• ঢাকা
  • শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ০৩:১০ অপরাহ্ন

প্রেমের টানে ঘর ছাড়ে সিরাজুল ইসলাম ও খুকি আক্তার


প্রকাশের সময় : জুলাই ৬, ২০২২, ৩:৫২ অপরাহ্ন / ৫১
প্রেমের টানে ঘর ছাড়ে সিরাজুল ইসলাম ও খুকি আক্তার

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ প্রেমের টানে ঘর ছাড়ে সিরাজুল ইসলাম ও খুকি আক্তার। মেয়েকে না পেয়ে ছেলের মায়ের গায়ে পেট্রোল ঢেলে পুড়িয়ে হত্যা করে মেয়ের পরিবার। এ ঘটনায় মেয়ের বাবা ও মাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। বুধবার (৬ জুলাই) এসব কথা জানায় পিবিআই ময়মনসিংহের পুলিশ সুপার (এসপি) গৌতম কুমার বিশ্বাস।

তিনি বলেন, প্রেমের টানে গত ১৯ জুন ঘর ছাড়েন ময়মনসিংহের কোতোয়ালী থানার চর ঈশ্বরদিয়া পূর্বপাড়ার মো. আব্দুর রশিদের ছেলে সিরাজুল ইসলাম (২০) ও একই গ্রামের খোকন মিয়ার মেয়ে খুকি আক্তার (২০)। খুকি আক্তারকে ফিরে পাওয়ার জন্য তার বাবা খোকন মিয়া ও মা নাসিমা আক্তার কনা সিরাজুল ইসলামের বাবা আব্দুর রশিদ ও মা লাইলী বেগমকে চাপ দিতে থাকে। অন্যথায় তাদের দেখে নেবে বলে হুমকি দেন। ১০ দিন অতিবাহিত হওয়ার পরেও মেয়েকে না পেয়ে ছেলের বাড়ীতে প্রবেশ করে গালিগালাজ করতে থাকে মেয়ের বাবা-মাসহ কয়েকজন।

ছেলের বাবা আব্দুর রশিদের অনুপস্থিতিতে সকল আসামীরা তার স্ত্রীর মুখ চেপে ধরে হাত, পা বিদ্যুতের কালো তার দিয়ে বেধে তার শরীরে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। এতে তার শরীরের প্রায় ৬০ শতাংশ পুড়ে যায়। ভিকটিম লাইলী আক্তারকে দ্রুত ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক লাইলী আক্তারকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল হতে ঢাকায় রেফার্ড করেন। ঢাকায় শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্রাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউট এ ভর্তি করা হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়৷

এ ঘটনায় স্বামী আব্দুর রশীদ বাদী হয়ে কোতোয়ালী মডেল থানার মামলা করেন।গতকাল নারায়নগঞ্জ জেলার রূপগঞ্জ থানা এলাকা থেকে মামলার আত্মগোপনে থাকা ১নং আসামী খোকন মিয়া ও ২নং আসামী নাসিমা আক্তার কনাকে গ্রেফতার করে।