• ঢাকা
  • শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৬:০৫ অপরাহ্ন

পঞ্চগড়ে দুই যুবকের লাশ উদ্ধার


প্রকাশের সময় : জানুয়ারী ২৬, ২০২৩, ১:২২ পূর্বাহ্ন / ১৩
পঞ্চগড়ে দুই যুবকের লাশ উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক,পঞ্চগড়ঃ পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জ উপজেলায় খোকন সরকার (৩৩) নামে এক ব্যক্তির গলাকাটা মরদেহ এবং তেঁতুলিয়ায় নিখোঁজের তিন দিন পর কামরুল ইসলাম (৩৫) নামে এক যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।
বুধবার (২৫ জানুয়ারি) দুপুরে দেবীগঞ্জ পৌরসভা এলাকাধীন নতুনবন্দর গ্রামের ভুট্টা ক্ষেত থেকে খোকন সরকারের এবং বিকেলে তেঁতুলিয়া উপজেলার ভজনপুর ইউপির ধানশুকা এলাকার একটি চা বাগানের ড্রেন থেকে কামরুলের লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত খোকন দেবীগঞ্জ পৌরসভার নতুনবন্দর গ্রামের দুলাল সরকারের ছেলে অপরদিকে কামরুল তেঁতুলিয়া উপজেলার শালবাহান ইউনিয়নের জুগীগছ গ্রামের আব্দুল জব্বারের ছেলে।

পৌর মেয়র আবু বক্কর সিদ্দিক স্থানীয়দের বরাত দিয়ে জানান, বুধবার সকালে ময়নামতি চরের পাশে গরুর ঘাস তুলতে গেছেন খোকন। দুপুরে দেখা গেছে গলা কাটা লাশ।

দেবীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ জামাল হোসেন মরদেহ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, তার বাড়ি থেকে প াশ গজ দুরে ভুট্টা ক্ষেত থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। নিহতের গলায় কাঁচি ঢুকে শ্বাসনালী কেটে ফাঁকা হওয়ার চিহ্ন আছে। কি কারণে এ ঘটনা ঘটেছে তা তদন্ত সাপেক্ষে জানা যাবে।

এদিকে গলাকাটা লাশ উদ্ধারের খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন, পুলিশ সুপার এস এম সিরাজুল হুদা পিপিএম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম এন্ড অ্যাপস) কনক কুমার দাস, সহকারী পুলিশ সুপার (দেবীগঞ্জ সার্কেল) রুনা লায়লা, দেবীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ জামাল হোসেনসহ অন্যান্য পুলিশ সদস্যরা।

অপরদিকে তেঁতুলিয়ায় নিহত যুবকের লাশ উদ্ধার সম্পর্কে স্থানীয়া জানান, বুধবার বিকেলে চা-বাগানে তিনজন মহিলা খড়ি আনতে গেলে তাঁরা বাগানের ড্রেনের বনঝাড়ের ঝোপে কামরুলকে দেখতে পেয়ে চিৎকার করেন। পরে স্থানীয়রা গ্রাম পুলিশসহ লাশ নিশ্চিত দেখে থানা পুলিশকে খবর দেয়। পরে তেঁতুলিয়া মডেল থানা পুলিশ কামরুলের মরদেহটি উদ্ধার করেন।

জানা যায়, গত সোমবার রাত থেকে নিখোঁজ ছিলেন কামরুল ইসলাম। মঙ্গলবার খোঁজাখুঁজির এক পর্যায়ে না পেয়ে, বুধবার দুপুরে তেঁতুলিয়া মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেন তার পরিবার। বিকালে ভজনপুর এলাকায় লাশ উদ্ধারের খবর পেয়ে, তিরনইহাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলমগীর হোসাইন সনাক্ত করেন লাশটি কামরুলের।

লাশ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করে তেঁতুলিয়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) আবু সাঈদ চৌধুরী বলেন, মৃতদেহের গলায় দাগ রয়েছে, শ্বাসরোধ করে মারা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে। ময়নাতদন্তের পর নিহতের বিষয়ে বলা সম্ভব। এদিকে লাশ উদ্ধারের আগে দুপুরে তার পরিবার থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেছেন।
এই খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) রাকিবুল ইসলাম।

ঘটনার তথ্য উদঘাটনে ঘটনাস্থলে সিআইডি প গড়ের একটি টিম কাজ করছেন বলে জানা গেছে।