• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ০৮:০৪ অপরাহ্ন

পলাতক আসামী কামালের বিরুদ্ধে এসপির কাছে নারী সাংবাদিক সুমনার অভিযোগ


প্রকাশের সময় : মে ১৮, ২০২৩, ১০:১৪ পূর্বাহ্ন / ৫৮
পলাতক আসামী কামালের বিরুদ্ধে এসপির কাছে নারী সাংবাদিক সুমনার অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ নারায়নগঞ্জের  বন্দরের নারী সাংবাদিক ফরিদা ইয়াসমীন সুমনাকে অশ্লীল মন্তব্য করায় পলাতক আসামী কামাল প্রধানের বিরুদ্ধে নারায়ণগঞ্জ পুলিশ সুপারের কাছে সাইবার ক্রাইমে মামলা করার জন্য লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। অভিযোগ নাম্বার-৪৫৭/ভি।

লিখিত অভিযোগে জানা যায়, অভিযুক্ত আসামী কামাল প্রধান একজন চিহ্নিত প্রতারক। তার বিরুদ্ধে নারায়ণগঞ্জ আদালতে প্রতারণায় বিদেশে লোক পাঠানোসহ অন্যের জমি ভুয়া দলিল করে বিক্রি, নগদ টাকা আত্মসাৎ ও চেক ডিজঅনারের মামলা বেশ কয়েকটি মামলা চলমান রয়েছে। বাটপার কামাল প্রধান নিজেকে দৈনিক বিজয়, স্বাধীন বাংলাদেশ ও সবুজ পৃথিবী পত্রিকার প্রকাশ পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন লোকদের বোকা বানিয়ে ধোকা দিচ্ছে। এক পত্রিকা একাধিক লোকের কাছে বিক্রয় করছে। যার ডিক্লারেশন আইনে নিষিদ্ধ। কোন প্রকাশক পত্রিকা প্রকাশ করতে অক্ষম হলে সরকার বরাবর সারেন্ডার করে দিতে হবে। এছাড়াও বাটপার কামাল প্রধান নিজেকে রেমিটেন্স যোদ্ধা দাবী করে, যা আদৌ সত্য নয়। অভিযুক্ত আসামী কামাল প্রধান ফেসবুক লাইভে এসে বিভিন্ন সম্মানীত ব্যক্তিদেরকে অসম্মান করে সমালোচনা ও কুৎসা রটিয়ে যাচ্ছে, যা আইনত দন্ডনীয়। সাংবাদিক ফরিদা ইয়াসমীন সুমনা নিজেকে কবি, সাংবাদিক ও সংগঠক পরিচয় দিয়ে বলেন, প্রতারক কামাল প্রধান আমার যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক আইডিতে কুরুচিপূর্ণ লেখা ট্যাগ করে মানসম্মান নষ্ট করে হয়রানী করছে। সম্প্রতি কামাল প্রধান ফরিদা ইয়াসমীন সুমনাকেও অশ্লীল মন্তব্য করে বিব্রতকর পরিস্থিতিতে ফেলে। ফরিদা ইয়াসমীন সুমনা নারায়ণগঞ্জের একজন জয়িতা। নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসন ও মহিলা অধিদপ্তর থেকে বিশেষ অবদানের জন্য ফরিদা ইয়াসমীন সুমনা সম্প্রতি জয়িতা পুরস্কার লাভ করেন। লিখিত অভিযোগে তিনি উল্লেখ করেন প্রতারক কামাল প্রধানসহ অজ্ঞাত নামা আরও ৫/৬ জন প্রতারকচক্র তাদের ফেসবুক আইডি থেকে নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন মানুষদের মানসম্মান নষ্ট ও হয়রানী করছে। যার ফলে আসামী কামাল প্রধানকে দ্রুত গ্রেফতার পূর্বক প্রয়োজনীয় আনইগত ব্যবস্থা নিতে পুলিশ সুপারের নিকট অভিযোগ দায়ের করেন ভুক্তভোগী নারী। অভিযোগের অনুলিপিটি ডিসি, ডিবি, সিআইডি, র‌্যাব-১১, তথ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব ও স্বারাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব করাবর প্রদান করা হয়েছে বলে জানা গেছে।