌরনির্বাচনে মেয়রপ্রার্থী শেখ রকিব হোসেন সকলের উদ্দেশ্যে বলেন, যদি আমি আপনাদের মূল্যবান ভোটে মেয়র হতে পারি, তাহলে মুক্তিযোদ্ধাদের কোন অসন্মান হতে দেব না। কোন মুক্তিযোদ্ধা বিপদে পড়লে বা আমার কাছে আসলে আমি তাদের সমস্যা সমাধান করবো। তিনি গোপালগঞ্জ পৌরবাসীর উদ্দেশ্যে আরও বলেন, যদি আমি আপনাদের মূল্যবান ভোটে মেয়র হতে পারি, তাহলে মুক্তিযোদ্ধাদের কোন অসন্মান হতে দেব না। কোন মুক্তিযোদ্ধা বিপদে পড়লে বা আমার কাছে আসলে আমি তাদের সমস্যা অবশ্যই সমাধান করবো। তিনি গোপালগঞ্জ পৌরবাসীর উদ্দেশ্যে আরও বলেন, আমি যদি মেয়র হতে পারি তাহলে গোপালগঞ্জ হবে বিদেশ। উক্ত অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন, এস, কে আকরাম, বীরমুক্তিযোদ্ধা মো. আমজাদ হোসেন, মো. আকবর হোসেন শেখ, মীর আলী আকবর হোসেন, আবুল খায়ের, খান আবুল বশার, শাখাওয়াত হোসেন মোল্লা, ইদ্রিস হোসেন, মো. মতিয়ার রহমান, আ. রহমান শেখ, কাজী মাহাবুব আলম, মুন্সী গোলাম হোসেন, বীর মুক্তিযোদ্ধার সুযোগ্য সন্তান দোলন বিশ্বাস (বাবু), লতিফপুর ইউপি’র সাবেক চেয়ারম্যান এম জাফর হোসেন কালু প্রমুখ।