• ঢাকা
  • শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০১:৫৯ অপরাহ্ন

নোয়াখালীতে ড্রেনের পাশ থেকে জীবিত নবজাতক উদ্ধার 


প্রকাশের সময় : এপ্রিল ৭, ২০২৩, ১:০৬ অপরাহ্ন / ৪৯
নোয়াখালীতে ড্রেনের পাশ থেকে জীবিত নবজাতক উদ্ধার 

নিজস্ব প্রতিবেদক, নোয়াখালীঃ নোয়াখালীর মাইজদীতে সদর হাসপাতালের পাশে একটি ড্রেনের পাশ থেকে এক ফুটফুটে জীবিত নবজাতক কে উদ্ধার করা হয়েছে। নবজাতক ছেলে শিশুটি বর্তমানে সুস্থ আছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।৫ এপ্রিল বুধবার দুপুরে সুধারাম মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আনোয়ারুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।বুধবার সকালে নোয়াখালী পৌরসভার ১নং ওয়ার্ড এবং নোয়াখালী সদর হাসপাতালের পশ্চিম পাশে দিনমজুর সুবল হোসেন বাচ্চার কান্নার আওয়াজ শুনতে পেয়ে মই দিয়ে দেওয়াল টপকে সদর হাসপাতালের এরিয়ার ভেতর থেকে নবজাতকটিকে উদ্ধার করে। এরপর রক্তমাখা শিশুটিকে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করান।

নোয়াখালী পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো. আলমগীর হোসেন বলেন, দিনমজুর সুবল নবজাতকটিকে দেখতে পেয়ে প্রথমে আমাকে জানায়। কিন্তু কিছু গণমাধ্যম বাচ্চাটিকে সদর হাসপাতালের ওয়ালের পাশে প্রাইভেট হাসপাতালের ডাষ্টবিনে পাওয়ার বিষয়ে সংবাদ প্রকাশ করলে এটি নিয়ে সাধারণ মানুষের মাঝে বিরূপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়।এ বিষয়ে সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) সৈয়দ মহিউদ্দিন আবদুল আজিম বলেন, নবজাতক শিশুটি বর্তমানে ওয়ার্ডে ভর্তি আছে এবং সুস্থ আছে।সুধারাম মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, ড্রেন থেকে উদ্ধার হওয়া নবজাতকটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে।

আমি হাসপাতালে গিয়ে চিকিৎসকদের সঙ্গে কথা বলেছি। শিশুটি সুস্থ আছে বলে জানিয়েছেন তারা। তবে কে বা কারা সুযোগ বুঝে বাচ্চা শিশুটি কে ফেলে রেখে গেছে সে বিষয়ে তদন্ত চলছে।তবে ইতিমধ্যে নবজাতকটি দত্তক নেওয়ার বিষয়ে অনেকেই ইচ্ছের কথা জানান৷ ওসি জানান এখন ওই শিশুর চিকিৎসা চলছে। পুরোপুরি সুস্থ না হওয়ায় এসব বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া সম্ভব না। সুস্থ হলে আইনি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে তা করা যাবে।এদিকে নবজাতক শিশুটিকে সুবল নামের যে ব্যক্তি প্রথম উদ্ধার করেছেন, তিনি জানান বাচ্ছাটিকে যদি দত্তক দেওয়া হয় তাহলে যেন অগ্রাধিকার ভিত্তিতে তাকেই দেওয়া হয়।