• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩, ০১:৪২ অপরাহ্ন

পাটুরিয়া ফেরিঘাট এলাকায় গাড়ির চাপ বাড়ছে


প্রকাশের সময় : জুলাই ১৭, ২০২১, ১:০৪ অপরাহ্ন / ১১৩
পাটুরিয়া ফেরিঘাট এলাকায় গাড়ির চাপ বাড়ছে

বিশেষ প্রতিনিধিঃ কঠোর বিধিনিষেধ শিথিলের তৃতীয় দিনে মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ফেরিঘাট এলাকায় গাড়ির চাপ বাড়ছে। আজ শনিবার (১৭ জুলাই) সকাল থেকেই পাটুরিয়া ৫ নং ফেরিঘাটে এলাকায় বাস-ট্রাকসহ ব্যক্তিগত ছোট গাড়ির চাপ বাড়তে থাকে। তবে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌপথে ১৬টি ফেরি চলাচল করায় গাড়িগুলো আধা ঘণ্টা থেকে এক ঘণ্টার মধ্যেই ফেরিতে ওঠে যাচ্ছে।

সরেজমিনে পাটুরিয়া ফেরিঘাটের ৫ নং ঘাট এলাকায় দেখা যায়, ব্যক্তিগত গাড়ির দীর্ঘ সারি রয়েছে। এছাড়াও ঘাট এলাকায় যাত্রীবাহী দুরপাল্লার বাসের সংখ্যা কম থাকলেও রয়েছে পণ্যবাহী ট্রাকের চাপ। প্রিয়জনদের সঙ্গে ঈদ করতে রাজধানী ঢাকাসহ আশপাশের সাধারণ যাত্রীদেরও কিছুটা চাপ দেখা গেছে।

ফেরিতে যানবাহনের সঙ্গে যাত্রী পারাপার হতে দেখা গেছে। তবে ঘাট এলাকায় যাত্রীর মুখে মাস্ক থাকলেও সামাজিক দূরত্বর বিষয়টি উপেক্ষিত ছিল। এছাড়া ফেরিতে যাত্রীদের মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি না মানা প্রবণতাও ছিল লক্ষণীয়। পাটুরিয়া ফেরিঘাট টার্মিনাল, ঢাকাগামী সড়ক মিলে সাত শতাধিক পণ্যবাহী ট্রাক, শতাধিক ব্যক্তিগত গাড়ি নৌপথ পারাপারে অপেক্ষায় রয়েছে।

পাটুরিয়া ৩ নং ফেরিঘাট এলাকায় কথা হয় ইমরান হোসেনের সঙ্গে। যাবেন গ্রামের বাড়ি সাতক্ষীরায়। আলাপকালে তিনি বলেন, ‘ঢাকা একটি পোশাকের দোকানে কাজ করি। লকডাউনের সময় দোকান বন্ধ থাকায় আয়-রোজগারও বন্ধ ছিল। তবে লকডাউন শিথিল কারায় মালিক দোকান খুলছে। দুদিন দোকানে কাজ করে মালিককে বলে বেতন নিয়ে বাড়িতে যাচ্ছি। ঈদের সময় গাড়ি পাওয়া গেলেও সিট পাওয়া যায় না। আবার ভাড়াও লাগে বেশি। এজন্য আগেই চলে যাচ্ছি।
ঘাট সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, ‘ঈদের আগে সরকার লকডাউন শিথিল কারায় পাটুরিয়া ঘাট হয়ে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের প্রায় ২১ জেলার যানবাহন ও যাত্রীরা গ্রামে বাড়ি যাচ্ছেন। সকাল থেকেই ছোট গাড়ি ও যাত্রীর কিছুটা চাপ পড়েছে পাটুরিয়ায়। তবে নৌপথে ১৬টি ফেরি চলাচল কারায় রাজধানী ঢাকাসহ আশপাশের এলাকা থেকে ছেড়ে আসা যানবাহন ও যাত্রীদের নৌপথ পারাপারের বিগত দিনে মতো ভোগান্তি হবে না দাবি ঘাট কর্তৃপক্ষের।
বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন করপোরেশনের (‎বিআইডব্লিউটিসি) আরিচা আঞ্চলিক কার্যালয়ের উপ-মহাব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) মো. জিল্লুর রহমান বলেন, ‘করোনার বিস্তার রোধে সরকার ঘোষিত কঠোর বিধিনিষেধ শিথিল করায় পাটুরিয়া ঘাটে যানবাহন ও যাত্রীর চাপ বাড়ছে। গত দুদিনের তুলনায় আজ সকাল থেকেই দক্ষিণাঞ্চল জেলার যাত্রী ও যানবাহনের সংখ্যা বাড়তে শুরু করেছে।

তিনি বলেন, পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌপথে ১৬টি ফেরি চলাচল করায় যানবাহন ও যাত্রীদের পারাপারে সমস্যা হবে না। আমরা সব সময়ই ঘাট এলাকায় আগত সব যানবাহন ও যাত্রীদের নির্বিঘ্নে পারাপারের চেষ্টা করছি। যাত্রীদের স্বাস্থ্যবিধি মানার বিষয়ে আমরা কাজ করে যাচ্ছি।
ঘাট এলাকায় কয়েকটি যাত্রীবাহী বাস, শতাধিক ছোট গাড়ি ও সাত শতাধিক পণ্যবাহী ট্রাক নৌপথ পারাপারের অপেক্ষমাণ রয়েছে বলে জানান তিনি।