• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩, ০২:২৫ অপরাহ্ন

নড়াইলের কালিয়ায় গৃহবধুকে দলবেধে ধর্ষন : গ্রেপ্তার-৪


প্রকাশের সময় : জুন ২৩, ২০২১, ১২:৩৮ পূর্বাহ্ন / ১৮৮
নড়াইলের কালিয়ায় গৃহবধুকে দলবেধে ধর্ষন : গ্রেপ্তার-৪

মোঃ জিহাদুল ইসলাম, নড়াইলঃ স্বামীর ইন্ধন ও সহযোগীতায় নড়াইলের কালিয়ায় এক গৃহবধুকে দলবেধে ধর্ষন করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত রোববার রাতের ওই ঘটনায় ২১জুন (সোমবার) রাতে ধর্ষিতা নিজে বাদি হয়ে স্বামী আতাউর রহমানসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে কালিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। পুলিশ ৪ ধর্ষককে গ্রেপ্তার করেছে এবং স্বামী আতাউর রহমানকে যশোর সেনানিবাসে হস্তান্তর করেছে।

মামলার বিবরনে জানা যায়, উপজেলার বিলবাউজ গ্রামের মজিবর রহমানের ছেলে বর্তমানে যশোর সেনানিবাসে কর্মরত আতাউর রহমানের সাথে প্রায় ১০ বছর আগে ওই গৃহবধুর বিয়ে হয়। ইতিমধ্যে তাদের ঘরে জন্ম নিয়েছে ৩টি সন্তান। কিছুদিন ধরে স্বামীর সাথে সম্পর্কের অবনতি হলে স্বামী তাকে নানা ভাবে নির্যাতন করে আসছিল। এরই মধ্যে ওই গ্রামের জাফর শেখের ছেলে রিয়াজ শেখ ওই গৃহবধুকে নানা ভাবে উত্যক্ত করতে থাকে। গত রোববার রাত ২ টার দিকে রিয়াজসহ স্থানীয় ৪ যুবক ওই বাড়িতে হানা দিয়ে তাকে ডেকে তোলে এবং দরজা খুলতে বলে। কিন্তু গৃহবধু দরজা খুলতে রাজি না হলে তখন ধর্ষকরা তার স্বামীকে মোবাইল ফোনে জানালে তার স্বামী তাকে সেনানিবাস থেকে মোবাইল ফোনে দরজা খোলার নির্দেশ দিলে গৃহবধু বসত ঘরের দরজা খুলে দেয়। এরপর ধর্ষকরা ঘরে ঢুকে ঘরে থাকা তার সন্তান ও প্রতিবেশী পারভেজ মোল্যাকে মারপিট করে ঘর থেকে বের করে দিয়ে দরজা আটকে গৃহবধুকে পালাক্রমে ধর্ষন করে ও ধর্ষন দৃশ্যের ভিডিও ধারন করে যশোরে থাকা স্বামী আতাউরের মোবাইল ফোনে পাঠাতে থাকে বলে অভিযোগ করা হয়েছে।

ওই ঘটনায় ধর্ষিতা বাদি হয়ে গত সোমবার রাতে স্বামী আতাউর রহমানসহ একই গ্রামের জাফর শেখের ছেলে রিয়াজ শেখ (২৪), ফিরোজ হোসেনের ছেলে মিল্লাত হোসেন (২৮), মৃত খোকা মোল্যার ছেলে দীন মহম্মাদ কালু (২২) ও ইমরুল মোল্যার ছেলে তালহা জোবায়ের আশিককে (২১) আসামী করে মামলা দায়ের করেছেন। অপরদিকে ঘটনার পর আতাউর রহমান ছুটি নিয়ে বাড়িতে আসরে স্ত্রীর অভিযোগ ও মামলার আসামী হওযার কারনে পুলিশ তাকে হেফাজতে নেয়।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এলাবাসীরা জানান, আটককৃত আসামীদের নৈতিক চরিত্র ভাল নয়। প্রভাবশালীদের ছত্রছাঁয়ায় মাদকসহ বিভিন্ন অপকর্মে লিপ্ত থাকে। ভয়ে কেউ প্রতিবাদ করার সাহস পায়না।
কালিয়া থানার ওসি সেখ কনি মিয়া বলেছেন, গৃহবধুকে ধর্ষনের ঘটনায় ৪ জনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। স্বামী আতাউরকে যশোর সেনানিবাসে হস্তান্তর করা হয়েছে।